শুক্রবার-১৯শে এপ্রিল, ২০১৯ ইং-৬ই বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ১২:৩১
কাল শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা ঢাকায় পৌঁছেছেন ফেরদৌস রমজানে পণ্যের দাম বাড়বে না: বাণিজ্যমন্ত্রী পার্বতীপুরে স্কুল ফিডিং কার্যক্রম পরির্শনে মন্ত্রী পরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব নারীর প্রতি সহিংসতা রোধে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অভিযোগ বক্স রাখার সুপারিশ তাইওয়ানে শক্তিশালী ভূমিকম্প নুসরাত হত্যাকারীদের শাস্তি দাবিতে গাইবান্ধায় মৌন প্রতিবাদ

লালমনিরহাটে একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে চাঁদা দাবী, শিক্ষক-কর্মচারী আতংকে

লাভলু শেখ, লালমনিরহাট, ২৩ মার্চ ॥
ডাকাত ছেলের বিভিন্ন স্টাইলে চাঁদাবাজীর ঘটনা ফাঁস। লালমনিরহাটে একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভিন্ন স্টাইল চাঁদাবাজ সিন্ডিকেটের সদস্য রবিউল ইসলাম নিঝুম দিনে দিনে বেপরোয়া। প্রতারণা মামলার আসামী ভদ্রতার বেশ নিয়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আতংক সৃষ্টি করে চাঁদাবাজী করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।
অভিযোগে জানা গেছে, লালমনিরহাট সদর উপজেলার হারাটি ইউনিয়নের (ফড়িংএরদিঘী) ঢাকনাই গ্রামের বহুল আলোচিত মৃত: কোরবান ডাকাতের ছেলে রবিউল ইসলাম নিঝুম (২৫)। পড়ালেখা শিখেও ভাগ্য মিলেনি সরকারি চাকরি। অভাব অনটনের সংসার। শুরু করেন শহরের বিভিন্ন স্থানে প্রাইভেট পড়ানো। তারপাশাপাশি সদরের মহেন্দ্রনগর এলাকার “সিরাজুল হক খন্দকার প্রি-ক্যাডেট স্কুলে” চাকরি করা অবস্থায় “সিরাজুল হক খন্দকার” এর নাম ভাঙ্গিয়ে পরিবার পরিকল্পনার কমিউনিটি ক্লিনিকে চাকুরি দেওয়ার নামে ১লক্ষ ৮০হাজার টাকা গ্রহন করে। চাকরি দেওয়ার নামে প্রতারণা করায় ওই শিক্ষাপ্রতিষ্টান থেকে রবিউল ইসলাম নিঝুমকে অব্যাহতি দেন। কিন্তু চাকরির আশায় টাকা প্রদানকারী ভোক্তভোগী চাকরি না পেয়ে আদালতে রবিউল ইসলাম নিঝুমের বিরুদ্ধে একটি প্রতারণার মামলা দায়ের করেন। যা বিজ্ঞ আদালত, লালমনিরহাটে বিচারাধীন রয়েছে।
পরর্বতীতে চলতি বছরের ১০ জানুয়ারি লালমনিরহাট মিশন মোড়, সার্কিট হাউজ সংলগ্ন “শিবরাম আদর্শ পাবলিক স্কুলের” শিক্ষানোবিশ শিক্ষক হিসেবে রবিউল ইসলাম নিঝুম যোগদান করে। যোগদানের পর “শিবরাম আদর্শ পাবলিক স্কুল” এর শিক্ষার্থী সিফাত, ইলিয়াস কাঞ্চন, রিফাত ইসলাম, সুমাইয়া কবির, আশা, ¯িœগ্ধা, উদয়, সিয়াম, সজিব, বিজয়, পরীক্ষিত শর্মাকে পরীক্ষায় খাতায় এ প্লাস নম্বর ও প্রাইভেট পড়ানোর প্রলোভন দিয়ে অর্থগ্রহন করে। যা ছিল শিক্ষার্থীদের হাতে টিফিন খাবার টাকা। বিষয়টি শিক্ষার্থীর অভিভাবক জানতে পেরে পরিচালক ও সভাপতি বরাবর শিক্ষক রবিউল ইসলাম নিঝুম এর বিরুদ্ধে অভিযোগ দাখিল করেন। সভাপতির সিদ্ধান্ত মোতাবেক রবিউল ইসলাম নিঝুমকে কারণ দর্শানোর নোটিশ করা হয়। যার স্মারক নং ২০১৯/০৪, তাং ২৪/০২/১৯। তার অভিযোগে সত্যতা পাওয়ার পর শিক্ষকতা থেকে অব্যাহতি প্রদান করা হলে ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন রবিউল ইসলাম নিঝুম। তারপর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে বিভিন্ন মাধ্যমে নানান ষড়যন্ত্র ও অপপ্রচার শুরু করে। এ ব্যাপারে থানায় পৃথক দু’টি জিডি করা হয়েছে। যার জিডি নং-১৪১, তাং ০৩/০৩/২০১৯ইং ও যার জিডি নং-১০৩৬, তাং ২২/০৩/২০১৯ইং।
স্কুল পরিচালক রাশেদুল ইসলাম রাশেদ বলেন, আমার শিক্ষা প্রতিষ্টান নিয়ে নানা ষড়যন্ত্র অব্যাহত রেখেছে এবং ১লাখ ৪০হাজার টাকা চাদা দাবী করেছে।
এ ব্যাপারে লালমনিরহাট সদর থানার ওসি মাহফুজ আলম বলেন, রবিউল ইসলাম নিঝুমের বিরুদ্ধে থানা জিডি দায়ের হয়েছে। তার পরেও সে ওই প্রতিষ্টানে কোন প্রকার ক্ষতির অপচেষ্ঠায় লিপ্ত হন তখন তার বিরুদ্ধে জিডি মুলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আপনার মতামত লিখুন

রংপুর,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ