শুক্রবার,২৩শে জুন, ২০১৭ ইং,৯ই আষাঢ়, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সময়: সকাল ৬:০৩

নাটোরের গুরুদাসপুর পৌরসভার সাড়ে ১৮ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা বাগাতিপাড়ার দরিদ্র মেধাবী সজনীকে ল্যাপটপ দিলেন ইউএনও পাঁচবিবিতে নগত অর্থ বিতরণ সৈয়দপুরে সুবিধা বঞ্চিতদের পাশে খুচরা পয়সা সংগঠন ইটভাটার কালোধোঁয়ায় ফসলের তিপূরণের দাবিতে কৃষকদের মানববন্ধন লালমনিরহাটে হিফজুল কোরআন প্রতিযোগিতায় ১ম স্থান অধিকার বায়তুল মুকাররমে পবিত্র ঈদুল ফিতরের নামাজের সময়সূচি

‘মোবাইল ফোনের কলরেট কমানো যেতে পারে’

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: প্রয়োজনে মোবাইল ফোনের কলরেট কমানো যেতে পারে বলে জানিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম।

আজ মঙ্গলবার জাতীয় সংসদের অধিবেশনে সরকারি দলের সদস্য দিলারা বেগমের এক লিখিত প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন তারানা হালিম। তিনি বলেন, ‘মোবাইল ফোনের কলরেটের সর্বনিম্ন অবস্থানের দিক থেকে বাংলাদেশের অবস্থান দ্বিতীয়। বর্তমানে সর্বনিম্ন ২৫ পয়সা থেকে সর্বোচ্চ দুই টাকা কলরেট নির্ধারণ করা আছে।’

বার্তা সংস্থা বাসস প্রতিমন্ত্রীর বরাতে আরো জানিয়েছে, প্রতিযোগিতামূলক বাজারে মোবাইল ফোন কোম্পানিগুলো নির্ধারিত এই কলরেটের মধ্যেই তাদের ব্যবসা পরিচালনা করে। পার্শ্ববর্তী দেশগুলোর তুলনায় এটি যথেষ্ট কম বলেও উল্লেখ করেন তারানা হালিম।

বর্তমানে দেশে মোবাইল ফোনের গ্রাহক সংখ্যা ১৩ কোটি ৩১ লাখ ১৪ হাজার ২০৬ এবং ইন্টারনেট গ্রাহক সংখ্যা সাত কোটি ৭৭ হাজার ৯৬৯ বলে জানান তারানা।

ন্যাপের সংসদ সদস্য আমিনা আহমেদের আরেক এক প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী বলেন, জনগণের কাছে ইন্টারনেট সেবা পৌঁছে দেওয়ার জন্য দুটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকে ‘নেশনওয়াইড টেলিকমিউনিকেশন ট্রান্সমিশন নেটওয়ার্ক (এনটিটিএন)’ লাইসেন্স দেওয়া হয়েছে। প্রতিষ্ঠান দুটি হচ্ছে ফাইবার অ্যাট হোম লিমিটেড ও সামিট কমিউনিকেশন লিমিটেড।

আপনার মতামত লিখুন

সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ