রবিবার-২১শে এপ্রিল, ২০১৯ ইং-৮ই বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: সকাল ১০:৪৫
ফেরদৌসের সমালোচনায় যা বললেন মোদি তিন দিনের সরকারি সফরে ব্রুনেইয়ের পথে প্রধানমন্ত্রী প্যারোলের বিষয়ে নমনীয় খালেদা! তিন দিনের সফরে প্রধানমন্ত্রী ব্রুনাই যাচ্ছেন আজ আজ পবিত্র শবেবরাত নারায়ণগঞ্জে বাহারি রঙের ঘুড়ি উৎসব পার্বতীপুর মধ্যপাড়া খনিতে ১৬ দিন ধরে পাথর উত্তোলন বন্ধ

যেসব কারণে শিশুরা মিথ্যা বলতে শেখে

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: মাঝে মাধেই দেখা যায় আপনার আদরের শিশুটি আপনার সঙ্গে মিথ্যা কথা বলছে। অতটুকু শিশু কিনা মিথ্যা কথা বলতে শিখে যাওয়াতে আপনি বিচলিত হয়ে পড়বেন, এটাই স্বাভাবিক। এর ফলে আপনি হতাশও হতে পারেন। হতে পারেন বিরক্তও। তবে মনে রাখুন শিশু বয়সে মিথ্যা কথা বলা ভুল হতে পারে। কিন্তু অস্বাভাবিক কিছু নয়। শিশুদের মিথ্যে কথা বলা বন্ধ করতে আগে জানতে হবে তারা কেন মিথ্যা কথা বলে—

১। ‌নিজেদের পরিচিতি প্রতিষ্ঠা করতে—
মনে রাখবেন বাচ্চারা কিন্তু ভাবুক। তাদের ভাবনার জায়গা থেকেই তারা মিথ্যা কথা বলে। আর সেই মিথ্যা নিয়ে যদি হুলুস্থুলু পড়ে যায়, তবে মিথ্যার প্রাবল্য বাড়ে। তাদেরও পরিচিত গ্রুপ রয়েছে। সেখানে মিথ্যা বলে যদি প্রতিষ্ঠা পাওয়া যায় বা বন্ধুদের চমকে দেওয়া যায়। তবে মিথ্যা বলবেই। সামান্য মিথ্যা বললে দুশ্চিন্তার কিছু নেই। তবে পরিমান বেড়ে গেলে অবশ্যই জানার চেষ্টা করুন, কেন তারা মিথ্যা বলছে। তাদের ‘দূর-ছাই’ করে তারিয়ে দেবেন না।
২। বাবা মার মিথ্যে বলার অভ্যাস—
বাচ্চা বলে কিন্তু তাকে অবহেলা করবেন না। কারণ আপনার অজান্তেই ও কিন্তু আপনাদের নকল করছে। তাই ওদের সামনে মিথ্যা বললে কিন্তু ধরা পড়ে যাবেন। আর ওরাও সেটাকে রপ্ত করবে। তাই বাচ্চার সামনে মিথ্যা বলা বন্ধ করুন।

৩। নজর পেতে—
কেউ যদি বলে এইমাত্র জানালা দিয়ে বাঘ দেখলাম। বুঝতে হবে ওই বাচ্চা মনযোগ আকর্ষণের চেষ্টা করছে। আর তাতে কাজ হলে বারবার মিথ্যা কথা বলবে। তাই বাচ্চাদের কথা মন দিয়ে শুনলে এই সমস্যা কেটে যাবে।

৪। বাড়িতে গায়ে হাত তোলার অভ্যাস থাকলে—
এখনও বাড়ির বাচ্চাদের ওপর হাত তুলে এক প্রকার সুখ পান বড়রা। কারণে অকারণে শাসনের শাসানি নেমে আসে। এটা অস্বাভাবিক নয় যে মারের হাত থেকে বাঁচতে তারা মিথ্যা কথা বলবে। সূত্র: বাংলাদেশপ্রতিদিন

আপনার মতামত লিখুন

লাইফস্টাইল বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ