মঙ্গলবার,২২শে জানুয়ারি, ২০১৯ ইং,৯ই মাঘ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: সকাল ১০:৩০
লালপুরে পৌর কাউন্সিলর জামিরুলের দাফন সম্পন্ন, শোকাহত এলাকা ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচন কোনো নির্বাচন হয়নি – লালমনিরহাটে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল জেলা হাসপাতালের ৪০ শতাংশ চিকিৎসকই অনুপস্থিত : দুদক ৫০ হাজার পুলিশ নিয়োগের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর বিআরটিএ’র স্থগিতকৃত নিয়োগ পরীক্ষার নতুন সময়সূচি মার্কেটিং এক্সিকিউটিভ নিয়োগ দেবে এসিআই কল্লোল গ্রুপে চাকরির সুযোগ

সিন্ডিকেট সভা নিয়ে জাবিতে শিক্ষকদের দুপক্ষে ধাক্কাধাক্কি

2 months ago , বিভাগ : শিক্ষা,

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক:  সিন্ডিকেট বৈঠক নিয়ে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের আওয়ামীপন্থী শিক্ষকদের দুপক্ষে উত্তপ্ত বাক্যবিনিময় ও ধস্তাধস্তির ঘটনা ঘটেছে। গতকাল বুধবার বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনে সিন্ডিকেট কক্ষের প্রবেশমুখে উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলামপন্থী ও সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. শরীফ এনামুল কবিরপন্থী শিক্ষকদের মধ্যে এই অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেছে।

জানা গেছে, কয়েকটি বিভাগে শিক্ষক নিয়োগের বিষয় চূড়ান্ত হওয়ার এজেন্ডা ছিল দীর্ঘ এক বছরেরও বেশি সময় পর অনুষ্ঠিত হওয়া গতকালের ওই সভায়। এদিকে মেয়াদোত্তীর্ণ সিন্ডিকেট ও ডিন নির্বাচন না দিয়ে কোনো নিয়োগ চূড়ান্ত না করার দাবি জানিয়ে আসছেন আন্দোলনকারী শিক্ষকরা। এই দাবি নিয়ে উপাচার্যবিরোধী আওয়ামীপন্থী শিক্ষকদের একাংশ গতকাল বিকেলে সিন্ডিকেট কক্ষের সামনে যান উপাচার্যের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে। এ সময় উপাচার্যপন্থী শিক্ষকরা সভাকক্ষের সামনে অবস্থান নেন। বিকেল সোয়া ৪টায় কেন্দ্রীয় কৃষক লীগের সভাপতি ও বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সদস্য মোতাহার হোসেন পাটওয়ারী সভায় যোগ দিতে গেলে তাঁর পথরোধ করেন উপাচার্যবিরোধীরা। এ সময় সিন্ডিকেট সভার কোরাম পূর্ণ করতে মোতাহার হোসেনকে সভাস্থলে নিতে চান উপাচার্যপন্থীরা। এ নিয়ে উভয় পক্ষের শিক্ষকরা ধাক্কাধাক্কিতে জড়িয়ে পড়েন। একপর্যায়ে সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. শরীফ এনামুল কবিরপন্থী চারজন সিন্ডিকেট সদস্য সভাকক্ষ ত্যাগ করে সিন্ডিকেট বৈঠকের প্রতি অনাস্থা জানান।

ড. শরীফপন্থী শিক্ষকরা পরে সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘সিন্ডিকেট সভায় এক বছর আগের সার্কুলারের নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে, যা নিয়মবহির্ভূত। আমরা দাবি জানিয়েছি মেয়াদোত্তীর্ণ সিন্ডিকেট ও ডিন নির্বাচনের আগে কোনো নিয়োগ না দিতে। কিন্তু আমাদের কথা শোনা হয়নি। তাই আমরা এই সভা বর্জন করেছি।’

এ বিষয়ে বক্তব্য জানতে উপাচার্যের সঙ্গে একাধিকবার ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

এদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রগতিশীল ছাত্রজোট বিভাগ উন্নয়ন ফি বাতিলের দাবিতে গতকাল সিন্ডিকেট সভাস্থলের সামনে অবস্থান করে বিক্ষোভ মিছিল করে। এ ছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের বিএনপিপন্থী শিক্ষকরা অধ্যাপক ফজলুল করিম পাটোয়ারীকে পরিচালক পদে নিয়োগ দিতে উপাচার্যের কাছে দাবি জানান। এ ছাড়া সিন্ডিকেট সভাকে কেন্দ্র করে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ক্যাম্পাসে শো-ডাউন করেছে।সূত্র: কালের কন্ঠ

আপনার মতামত লিখুন

শিক্ষা বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ