বুধবার,২৫শে এপ্রিল, ২০১৮ ইং,১২ই বৈশাখ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: দুপুর ২:৫৪
ইন্দোনেশিয়ায় তেলকূপে অগ্নিকাণ্ড, ১০ জনের মৃত্যু টরেন্টোতে পথচারীদের ওপর গাড়ি তুলে দেয়ার ঘটনায় নিহত ১০ কেসিসি নির্বাচনে মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ কালীগঞ্জে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১, আহত ১৫ নওগাঁয় পিকআপভ্যান ও গাঁজাসহ আটক ৩ ধামরাইয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১, আহত ২০ দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে চট্টগ্রাম বন্দর অবদান রাখছে : প্রধানমন্ত্রী

মেয়ের বাবা সহ ৩ জনের কারাদন্ড

লালপুরে ইউএনও’র হস্তেেপ বাল্য বিয়ে থেকে রক্ষা  পেল ৪র্থ শ্রেণীর ছাত্রী 

download-1মো. আশিকুর রহমান (টুটুল),নাটোর জেলা প্রতিনিধি
নাটোরের লালপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের হস্তেেপ বাল্য বিয়ের হাত থেকে রা পেয়েছে উপজেলার মাঝগ্রাম ধনুরমোড় এবতেদায়ী মাদ্রাসার ৪র্থ শ্রেণির ছাত্রী সুমা খাতুন (১১)। এ ঘটনায় শনিবার মেয়ের বাবা শাহাদত হোসেন, বরের চাচাত দুলাভাই মুক্তা হোসেন (২৫) ও বরযাত্রি আবু তাহের শেখকে (৬৫) ১মাস করে বিনাশ্রম কারাদন্ডাদেশ দিয়েছেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার নজরুল ইসলামের ভ্রম্যমাণ আদালত।
জানা গেছে, শুক্রবার টাঙ্গাইল জেলার ভূঁয়াপুর উপজেলার বামনহাটা গ্রামের হিকেম আলীর ছেলে নূর হোসেন (২০) তার চাচাত দুলাভাই মুক্তার হোসেন সহ ৮/৯ জন বরযাত্রী নিয়ে লালপুর উপজেলার মাঝগ্রাম পশ্চিমপাড়া গ্রামের শাহাদত হোসেনের ৪র্থ শ্রেণি পড়–য়া সুমা খাতুনকে বিয়ের জন্য তার বাড়িতে আসে। প্রতিবেশীরা টের পেয়ে বিষয়টি লালপুর উপজেলা নির্বাহী আফিসার নজরুল ইসলামকে জানান। তিনি স্থানীয় দুয়ারিয়া ইউপি চেয়ারম্যান নরুল হোসেন লাভলুর সহযোগীতায় বরের দুলাভাই মুক্তার হোসেন, বরযাত্রী আবু তাহের শেখ, মেয়ে সুমি খাতুন ও তার বাবা শাহাদত হোসেনকে উপজেলা পরিষদে নিয়ে আসেন। এসময় বর নূর হোসেন সহ আন্যরা পালিয়ে যায়।
সুমি খাতুনকে তার চাচা সাধু শেখ ও স্থানীয় ইউপি সদস্য ইকরামুল ইসলামের জিম্মায় রাখা হয়।

আপনার মতামত লিখুন

ঢাকা,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ