বুধবার-২৪শে এপ্রিল, ২০১৯ ইং-১১ই বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: দুপুর ২:২৬
চন্দনারানীর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন পূঁজা উৎযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক দিলিপ চন্দ্র সাহা গাইবান্ধায় মন্দির ভিত্তিক প্রাক-প্রাথমিকের শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ গাইবান্ধায় অটোবাইকের ধাক্কায় আহত যুবকের মৃত্যু কামারপাড়া ইউনিয়নের নুরপুর গ্রামে বসতবাড়ি ও ফসলি জমি ঘেঁষে তিন ফসলি জমিতে ইটভাটা স্থাপন গ্রামীণ জনপদে সুইমিং পুল, রিসোর্ট- বাঘ, হরিন, হাতি, পাখির স্ট্যাচুসহ বিভিন্ন রাইড ও খেলনা বিনোদন প্রেমীদের জন্য ফারিহা গার্ডেন মনির হোসেন.বরিশাল ॥ দক্ষিণাঞ্চলে সড়ক পথে প্রথম সম্মুখ যুদ্ধে শহীদ হন চার মুক্তিযোদ্ধা বরিশালে বোরো ধানের বাম্পার ফলনেও হাসি নেই কৃষকের

সালমান খানের বিরুদ্ধে শিবলিঙ্গ অবমাননার অভিযোগ

3 weeks ago , বিভাগ : বিনোদন,

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: দাবাং-থ্রির শুটিং শুরু করেছেন সালমান খান। তবে সে শুটিংয়ের একটি ছবি ঘিরেই তৈরি হয়েছে তীব্র বিতর্ক। অভিযোগ ওঠার পর অবশ্য এর জবাবও দিয়েছেন সালমান খান।

ভারতের মধ্যপ্রদেশের ধর্মীয় শহর মহেশ্বরে শুটিং করছেন সালমান। ছবির শুটিং সেট তৈরি করা হয়েছে নর্মদা নদীর পাড়ে। তাতে দেখা যাচ্ছে নর্মদার পাড়ে থাকা শিবলিঙ্গের ওপর একটি কাঠের তক্তা পেতে হাঁটাচলা করছেন সালমান ও তাঁর সেটের অন্যান্য কর্মীরা। অভিযোগ উঠেছে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের পবিত্র শিবলিঙ্গ ঢাকা রয়েছে ওই তক্তার নিচে।

কেউ কেউ অভিযোগ করেছেন, সালমান শিবলিঙ্গ ঢাকা ওই তক্তার ওপর উঠে নেচেছেন, যা অন্যায়। আর এই ছবি প্রকাশ্যে আসার পর অভিযোগ ওঠে সালমান ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত করেছেন।

ভারতের মধ্যপ্রদেশের শাসক দল কংগ্রেস, আর বিরোধী দল বিজেপি। এ বিষয়ে ভোপালের বিজেপি নেতা রামেশ্বর শর্মার অভিযোগ, ‘কমলনাথের সময়কালে এই রাজ্যে হিন্দুদের অবমাননা হচ্ছে। শিবলিঙ্গের অপমানের জন্য সালমানের বিরুদ্ধে এফআইআর করা উচিত।’

অন্যদিকে এ বিষয়ে কংগ্রেসের পাল্টা অভিযোগ, ‘বিজেপি ইচ্ছাকৃতভাবে এ বিষয়টি নিয়ে রাজনীতি করার চেষ্টা করছে। এটা ওদের নিম্ন মানসিকতার পরিচয়। যে কারণে গত ১৫ বছর এই রাজ্যে ক্ষমতায় থেকেও বিজেপি কোনো উন্নতিই করতে পারেনি।’

এদিকে বিষয়টি নিয়ে বিতর্ক তৈরি হওয়ার ঠিক পরপরই ওই শিবলিঙ্গের ওপর শুটিংয়ের জন্য লাগানো তক্তা সরিয়ে দেওয়া হয়।

পুরো ঘটনার বিষয়ে অবশেষে সালমান খান নিজেই মুখ খুলেছেন। তিনি বলেন, ‘আমি সবথেকে বড় শিবভক্ত। আপনারা যদি এখানে শুটিং করতে না দেন, তাহলে প্যাকআপ করে চলে যাব। মুখ্যমন্ত্রী কমলনাথের আগ্রহতেই আমি এখানে শুটিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম। আমার এক দাদা এখানকার পুলিশ কর্মকর্তা ছিলেন। আমি এখানে আমার বাড়ি ভেবেই এসেছি। আমি শুটিংয়ের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় সাধারণত পোস্ট করি না, তবে এক্ষেত্রে করছি কারণ এর নামের সঙ্গে মহেশ্বর শব্দটি আছে।’সূত্র: কালের কন্ঠ

আপনার মতামত লিখুন

বিনোদন বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ