বৃহস্পতিবার,১৩ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং,২৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: সকাল ১০:০৩
স্বাধীনতার শত্রুদের উচিত জবাব নৌকায় ভোট যতই ষড়যন্ত্র হোক আমি ভয় পাই না: প্রধানমন্ত্রী পলাশবাড়ীতে ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস পালিত নৌকায় ভোট দিয়ে সন্ত্রাসীদের ক্ষমতায় আসার পথ বন্ধ করুন পলাশবাড়ীতে চাল ক্রয়ের উদ্বোধন গোবিন্দগঞ্জে দুই মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার পার্বতীপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত বিজিবি সদস্যের মৃত্যু

রাজীব-মিমের পরিবারকে ৫ লাখ করে টাকা দেওয়ার আদেশ বহাল

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: তাৎক্ষণিক প্রয়োজন মেটাতে রাজধানীর কুর্মিটোলায় বাসচাপায় নিহত দুই শিক্ষার্থীর পরিবারকে পাঁচ লাখ টাকা করে দিতে জাবালে নূর পরিবহন কর্তৃপক্ষকে দেওয়া আদেশ বহাল রয়েছে।

হাইকোর্টের দেওয়া ওই আদেশ স্থগিত চেয়ে জাবালে নূর পরিবহন কর্তৃপক্ষের করা আবেদন আগামী ৪ অক্টোবর আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে শুনানির জন্য পাঠিয়ে দিয়েছেন চেম্বার বিচারপতি। আজ বৃহস্পতিবার চেম্বার বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী এ দিন ধার্য করেন।

এর আগে ৩০ জুলাই এক আদেশে হাইকোর্ট তাৎক্ষণিক প্রয়োজন মেটাতে ওই দুর্ঘটনায় নিহত আবদুল করিম রাজীব ও দিয়া খানম মিমের পরিবারকে এক সপ্তাহের মধ্যে পাঁচ লাখ করে টাকা দিতে ওই পরিবহন কর্তৃপক্ষকে নির্দেশদিয়েছিলেন। এ আদেশ স্থগিত চেয়ে ওই পরিবহন কর্তৃপক্ষ আপিল বিভাগে আবেদন করে, যা আজ চেম্বার বিচারপতির আদালতে শুনানির জন্য ওঠে।

আদালতে জাবালে নূর পরিবহন কর্তৃপক্ষের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী পঙ্কজ কুন্ডু। রিট আবেদনকারী আইনজীবী রুহুল কুদ্দুস নিজে শুনানিতে অংশ নেন।

পরে আইনজীবী রুহুল কুদ্দুস প্রথম আলোকে বলেন, ওই দুই শিক্ষার্থীর পরিবারকে এক সপ্তাহের মধ্যে ৫ লাখ টাকা করে দিতে হাইকোর্ট জাবালে নূর পরিবহন কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছিলেন। এই আদেশ স্থগিত চেয়ে আবেদনটি করা হয়। চেম্বার বিচারপতি হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত করেননি। ফলে দুই পরিবারকে পাঁচ লাখ টাকা করে দিতে হাইকোর্টের দেওয়া আদেশ বহাল থাকছে।

ওই পরিবহন কর্তৃপক্ষের আইনজীবী পঙ্কজ কুন্ডু প্রথম আলোকে বলেন, ৫ লাখ টাকা করে দিতে হাইকোর্টের দেওয়া আদেশ স্থগিত চেয়ে করা আবেদনটি ৪ অক্টোবর আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে শুনানির জন্য পাঠিয়ে দিয়েছেন চেম্বার বিচারপতি।

২৯ জুলাই দুপুরে এই বাসের চাপায় নিহত হয় রাজীব ও মিম। ছবি: প্রথম আলো২৯ জুলাই দুপুরে এই বাসের চাপায় নিহত হয় রাজীব ও মিম। ছবি: প্রথম আলোএর আগে ২৯ জুলাই কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের সামনের বিমানবন্দর সড়কে আবদুল্লাহপুর থেকে মোহাম্মদপুর রুটে চলাচলকারী জাবালে নূর পরিবহন লিমিটেডের একটি বাসের চালক হঠাৎ নিয়ন্ত্রণ হারান। এ সময় সড়কের পাশে দাঁড়িয়ে থাকা শিক্ষার্থীদের ওপর বাসটি উঠে যায়। এতে ঘটনাস্থলে শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র আবদুল করিম রাজীব ও একই কলেজের ছাত্রী দিয়া খানম মিম প্রাণ হারায়। ওই দুর্ঘটনায় ছাত্রছাত্রীর পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দিতে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা চেয়ে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী রুহুল কুদ্দুস পরদিন রিট আবেদন করেন। এর প্রাথমিক শুনানি নিয়ে সেদিন হাইকোর্ট রুলসহ অন্তর্বর্তীকালীন আদেশ দেন। এই মামলায় ১২ আগস্ট হাইকোর্টে শুনানির জন্য দিন রয়েছে।সূত্র: প্রথমআলো

আপনার মতামত লিখুন

ঢাকা,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ