শনিবার,১৮ই আগস্ট, ২০১৮ ইং,৩রা ভাদ্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: দুপুর ২:৪০
ট্রেনের শিডিউল বিপর্যয়, ভোগান্তিতে ঘরমুখো মানুষ এলএনজির যুগে দেশ, জাতীয় গ্রিডে সরবরাহ শুরু হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু, মিনার দিকে হাজিরা মুক্তি পেল ‘চাঁদ কথা’ চলচ্চিত্রের টাইটেল গান ঈদযাত্রার প্রথমদিনেই দেরিতে ছেড়েছে ট্রেন কোরবানির পশু জবাইয়ের জন্য ১১ সিটিতে ২৯৩৬ স্থান নির্ধারণ বাংলাদেশ নারী ফুটবল দলকে প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন

মেসির বড় ভাইয়ের নৌকায় রক্তাক্ত অস্ত্র!

9 months ago , বিভাগ : খেলাধুলা,

মূক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক:  মাঠে তিনি যতটা ক্ষিপ্র, ব্যক্তিজীবনে ঠিক ততটাই শান্ত। আয়কর জটিলতায় কিছুটা আলোচনায় এলেও লিওনেল মেসির আচরণ নিয়ে প্রশ্ন তুলতে পারবেন না তাঁর শত্রুও। অথচ তাঁর বড় ভাই ম্যাতিয়াস হোরাসিওয়ের কারণে সমালোচনা শুনতে হয় এই আর্জেন্টাইন ফুটবল জাদুকরকেও।

মেসির বড় ভাই মাতিয়াসের বিরুদ্ধে অবৈধ অস্ত্র রাখার অভিযোগ উঠেছে। যে কারণে তিনি পুলিশের নজরদারিতে আছেন।

মাতিয়াসের নিরাপত্তারক্ষীর বরাত দিয়ে ডেইলি মেইল জানায়, নিজ বাড়ির কাছেই একটি ফিশিং ক্লাবে যান মাতিয়াস। সেখানে তিনি একটি দুর্ঘটনায় আহত হন। তাঁর নৌকায় একটি রক্তাক্ত অস্ত্র পাওয়া যায়।

অবশ্য মাতিয়াস হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। অভিযোগ প্রমাণিত হলে শাস্তি হতে পরে এই আর্জেন্টাইন তারকা ফুটবলারের বড় ভাইয়ের।

মাতিয়াসের আইনজীবীর দাবি, যে অস্ত্র পাওয়া গেছে সেটা মাতিয়াসের নয়।

আর্জেন্টিনার বেশ কয়েকটি সংবাদমাধ্যম রক্তের দাগসহ ইঞ্জিনচালিত নৌকার ছবি প্রকাশ করেছে। মাতিয়াসের বাড়ি থেকে ২০ মিনিট গাড়ি চালিয়ে যাওয়া যায় এই ফিশিং ক্লাবে।

এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন মাতিয়াসের পরিবারও। তাঁরা বলছেন, মাতিয়াসের নৌকাটি দুর্ঘটনাকবলিত হয়। এ সময় তাঁর চোয়ালের হাড় ভেঙে গেছে ও মুখের বিভিন্ন স্থানে কেটে গেছে। এখন তিনি একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

অবশ্য এর আগেও মাতিয়াসকে ২০১৫ সালের অক্টোবরে আটক করেছিল আর্জেন্টিনার পুলিশ। তাঁর গাড়ি তল্লাশি করে অস্ত্র পেয়েছিল পুলিশ। ২০০৮ সালেও একবার পুলিশের কাছে গ্রেপ্তার হয়েছিলেন মাতিয়াস।

সূএ: এনটিভিনিউজ

আপনার মতামত লিখুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ