শুক্রবার,২০শে অক্টোবর, ২০১৭ ইং,৫ই কার্তিক, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ১০:২৩

নারায়ণগঞ্জে জাহাজ কারখানায় সিলিন্ডার বিস্ফোরণ: দগ্ধ ৪ শ্রমিকলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে আ.ফ.ম রুহুল হক এমপি বেতনে বিশ্বের চতুর্থ হাথুরুসিংহে মিয়ানমারে পুলিশের সাথে সংঘর্ষ: নিহত ৫ শতাধিক হলে ‘দুলাভাই জিন্দাবাদ’ চট্টগ্রামে বাস-কভার্ড ভ্যান সংঘর্ষে নিহত ২ বড়াইগ্রাম ট্রাজেডির আজ তৃতীয় বর্ষপূর্তি হতাহতের পরিবারে আহাজারি থামেনি

৩২ ঘন্টা বন্ধের পর পার্বতীপুরের মধ্যপাড়া খনিতে উন্নয়ন ও উৎপাদন কার্যক্রম শুরু

সোহেল সানী : ৩২ ঘন্টা বন্ধের পর পুনরায় দিনাজপুরের পার্বতীপুর মধ্যপাড়া কঠিন শিলা খনিতে পাথর উত্তোলন শুরু হয়েছে। আজ রবিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) দ্বিতীয় শিফট থেকে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান জিটিসি পাথর খনিতে উন্নয়ন ও উৎপাদন কার্যক্রম শুরু করেছে। গত ২৩শে সেপ্টেম্বর সকাল থেকে পাথর উৎপাদন বন্ধ করে দেয় খনির উৎপাদন ও উন্নয়ন কাজে নিয়োজিত ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান জিটিসি।
খনিতে অবস্থিত বেলারুশিয়ান ঠিকাদারী প্রতিষ্টানের প্রায় ৭২জন খনি প্রকৌশলী, ৫০জন স্থানীয় প্রকৌশলী ও ইন্টারপ্রিটার, ১শ’ ৫০জন স্থানীয় কর্মকর্তা কর্মচারী এবং প্রায় সাড়ে ৫শ’ খনি শ্রমিকসহ সর্বমোট প্রায় সাড়ে ৮শ’ জনবলের মাধ্যমে ইতোমধ্যে নির্মাণকৃত ৩টি নতুন স্টোপ ছাড়াও আরো ২টি নতুন স্টোপের নির্মাণ কাজ অতি দ্রুততার সাথে এগিয়ে যাচ্ছে। দিনে ও রাতে ৩ শিফটে গড়ে প্রায় প্রতিদিন ২ থেকে ৩ হাজার মেট্রিক টন পাথর উত্তোলন করা হচ্ছে।

 

জিটিসি এবার ১৭১.৮৬ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের বিনিময়ে ৬ বছরে ৯২ লাখ (৯.২ মিলিয়ন টন) টন পাথর উত্তোলন করবে বলে জানা যায়। জিটিসি ২০১৪ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি দায়িত্ব নেয় এবং ২৪শে ফেব্রুয়ারি পাথর উৎপাদন শুরু করে। উৎপাদন শুরুর ৬ই মাসের মধ্যে খনিতে তিন শিফট চালু করে প্রতিদিন প্রায় সাড়ে ৪ থেকে ৫ হাজার টন পাথর উত্তোলন করা হচ্ছিল। যা মধ্যপাড়া খনির জন্য মাইলফলক।

এব্যাপারে পাথর খনির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) প্রকৌশলী মাহমুদ খান পাথর উত্তোলনের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, খনির উৎপাদন ও উন্নয়ন কার্যক্রম দ্বিতীয় শিফট থেকে শুরু হয়েছে।

উল্লেখ্য, মধ্যপাড়া গ্রানাইট মাইনিং কোম্পানী লিমিটেড (এমজিএমসিএল) এর রক্ষাবেক্ষন ,পরিচালনা ,উৎপাদন ও উন্নয়ন কাজে নিয়োজিত ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান জার্মানীয়া-ট্রেষ্ট কনসোর্টিয়াম (জিটিসি) গত শুক্রবার (২২সেপ্টেম্বর) এক বিজ্ঞপ্তি খনির প্রধান গেটে ঝুলিয়ে দিয়েছে। সেখানে উল্লেখ করা হয়েছে, এমজিএমসিএল এর মহা-ব্যবস্থাপক (অপারেশন) মীর মোঃ আব্দুল হান্নান খনির কাজে বিভিন্ন কৌশলে বাঁধা প্রদান করে ফলে গত ২০১৫-২০১৬ ইং-তে খনির কাজ বন্ধ হয়ে যায়। বর্তমানেও তিনি খনি সংশ্লিষ্ট অপারেশনাল কাজে বাধা প্রদান করে চলেছেন। যা এমজিএমসিএল ও পেট্রোবাংলার উর্দ্বতন কর্তৃপকে বহুবার অবগত করা হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে জিটিসি এর পে খনি সংশ্লিষ্ট অপারেশনাল কাজ অব্যাহত রাখা সম্ভব হচ্ছে না। একইসাথে ওই বিজ্ঞপ্ততে জিটিসি আরো উল্লেখ করে যে, মীর মোঃ আব্দুল হান্নানকে মধ্যপাড়া খনি সংশ্লিষ্ট কার্যক্রম হতে অপসারন করা না হলে, শনিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) হতে জিটিসি সকল প্রকার খনির কাজ হতে বিরত থাকবে। তবে খনির জরুরী রণাবেণের জন্য ১৮জন শ্রমিককে জিটিসি কর্তৃক ডিউটি রোষ্টার অনুযায়ী কাজ করতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন

রংপুর,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ