বুধবার,২৩শে আগস্ট, ২০১৭ ইং,৮ই ভাদ্র, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সময়: সন্ধ্যা ৭:৪১

‘বন্যার পরে কৃষকদের সহায়তায় সর্বোচ্চ চেষ্টা থাকবে’ শান্তিতে মারা গেছেন আব্বা : সম্রাট শক্তির উৎস আজ দাফন করে এলাম : শাকিব আফ্রিদির ৪৩ বলে শতক নেইমারের বিরুদ্ধে বার্সেলোনার মামলা মার্কিন হুঁশিয়ারির পর পাকিস্তানের পাশে চীন ভারতের ফের ট্রেন লাইনচ্যুত : আহত ৫০

৩৫তম বিসিএসে নন-ক্যাডারে আরো ১৩৮ জন নিয়োগ

মুক্তিনিউজ24.কম ডেস্ক:  ৩৫তম বিসিএসে উত্তীর্ণ আরো ১৩৮ জনকে প্রথম শ্রেণির নন-ক্যাডার পদে নিয়োগ দিয়েছে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)। লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েও যারা ক্যাডার পায়নি, তাদের মধ্যে থেকে নন-ক্যাডার নিয়োগ (বিশেষ) বিধিমালা অনুযায়ী নিয়োগের সুপারিশ করা হয়েছে। আজ রবিবার এ প্রার্থীদের নিয়োগের সুপারিশ করে সংবাদ বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)।

মেধাক্রম ও বিদ্যমান কোটা পদ্ধতির ভিত্তিতে এদের নিয়োগের সুপারিশ করা হয়েছে জানিয়ে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ৩৫তম বিসিএসে উত্তীর্ণদের মধ্যে থেকে এর আগে দুই দফায় ৫৫৫ জনকে প্রথম শ্রেণির নন-ক্যাডার পদে নিয়োগের সুপারিশ করে কমিশন। তথ্য বিভ্রাটের কারণে একজনের ফল স্থগিত রয়েছে।

প্রথম শ্রেণির নন-ক্যাডার পদে সুপারিশ দেওয়া শেষ হলে দ্বিতীয় শ্রেণির নন-ক্যাডার পদে নিয়োগের সুপারিশ করবে পিএসসি। ৩৫তম বিসিএসের লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় ৫ হাজার ৫১৭ জন যোগ্য বিবেচিত হলেও তাদের মধ্যে বিভিন্ন ক্যাডারে ২ হাজার ১৫৮ জনকে নিয়োগের সুপারিশ করে পিএসসি। উত্তীর্ণ হয়েও যারা ক্যাডার পাননি, তাদের মধ্যে যারা প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির নন-ক্যাডার পদে যোগ দিতে আগ্রহী, তাদের কাছে আবেদন চায় কমিশন। তাতে দুই হাজার ৬০০ জন আবেদন করেন।

এর আগে গত ২৮তম বিসিএস থেকে এভাবে প্রথম শ্রেণির নন-ক্যাডার পদে নিয়োগ দিয়ে আসছিল সরকার। এক বিসিএসের চূড়ান্ত ফল প্রকাশের পর আরেকটি বিসিএসে উত্তীর্ণদের নিয়োগের আগ পর্যন্ত আগের বিসিএসে উত্তীর্ণদের মধ্য থেকে প্রথম শ্রেণির নন-ক্যাডার পদে নিয়োগ দেয়া হয়ে থাকে। গত ১৭ এপ্রিল ৩৫তম বিসিএসের চূড়ান্ত পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের মধ্য থেকে নন-ক্যাডার প্রথম শ্রেণির পদে ৩৯৫ ও ২৫ মে ১৬০ জনকে বিভিন্ন অধিদপ্তর ও সংস্থায় নিয়োগের সুপারিশ করা হয়।

গত বছরের ১৭ সেপ্টেম্বর ২ হাজার ১৫৮ জনকে বিভিন্ন ক্যাডারে নিয়োগের জন্য সুপারিশ করে ৩৫তম বিসিএসের চূড়ান্ত ফল প্রকাশ করে পিএসসি।

পিএসসি থেকে জানা গেছে, ৩ হাজার ৩৫৯ জনকে ক্যাডার পদে সুপারিশ করতে পারেনি কমিশন। তাদের মধ্য থেকে প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণিতে সুপারিশের জন্য অনলাইনে দরখাস্ত আহ্বান করা হয়েছিল। প্রায় ২ হাজার ৬০০ জন আবেদন করেন। এখন প্রথম শ্রেণির পদে সুপারিশ করা হচ্ছে। এরপর দ্বিতীয় শ্রেণির পদে নিয়োগের জন্য সুপারিশ করা হবে।

তথ্য বিভ্রাটের কারণে একজনের ফল স্থগিত রাখা হয়েছে বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

বিস্তারিত তালিকা দেখতে এখানে ক্লিক করুন।

আপনার মতামত লিখুন

শিক্ষা বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ