শনিবার,২৫শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং,১১ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সময়: দুপুর ১:৫৫
‘আনন্দ শোভাযাত্রা’ শুরু আজ দেশজুড়ে আনন্দ শোভাযাত্রা পার্বতীপুর প্রগতি সংঘের নির্বাচন সম্পন্ন — সভাপতি আনোয়ারুল – সম্পাদক আমজাদ বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা শুরু আমরা ম্যাচ বাই ম্যাচ যেতে চাই: রুবেল কুষ্টিয়ায় বাস-ট্রাক সংঘর্ষে সুপারভাইজার নিহত বারী সিদ্দিকীর মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক

মুশফিকের বিরুদ্ধে ‘অভিযোগ’: কী শাস্তি পেতে যাচ্ছেন বরিশাল বুলসের মালিক?

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: জাতীয় টেস্ট দলের অধিনায়ক এবং বিপিএল দল বরিশাল বুলসের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমের বিরুদ্ধে কিছু আপত্তিকর ‘অভিযোগ’ এনে এখন শাস্তির মুখে আব্দুল অাওয়াল চৌধুরী বুলু। বরিশাল ফ্র্যাঞ্চাইজির অন্যতম স্বত্বাধিকারী বুলু বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালকও বটে। একটি টিভি চ্যানেলে মুশফিকের বিরুদ্ধে তার অভিযোগ নিয়ে এখন তোলপাড় চলছে ক্রিকেটাঙ্গনে। গতকাল শনিবার সংবাদ সম্মলনে কেঁদেছেন মুশফিক। একই সঙ্গে বিষয়টি গুরুত্বসহকারে গ্রহণ করেছে বিসিবি।

সংবাদ সম্মেলনের পাশাপাশি শনিবার বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের কাছে বিষয়টি নিয়ে অভিযোগ দায়ের করেছিলেন মুশফিক।  বিসিবির বিভিন্ন সূত্রে যা খবর পাওয়া গেছে তাতে মোটামুটি নিশ্চিত যে, মুশফিক ইস্যুতে জবাবদিহিতার মুখে পড়তে যাচ্ছেন আব্দুল আওয়াল চৌধুরী বুলু। তার বিরুদ্ধে শাস্তিমুলক ব্যবস্থা নেওয়ার কথাও ভাবছে বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল। কিন্তু মন্তব্যকারী প্রভাবশালী হওয়ায় ক্রিকেটপাড়ায় নানা গুঞ্জন আর জল্পনা চলছে।

বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের একজন কর্মকর্তা সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, আব্দুল আওয়াল বুলু দেশের ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থাটির একজন কর্মকর্তা। তিনি জাতীয় টেস্ট দলের একজন অধিনায়ককে নিয়ে ঢালাওভাবে এমন মন্তব্য করতে পারেন না। তিনি মুশফিকের বিরুদ্ধে শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগ এনেছেন, বাজে ক্যাপ্টেন বলেছেন, এমনকী তার বিরুদ্ধে গ্রুপিংয়ের অভিযোগও এনেছেন। এসব নিঃসন্দেহে দায়িত্বজ্ঞানহীনতার পরিচয়।

সেই কর্মকর্তা আরও বলেন, বরিশাল বুলসের চেয়ে বড় দায়িত্ব টেস্ট দলের অধিনায়ক হিসেবে আছেন মুশফিক। এ অভিযোগ যে শুধু বরিশাল বুলসের অধিনায়কের বিরুদ্ধে বর্তায়, তা নয়। বাংলাদেশের টেস্ট অধিনায়কের ওপর অনেক বড় ধরনের অভিযোগের সামিল। তিনি বলেন, আজ রবিবারই আব্দুল আওয়াল বুলুকে শোকজ নোটিশ পাঠানোর কথা আছে। শোকজের জবাব দেওয়ার পর উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করবে বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল। সেটা জরিমানা থেকে শুরু করে নিষেধাজ্ঞা পর্যন্তও যেতে পারে! এছাড়া নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়েও বেঁচে যেতে পারেন আব্দুল আওয়াল বুলু।

এর আগে একটি বেসরকারী টেলিভিশন চ্যানেলে বরিশাল বুলসের অন্যতম মালিক আব্দুল আওয়াল বুলু বাংলাদেশ টেস্ট অধিনায়কের ‘শৃঙ্খলা’ ও ‘দায়িত্ববোধ’ নিয়েও প্রশ্ন তুলেন। মুশির অধিনায়কত্বও নাকি তার পছন্দ নয়! এবং তিনি নাকি খুব বাজে ক্রিকেটার। এসব কথার জবাবে শনিবার সংবাদ সম্মেলনে আবেগাপ্লুত মুশফিক বলেন, ‘আপনারা নিশ্চয়ই জানেন আমাকে নিয়ে এমন প্রশ্ন কখনোই ওঠেনি।  হ্যাঁ, মাঠের পারফরম্যান্স নিয়ে তিনি নেতিবাচক মন্তব্য করতে পারেন। তবে আমার শৃঙ্খলা ও দায়িত্ববোধ নিয়ে তিনি যে প্রশ্ন তুলেছেন কিংবা আমি খেলোয়াড়দের উজ্জীবিত করতে পারি না, টিম মিটিংয়ে কথা বলি না—এসব কথা খুব খারাপ লেগেছে। ‘

আপনার মতামত লিখুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ