শনিবার-২৫শে মে, ২০১৯ ইং-১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: বিকাল ৪:৪৮
আন্তনগর ‘পঞ্চগড় এক্সপ্রেস’ ট্রেন উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী দ্বিতীয় মেঘনা ও দ্বিতীয় গোমতী সেতু উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী বসুন্ধরায় বাইতুল জান্নাত জামে মসজিদ উদ্বোধন চার সমুদ্রবন্দরে ৩, নদীবন্দরে ২ নম্বর সংকেত শুটিংয়ে আহত জন আব্রাহাম, সম্পূর্ণ বিশ্রামের নির্দেশ টয়ার ঈদ বিশেষ ‘সাইজ ৪২’ ৩,৩০০ কেজির বিমান টানলো ১৩০ কেজির রোবট! (ভিডিও)

এবার সিলেটে নজর তারেকের

1 month ago , বিভাগ : রাজনীতি,

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: গঠনতন্ত্র অনুযায়ী বিএনপির জেলা কমিটির পরিধি হওয়ার কথা ১৫১ জনের। কিন্তু সিলেট জেলা বিএনপির কার্যক্রম চলছে ২৮৫ সদস্য দিয়ে। ঢাউস এই কমিটির কথা শুনে বিস্মিত বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। গঠনতন্ত্র উপেক্ষা করে বৃহৎ এই কমিটি গঠনের ব্যাখ্যা চেয়েছিলেন তারেক। দলের নেতারা নিজেদের মতো জবাবও দিয়েছেন। কিন্তু তাতে খুব একটা সন্তুষ্ট হননি তারেক রহমান। নির্দেশ দিয়েছেন দ্রুত সময়ের মধ্যে জেলা বিএনপি পুনর্গঠনের। গঠনতন্ত্রের নির্দেশনার বাইরে একজন সদস্যও যেন না রাখা হয় তা সাফ জানিয়ে দিয়েছেন তারেক। গত ৮ এপ্রিল ঢাকায় সিলেট জেলা বিএনপির নেতাদের সঙ্গে স্কাইপের মাধ্যমে বৈঠকের পর এই নির্দেশনা দিয়েছেন তিনি। ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের নির্দেশনা পেয়েই দল পুনর্গঠনের কাজ শুরু করে দিয়েছেন জেলা বিএনপির শীর্ষ নেতারা। আগামীতে কমিটির পরিসর ছোট হওয়ার ইঙ্গিত পেয়ে বর্তমান কমিটির প্রায় দেড় শতাধিক নেতা এখন আছেন পদ-পদবি হারানোর আতঙ্কে। দলীয় সূত্রে জানা যায়, সিলেটের সাংগঠনিক সর্বশেষ অবস্থা জানতে গত ৮ এপ্রিল ঢাকায় সিলেট জেলা বিএনপির শীর্ষ ৯ নেতাকে তলব করেন দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। যুক্তরাজ্যে অবস্থানরত তারেক সিলেটের নেতাদের সঙ্গে কথা বলেন স্কাইপে। প্রায় দুই ঘণ্টার বৈঠকে জেলা, উপজেলা ও পৌর কমিটির তথ্য নেন তারেক। ১৫১ সদস্যের স্থলে ২৮৫ সদস্যের জেলা কমিটির কথা শুনে বিস্ময় প্রকাশ করেন তিনি। গঠনতন্ত্র উপেক্ষা করে কমিটি গঠনের কারণও জানতে চান তারেক রহমান। তখন বিএনপি নেতারা জানান, ১৪ বছর ধরে পূর্ণাঙ্গ কমিটি না হওয়ায় অনেকেই পদ-পদবি বঞ্চিত ছিলেন। তাদের মূল্যায়ন করতেই ২০১৭ সালের ২৬ এপ্রিল এ কমিটি গঠন করা হয়েছিল। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সম্মতিতেই বৃহৎ এই কমিটি গঠনের কথা জানান জেলার নেতারা। সিলেটের নেতাদের বক্তব্য শুনে সিলেটে দলকে তৃণমূল পর্যায় থেকে ঢেলে সাজানোর নির্দেশ দেন তারেক রহমান। জেলা বিএনপির কার্যনির্বাহী কমিটির সভা ডেকে ওয়ার্ড পর্যায় থেকে কীভাবে গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে নতুন কমিটি গঠন করা যায় তার কর্মকৌশল নির্ধারণ করে আগামী ১৫ মের মধ্যে কেন্দ্রে জমা দেওয়ার নির্দেশ দেন তারেক। কর্মকৌশল জমা দেওয়ার পর তার সঙ্গে আলোচনা করতেও জেলার নেতাদের নির্দেশ দেন তিনি। একই সঙ্গে আগামীতে কোনো পর্যায়ের কমিটিতে দলের দুঃসময়ে রহস্যজনক ভূমিকা পালনকারী ও দীর্ঘদিন ধরে নিষ্ক্রিয়দের স্থান না দেওয়ার নির্দেশ দেন তিনি। আগামীতে কমিটিতে ত্যাগীদের মূল্যায়নের পাশাপাশি যারা এলাকায় থাকেন না তাদের বাদ দিতে হবে- এমন সাফ নির্দেশনা দেন দলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান। শুধু বিএনপি নয়, দলের ৯টি অঙ্গ ও ২টি সহযোগী সংগঠনকেও ঢেলে সাজানোর উদ্যোগ নিতে বিএনপি নেতাদের নির্দেশ দেওয়া হয়। কোন অঙ্গ, সহযোগী সংগঠনের সাংগঠনিক অবস্থা কেমন তা আগামী ৩০ এপ্রিলের মধ্যে তার কাছে পাঠাতে বলেন তারেক। তারেক রহমানের নির্দেশনা বাস্তবায়নে ইতিমধ্যে কাজ শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছেন সিলেট জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলী আহমদ। তিনি জানান, সাংগঠনিক অবস্থা জানাতে একটি ফরম্যাট তৈরি করে তা অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতাদের কাছে পাঠানো হয়ে গেছে। নির্দেশনা অনুযায়ী ৩০ এপ্রিলের মধ্যে তা ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের কাছে পাঠানো হবে। তিনি আরও জানান, রমজান মাস শুরুর আগেই জেলা বিএনপির কার্যনির্বাহী পরিষদের সভা আহ্বান করা হচ্ছে। ওই সভায় সিদ্ধান্ত নিয়েই ওয়ার্ড পর্যায় থেকে নতুন কমিটি গঠন শুরু হবে। পর্যায়ক্রমে দ্রুততম সময়ের মধ্যে জেলার আওতাধীন ১৩টি উপজেলা ও ৪টি পৌর কমিটি গঠন করা হবে। এখন থেকে কোনো কমিটিই গঠনতন্ত্রে উল্লিখিত সংখ্যার চেয়ে বেশি হবে না বলে জানান আলী আহমদ।সূত্র: বাংলাদেশপ্রতিদিন

আপনার মতামত লিখুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ