শুক্রবার,২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ইং,১০ই ফাল্গুন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ৯:৫৯
চকবাজারে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত ভবনগুলো ‘ব্যবহার অনুপযোগী’ দগ্ধদের চিকিৎসার সব খরচ বহন করবে সরকার: স্বাস্থ্যমন্ত্রী নিহতদের স্মরণে শুক্রবার মসজিদে বিশেষ মোনাজাত জলঢাকায় ভাষা শহীদ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন” ছাতকের রাউলী স্কুলে মাতৃভাষা দিবস পালিত জলঢাকায় ভাষা শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানাতে সর্বস্তরের মানুষ ঢল দিনাজপুরে অবসর প্রাপ্ত সরকারি কর্মচারী কল্যাণ সমিতি’র শহীদের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলী

সাড়ে ৭৭ কোটি ই-মেইল ও ২ কোটিরও বেশি পাসওয়ার্ড ফাঁস!

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: আপনার ই-মেইল আর খুব গোপন পাসওয়ার্ড হয়তো ইতিমধ্যেই ফাঁস হয়ে গেছে বহু কোটি হ্যাকার, স্প্যামারের কাছে। বিশ্বের যে কোনও প্রান্তে। আপনার অজান্তে। হয়তো আলোর চেয়েও বেশি গতিবেগে।

সম্প্রতি একটি রিপোর্ট জানাচ্ছে, অন্তত ২ কোটি ১০ লক্ষ পাসওয়ার্ড আর ৭৭ কোটি ২৯ লক্ষ ৪ হাজার ৯৯১টি ই-মেইল অ্যাড্রেস ফাঁস হয়ে গেছে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের বহু ডেটাবেস থেকে। তার ফলে, কম করে ২৭০ কোটি গোপনীয় রেকর্ড ইতিমধ্যেই পৌঁছে গেছে হ্যাকার, স্প্যামারদের হাতে হাতে।
ডেটাবেসগুলি ওই সব ই-মেইল অ্যাড্রেস আর পাসওয়ার্ড আবর্জনার মতো ফেলে দিয়েছিল তথ্যপ্রযুক্তির একটি ‘ডাম্পিং গ্রাউন্ডে’। যার নাম ‘কালেকশন #ওয়ান’। যদি তা সত্যি হয়ে থাকে, তা হলে ফেসবুক কাণ্ডের চেয়েও বড় এই তথ্য-ফাঁস কেলেঙ্কারি, বলছেন তথ্যপ্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা।

এই ঘটনাটি প্রথম নজরে আসে তথ্য (ডেটা) সংক্রান্ত গবেষণায় ডুবে থাকা ট্রয় হান্টের। যিনি ‘হ্যাভ আই বিন পন্‌ড’ নামে একটি ওয়েবসাইট চালান। এই ওয়েবসাইটে যে কোনো ই-মেইল অ্যাড্রেস আর পাসওয়ার্ড পাঠানো হলে, তারা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে বলে দেয়, কোনো সময় কেউ সেই গোপন পাসওয়ার্ড জেনে ফেলে তা দিয়ে সেই ই-মেল অ্যাড্রেস খুলেছিল কি না। কত বার খুলেছিল। কোথা কোথা থেকে হ্যাকার, স্প্যামাররা জেনে ফেলা গোপন পাসওয়ার্ড দিয়ে সেই ই-মে-ল অ্যাড্রেসে ঢুকেছিল। কত তথ্যাদি তারা চুরি করেছিল।

সেই ট্রয় হান্টই তার ব্লগে লিখেছেন, ‘‘২ কোটি ১০ লক্ষ পাসওয়ার্ড আর ৭৭ কোটি ২৯ লক্ষ ৪ হাজার ৯৯১টি ই-মেল অ্যাড্রেস ফাঁস হয়ে গেছে। তার ফলে, কম করে ২৭০ কোটি গোপনীয় রেকর্ড হ্যাকার, স্প্যামারদের হাতে পৌঁছে গেছে।’’

‘কালেকশন #ওয়ান’-এর ডেটা স্টোরেজের ক্ষমতা ৮৭ গিগাবাইট। তার মধ্যে রয়েছে ১২ হাজার বিভিন্ন ধরনের ফাইল। সেই সব ডেটা ফাঁস হয়ে গিয়েছিল একটি ক্লাউড-বেসড শেয়ারিং ওয়েবসাইট ‘মেগা’র কাছে। হান্ট জানিয়েছেন, এই ‘মেগা’ আদতে হ্যাকার, স্প্যামারদের একটি সংগঠিত ফোরাম।সূত্র: বাংলাদেশপ্রতিদিন

আপনার মতামত লিখুন

তথ্য-প্রযুক্তি বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ