সোমবার,১৮ই জুন, ২০১৮ ইং,৪ঠা আষাঢ়, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: সন্ধ্যা ৭:৪১
ঠাকুরগাঁওয়ে বাস-ট্রাক সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ১৬ আজও ঢাকা ছাড়ছে মানুষ ঢাকায় ফিরছেন কর্মজীবীরা চতুর্দশ শিক্ষক নিবন্ধনের মৌখিক পরীক্ষা শুরু ২৪ জুন রাজধানীর বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে নানা বয়সী মানুষের ঢল আজও কমলাপুরে ঘরমুখো যাত্রীদের ভিড় সরকারি অফিস খুলছে আগামীকাল

সূর্যের বুকে বিশাল বড় ফাটল!

m5 copyমুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক:     সূর্যের বুকে বিশাল এক ফাটলের দেখতে পেয়েছেন নাসার বিজ্ঞানীরা। তাদের দাবি এই ফাটলটি আরো কয়েক মিলিয়ন মাইল বড় হতে পারে ভবিষ্যতে। যদিও ফাটলগুলো দেখতে খুবই ভয়াবহ তবু তাকে নিয়ে এতটা ভয় পাওয়ার কিছু নেই বলেও জানিয়েছেন তারা। অসুবিধা বলতে যা হবে সেটা হলো, এখান থেকে নির্গত সৌরবাতাস স্যাটেলাইট বা রেডিও কমিউনিকেশনে একটু সমস্যা তৈরি করবে, এই যা।
২০১০ সাল থেকে সূর্যের উপর নজর রাখছে নাসার সোলার ডাইনামিক অবজারভেটরি। তারাই এই ফাটলগুলো চিহ্নিত করেছে। সূর্যের উত্তর গোলার্ধে এই ফাটলগুলোর দেখা পায় তাদের ঘূর্ণায়নরত স্যাটেলাইটটি।
নক্ষত্রটির চৌম্বকক্ষেত্রে এই বিশাল গর্তের দেখা পায় নাসার স্যাটেলাইট। এই ফাটলের মধ্যে দিয়ে সূর্যপৃষ্ঠের ৫,৫০০ সেন্টিগ্রেড তাপমাত্রার কিছুটা তাপ সেই চৌম্বকক্ষেত্র মাড়িয়ে মহাকাশে ছড়িয়ে পড়বে।
সাধারণত এই ধরনের করোনাল হোলগুলো নক্ষত্রের গায়ে খুবই সাধারণ বিষয়। কিন্তু এই গর্তটি অন্যগুলোর চেয়ে খুবই বড় এবং সেটা সূর্যপৃষ্ঠে আরো বড় আকার ধারণ করতে পারে। কম তাপমাত্রা, শক্তি ও গ্যাস থাকে যেসব করোনাল হোলে, সেসব খানিকটা অন্ধকারাচ্ছন্নও দেখায়।
সূর্যের চারপাশে প্লাজমার যে বলয় থাকে সেটা হলো করোনা। গ্যাসের ঘনত্বের কমবেশির কারণে করোনো বা বলয়টাকে কোথাও বেশি কালো আবার কোথাও উজ্জ্বল দেখা যায়। যখন খুব বেশি অন্ধকার দেখায় (সেখানে গ্যাসের ঘনত্ব কম থাকে, শক্তিও কম থাকে তাই) তখন ওই অবস্থাকে বলা হয় করোনাল হোল। সেটাই অনেকটা ফাটলের মতো দেখা যায়।এবিনিউজ

আপনার মতামত লিখুন

তথ্য-প্রযুক্তি বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ