মঙ্গলবার-২৩শে এপ্রিল, ২০১৯ ইং-১০ই বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: বিকাল ৪:১৮
এক্সিকিউটিভ পদে ক্যারিয়ার গড়ুন জায়ান্ট গ্রুপে এক্সিকিউটিভ পদে নিয়োগ দেবে নভোএয়ার সারা দেশে নিয়োগ দেবে প্রাণ গ্রুপ একাডেমিক ভবন হয়নি ৫ বছরেও হাত ছাড়াই হাতের লেখা প্রতিযোগিতায় সেরা! যৌবন ধরে রাখে যেসব খাবার রেকর্ড ভাঙলেন লিভারপুল গোলরক্ষক

র‍্যাব-১৩: অধিনায়কের বিপিএম এবং উপ-অধিনায়কসহ দুই কর্মকর্তার পিপিএম পদক অর্জন

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: জাতীয় পুলিশ সপ্তাহ-২০১৮ উপলক্ষে দেশের উত্তরাঞ্চলে জঙ্গিবাদ দমন, মাদক ও সন্ত্রাস নির্মূল, আইন শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণ ইত্যাদি ক্ষেত্রে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতি স্বরুপ র‍্যাব-১৩ এর অধিনায়ক অতিরিক্ত ডিআইজি জনাব মো. মোজাম্মেল হক বাংলাদেশ পুলিশের সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় পদক ‘বাংলাদেশ পুলিশ মেডেল (বিপিএম)’ অর্জন করেন। ইতোপূর্বে তিনি পুলিশ সুপার পদে বিভিন্ন জেলায় অবদানের স্বীকৃতি স্বরুপ ২০১২ সালে প্রেসিডেন্ট পুলিশ মেডেল (পিপিএম) এবং ২০১৫ সালে বাংলাদেশ পুলিশ মেডেল (বিপিএম) লাভ করেছিলেন। তিনি ১০ এপ্রিল ২০১৮-তে র‍্যাব-১৩, রংপুর এর অধিনায়ক হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহণ করেন। কালেরকন্ঠ

মো. মোজাম্মেল হক পাবনা জেলার ভাঙ্গুড়া থানাধীন কাশিপুর গ্রামে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় হতে ডিভিএম বিষয়ে স্মাতক সম্মান ও স্মানতোকত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন। জনাব মো. মোজাম্মেল হক ১৮তম বিসিএস এর মাধ্যমে ১৯৯৯ সালে ২৫শে জানুয়ারি বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীতে যোগদান করেন। বর্ণাঢ্য চাকরিজীবনে পঞ্চগড় ও রাজশাহী জেলার সার্কেল এএসপি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হিসেবে নাটোর, রাজশাহী, কুমিল্লা এবং ঢাকায় দায়িত্ব পালন করেছেন। পরবর্তিতে জয়পুরহাট, বগুড়া ও নওগাঁ জেলার পুলিশ সুপার হিসেবে সফলতার সাথে দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়া ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার হিসেবে কর্মরত ছিলেন। জাতিসংঘ মিশনের আওতায় তিনি সুদানে দায়িত্ব পালন করেন। চৌকস এই অফিসার পেশাগত বিষয়ে দেশে-বিদেশে বিভিন্ন উচ্চতর প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেন। তিনি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নিকট হতে সাহসিকতা ও দৃষ্টান্তূলক কাজের স্বীকৃতি স্বরুপ বাংলাদেশ পুলিশের সর্বোচ্চ বিপিএম এবং পিপিএম পদকে ভূষিত হন। এছাড়াও তথ্য প্রযুক্তিতে বিশেষ অবদান রাখার জন্য দেশ সেরা পুলিশ সুপার হিসাবে ডিজিটাল অ্যাওয়ার্ড লাভ করেন এবং পেশাগত দক্ষতার জন্য একাধিকবার আইজিপি ব্যাচ লাভ করেন। ব্যক্তি জীবনে তিনি বিবাহিত এবং তিন সন্তানের জনক।

 

পদক নিচ্ছেন ওপরের ছবিতে র‍্যাব-১৩ এর উপ-অধিনায়ক মেজর আরমিন রাব্বী এবং নিচের ছবিতে ক্রাইম প্রিভেনশন কোম্পানি-১, দিনাজপুর এর কোম্পানি কমান্ডার মেজর সোহেল রানা প্রিন্স

অপরদিকে, র‍্যাব-১৩ এর উপ-অধিনায়ক মেজর আরমিন রাব্বী এবং ক্রাইম প্রিভেনশন কোম্পানি-১, দিনাজপুর এর কোম্পানি কমান্ডার মেজর সোহেল রানা প্রিন্স উভয়ই অফিসার প্রেসিডেন্ট পুলিশ মেডেল (পিপিএম) অর্জন করেছেন। এছাড়াও বিভিন্ন ঝুঁকিপূর্ণ অভিযানে সাহসিকতার সাথে দায়িত্ব পালন করে র‍্যাব-১৩ এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মোতাহার হোসেন, এএসপি খন্দকার গোলাম মোর্ত্তূজা, এসআই মো. আসাদুজ্জামান, সৈনিক মো. আ. হালিম এবং সৈনিক মো. পিয়াস শরীফ আইজি ব্যাচ পদক অর্জন করেন।

আপনার মতামত লিখুন

জাতীয়,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ