বৃহস্পতিবার,২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ইং,৯ই ফাল্গুন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ৪:৩২
বৌ সাজানো প্রতিযোগিতা শুরু করলেন কেকা ফেরদৌসী ১৮ নম্বরে শাকিব কলকাতার সেরাদের তালিকায় পলাশবাড়ী স্বেচ্ছায় রক্তদান সংগঠনের প্রথম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত শৈলকুপায় খাবার হোটেলসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে ভ্রাম্যমাণ আদালতের জরিমানা হাতীবান্ধায় স্টুডেন্ট কাউন্সিল অনুষ্ঠিত ৩১ মার্চ চতুর্থ ধাপের উপজেলা নির্বাচন হবে : ইসি সচিব ডোমার ভিত্তি বীজ আলু উৎপাদন খামারে বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা।

সুফল পেতে পারেন প্রবাসীরা, আমিরাতের দীর্ঘ মেয়াদি ভিসা চালু,

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: সংযুক্ত আরব আমিরাত সরকার বিনিয়োগকারী ও ব্যবসায়ী, মেধাবী ছাত্র-ছাত্রী, উচ্চতর পেশাজীবী, বিজ্ঞানী ও গবেষকদের জন্য দীর্ঘ মেয়াদি (৫ ও ১০ বছরের) ভিসা চালু করেছে। এ ভিসাগুলো দেশটির কেন্দ্রীয় নাগরিকত্ব ও পরিচয়পত্র বিষয়ক অধিদপ্তর সরকারিভাবে কার্যকর করা শুরু করেছে।

সংযুক্ত আরব আমিরাত সরকার গেল বছরের মাঝামাঝিতে দেশটিতে অবস্থানরত বিভিন্ন দেশের প্রবাসী যেমন ইনভেস্টর, উচ্চতর পেশার লোকজন ও দেশটিতে অধ্যয়নরত বিভিন্ন দেশের মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের দীর্ঘ মেয়াদি ভিসা দেয়ার পরিকল্পনা গ্রহণ করে। এ দীর্ঘ মেয়াদি ভিসার আওতায় এ বছরের শুরুতেই নানা দেশের বিনিয়োগকারীসহ উচ্চতর পেশার প্রবাসী ও ছাত্র-ছাত্রীদের দশ ও পাঁচ বছরের ভিসা দেয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে নানা দেশের স্বল্প সংখ্যক প্রবাসীরা এ ভিসা গ্রহণ করেছেন। আমিরাতে অবস্থানরত বাংলাদেশের প্রবাসীরাও এ সুযোগ নিতে পারেন।

অর্থনৈতিক উন্নয়নের পাশাপাশি মানবসম্পদ উন্নয়নে সংযুক্ত আরব আমিরাত এগিয়ে যাচ্ছে। দেশটির লক্ষ লক্ষ প্রবাসীর মাঝে ব্যবসা-বাণিজ্যে, উচ্চতর পেশায় ও মেধাবী ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে আমাদের দেশের অনেক প্রবাসী আছেন। যারা এ দীর্ঘ মেয়াদি ভিসা তথা পাঁচ ও দশ বছরের রেসিডেন্সি ভিসা পাবার যোগ্যতা অর্জন করবেন বা যাদের এ ভিসা পাবার যোগ্যতা আছে তারা যেন আমিরাত ঘোষিত এ সুযোগ কাজে লাগিয়ে দেশটিতে অবস্থান করেন।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালে মন্ত্রী পরিষদ রেজ্যুলেশন নং ৫৬-এর সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এটি বাস্তবায়িত হচ্ছে। যেসব ব্যবসায়ী, বিনিয়োগকারীর একশ ভাগ মালিকানায় কমপক্ষে ১০ মিলিয়ন দিরহাম বিনিয়োগ রয়েছে তারাই এই ভিসা পাবেন। এছাড়া মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের ক্ষেত্রে স্কুল ও হাই স্কুল লেভেলের পরীক্ষায় ৯৫ ভাগ গ্রেড থাকতে হবে, অনার্সের ক্ষেত্রে থাকতে হবে ৩.৭৫-এর সিজিএ। এ ভিসার জন্য ব্যবসায়ী, ডাক্তার, গবেষক বিজ্ঞানীদের ক্ষেত্রেও অনুরূপ কিছু শর্ত রয়েছে। বিভিন্ন শর্তে ভিসা পাবেন উল্লেখিত ব্যক্তির পরিবারও।

আবুধাবি বঙ্গবন্ধু পরিষদ সভাপতি আলহাজ্ব ইফতেখার হোসেন বাবুল, চাকুরীজীবী জাফর উদ্দিন ভুইয়া, ব্যবসায়ী ফজলে করিম চৌধুরী, বিনিয়োগকারী ও ব্যবসায়ী আবদুল আজিজসহ আমিরাতে অবস্থানরত বিভিন্ন পেশার প্রবাসীরা আমিরাত সরকারের এ পদক্ষেপকে স্বাগত জানান।

ইনভেস্টর বা বিনিয়োগকারী ছাড়াও আমিরাতে অবস্থানরত ডাক্তার, প্রকৌশলী, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরাও সুযোগটি পেতে পারেন। যারা এসব ক্যাটাগরিতে যোগ্যতা অর্জন করবেন তারা যেন সুযোগটি গ্রহণ করেন, সে আহ্বানই জানাচ্ছেন প্রবাসীরা। সেই সাথে আমিরাতে বসবাসরত বাংলাদেশি প্রবাসীরা দেশটিতে বন্ধ থাকা দেশীয় শ্রমিকদের ভিসা চালু করার জন্য দু দেশের কুটনৈতিক তৎপরতা বৃদ্ধি করার কথাও বলেন। সূত্র: কালের কন্ঠ

আপনার মতামত লিখুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ