সোমবার,২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং,১৪ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সময়: সকাল ৯:১৩
ফায়ার সার্ভিসে চাকরির সুযোগ গ্রন্থমেলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নতুন বই ‘নির্বাচিত ১০০ ভাষণ’ ২২ জেলায় নতুন জেলা প্রশাসক নিয়োগ এনবিআরের শীর্ষ পর্যায়ে রদবদল দুর্গাপুরে পাদুকা উৎসব পালিত ফুলবাড়ী সীমান্তে ভারতীয় মদ ও ফেন্সিডিলসহ আটক ২ কাউখালীতে ৩৯তম জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহের উদ্বোধন

রাজশাহীতে এক স্কুল ছাত্রকে নির্মমভাবে নির্যাতনের অভিযোগ

rajshahiমুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: মোবাইল চুরির অভিযোগ তুলে রাজশাহীর বাঘায়, ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রকে নির্মমভাবে নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। স্বজনদের অভিযোগ, সুনির্দিষ্ট প্রমাণ ছাড়াই মনিরুলকে খুঁটি’র সঙ্গে ঝুলিয়ে অমানুষিক নির্যাতন করা হয়। সে বর্তমানে বাঘা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এদিকে, এ ঘটনায় তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের পর একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
এলাকাবাসী জানায়, সোমবার সকালে বাঘা উপজেলার নারায়নপুর গ্রামে রাজশাহী পুলিশ লাইনে কর্মরত কনস্টেবল হাফিজুর রহমানের বাড়ি থেকে মোবাইল চুরি হয়। এ ঘটনায় প্রতিবেশী মিঠু’র ছেলে মনিরুল ইসলামকে সন্দেহ করা হয়। স্বজনদের অভিযোগ, দুপুরে তাকে বাড়ি ধরে নিয়ে যায় হাফিজুর ও তার দু’ভাই। এ সময় মনিরুলকে স্থানীয় বাজারে নিয়ে, একটি স-মিলের খুঁটির সাথে উল্টো করে ঝুঁলিয়ে নির্মম নির্যাতন চালায় তারা।
খবর পেয়ে, মনিরুলকে উদ্ধার করে বাঘা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন স্বজনরা। চিকিৎসক জানিয়েছেন, নির্যাতনের কারণে মানসিকভাবেও বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে সে। তিনি বলেন, দুই পায়ে শক্ত করে দড়ি বাধার কারণে দাগ হয়ে গেছে। গোটা শরীরেই আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এছাড়া মানসিক ভাবে ছেলেটি ভেঙ্গে পরেছে বলে জানান তিনি।
এদিকে, নির্যাতনের ঘটনায় তদন্ত শেষে জড়িত সবার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানিয়েছে পুলিশ। বাঘা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বলেন, তিন জনের নাম জানা গেছে, এর মধ্যে এক জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

আপনার মতামত লিখুন

রাজশাহী,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ