বুধবার,২১শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং,৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: সন্ধ্যা ৬:০৯
বিএনপি থেকে আওয়ামী লীগে আসতে অনেকেই আগ্রহী লালমনিরহাটে ইসলামী আন্দোলনে ৩ প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ লালমনিরহাটে ঈদে মিলাদুন্নবী উপলে র‌্যালী ও দোয়া মাহফিল ১০ বছরের পরিবর্তন অব্যাহত রাখাই আওয়ামী লীগের লক্ষ্য শিখা অনির্বাণে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা পার্বতীপুরে ছাত্রলীগের কর্মসূচি পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) আজ

মেডিকেল কলেজে শিক্ষা কার্যক্রম তদারকির নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক:  দেশের মেডিকেল কলেজগুলোতে শিক্ষা কার্যক্রম ঠিকভাবে চলছে কি না, বিভিন্ন বিভাগে স্থাপিত মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে তার তদারকি করতে নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ বৃহস্পতিবার সকালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) অত্যাধুনিক বিশেষায়িত হাসপাতালের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করে এ নির্দেশ দেন তিনি।

এ ছাড়া দরিদ্র মানুষের চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করতেও চিকিৎসকদের প্রতি আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।

এক হাজার ৩৬৬ কোটি টাকায় নির্মিতব্য বিশেষায়িত হাসপাতাল ২০২১ সালে উদ্বোধন করা হবে। এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঁচতলা কনভেনশন সেন্টার, ডায়াগনস্টিক ও চিকিৎসকদের ডরমিটরি সুবিধাসহ নির্মিত নতুন ভবনেরও উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী।

এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা দেন দেশের সব বিভাগে একটি করে মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন করার। যার মধ্যে রাজধানীসহ চট্টগ্রাম, রাজশাহী ও সিলেটে এরই মধ্যে যা স্থাপিত হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘দুটি মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়—চট্টগ্রাম ও রাজশাহীতে আমরা করে দিয়েছি। সিলেটেরটাও আমরা করে দিয়েছি—সেই আইনটা আজকেই পার্লামেন্টে উঠবে। বোধ হয় আজকে এটা পাস হবে।’ তিনি বলেন, ‘আমাদের একটা উদ্দেশ্য আছে যে পর্যায়ক্রমিকভাবে প্রতিটি বিভাগে একটি করে মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় আমরা তৈরি করে দেবো। এবার তো সময় শেষ হয়ে গেছে। এখন তো আর এত করা সম্ভব না। আর তা ছাড়া নতুন বিভাগও হয়েছে। তবে ইনশাআল্লাহ, আগামীতে যদি আসতে পারি, তখন আমরা করে দেবো।’

বর্তমান সরকারের দুই মেয়াদে শিক্ষা, স্বাস্থ্যসেবাসহ জনগণের দোরগোড়ায় সব সেবা পৌঁছে দিতে পেরেছেন উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী দরিদ্র মানুষের চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করতে চিকিৎসকদের নির্দেশ দেন।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘সমস্ত বাংলাদেশের মানুষের চিকিৎসাসেবা এবং বিশেষজ্ঞ সৃষ্টির জন্য আমরা বিভিন্ন ইনস্টিটিউট করা শুরু করে দিয়েছিলাম। কিডনি, নিউরো, ক্যানসার থেকে শুরু করে ইএনটি—নানা ধরনের, আমরা যত প্রয়োজনের আছে সব ধরনের ইনস্টিটিউটের কাজ আমরা শুরু করি। আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে মানুষের সেবা দেওয়া আর সে জন্য আমরা একটি স্বাস্থ্যনীতিও প্রণয়ন করেছি, যে নীতিমালার ভিত্তিতে দেশের মানুষ যেন চিকিৎসাসেবা পায়।’

নতুন এই অত্যাধুনিক বিশেষায়িত হাসপাতালে গবেষণামূলক কার্যক্রম পরিচালনার মাধ্যমে দেশের চিকিৎসাসেবা খাতকে আরো এগিয়ে নিতে চিকিৎসকদের প্রতি আহ্বানও জানান শেখ হাসিনা।সূত্র: এনটিভিনিউজ

আপনার মতামত লিখুন

জাতীয়,শিক্ষা,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ