শুক্রবার,২২শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ইং,৭ই আশ্বিন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ১১:০৭

যমুনা ব্যাংকে উচ্চ বেতনে চাকরি সাতক্ষীরার অ্যাকুরিয়ামের রঙিন মাছ রপ্তানি হচ্ছে বিদেশেও ‘শুক্রবার থেকে ত্রাণ কার্যক্রমে অংশ নেবে সেনাবাহিনী’ ‘মহাসড়ক নেটওয়ার্কে জনসাধারণের যাতায়াতে স্বস্তি ফিরে এসেছে’ একাধিক পদে সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ে কাজের সুযোগ গাজীপুরে পিকআপের ধাক্কায় বৃদ্ধ নিহত পবিত্র আশুরা ১ অক্টোবর

মিউনিখ হামলাকারী সম্পর্কে নতুন তথ্য দিচ্ছে পুলিশ

file (5)মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক:   জার্মানির পুলিশ বলছে, শুক্রবার বিকেলে যে বন্দুকধারী মিউনিখ শহরের একটি শপিং সেন্টারে গুলি চালিয়ে ৯ জনকে হত্যা করেছে, তার সাথে ইসলামিক স্টেট গোষ্ঠি বা সন্ত্রাসবাদের কোন সম্পর্ক নেই।
জানা যাচ্ছে , ১৮ বছর বয়স্ক ওই তরুণ ইরানি বংশোদ্ভূত , এবং তার জার্মানি ও ইরান দুদেশেরই পাসপোর্ট ছিল। তার নাম এখনও পুলিশ প্রকাশ করে নি।
আরো জানা গেছে তরুণটির মানসিক অবসাদের জন্য চিকিৎসা চলছিল।
জার্মান পুলিশ বলছে মিউনিখের হামলাকারী ছিল একজন ছাত্র এবং গুলি করে গণহারে হত্যাকাণ্ড ঘটানোর প্রতি তার একটা অন্ধ আকর্ষণ ছিল বলে তথ্য প্রমাণও তারা পেয়েছে ।
তার বাসাবাড়ি তল্লাশি করে পুলিশ যেসব কাগজপত্র পেয়েছে তার মধ্যে রয়েছে বিভিন্ন পত্রিকায় বেরনো হামলা সংক্রান্ত নানা খবরের কাটিং এবং “ছাত্ররা কেন হত্যা করে” এই শিরোনামে একটি নিবন্ধ।
পুলিশ বলছে গুলি চালানোর আগে ওই তরুণ কিছু একটা বলে চিৎকার করছিল, কিন্তু তদন্তকারীরা এখনও পর্যন্ত বের করতে পারে নি ওই তরুণ আসলে কি বলেছিল।
প্রথম দিকে এই হত্যাকাণ্ডের জন্য ইসলামী জঙ্গীবাদকে দায়ী করা হলেও মিউনিখ পুলিশ এখন জানিয়েছে ওই তরুণের সঙ্গে কোনো জঙ্গী গোষ্ঠির যোগাযোগ ছিল না।
তবে মোবাইলে ফোনে তোলা ভিডিও ছবিতে ‘আমি জার্মান’ কথাটি কাউকে বলতে শোনার পর এমন ধারণার কথাও শোনা যাচ্ছে যে উগ্র ডানপন্থী মতাদর্শের কোনো সমর্থক এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়ে থাকতে পারে।
পুলিশ বলছে নরওয়ের গণহত্যাকারী অ্যান্ডারস্ বেহরিং ব্রেভিক যে ২০১১ সালে ৭৭ জনকে হত্যা করেছিল তার সঙ্গে এই যুবকের যোগাযোগের প্রমাণও তারা পেয়েছে।
তদন্তকারী পুলিশ এমন সন্দেহও করছে যে ওই তরুণ একজন মেয়ের ছদ্মনামে ফেসবুকে ভুয়া অ্যাকাউন্ট খুলে খুন করার জন্য লোকজনকে ম্যাকডোনাল্ড-এর দোকানে ডেকে এনেছিল।
ঘটনার পরপরই আক্রমণকারী আত্মহত্যা করে।
শপিং সেন্টারের ভেতর একজন প্রত্যক্ষদর্শী স্থানীয় একটি টিভি চ্যানেলকে জানিয়েছে হামলাকারী সেনা স্টাইলের বুট পরেছিল এবং তার পিঠে ব্যাগ ছিল।
হামলার ঘটনায় নয়জন নিহত হওয়া ছাড়াও শিশুসহ ২৭জন আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে দশজনের অবস্থা সঙ্কটজনক।
মিউনিখ পুলিশের প্রধান বলেছেন আহত অনেকে ভয়ে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে গেছে- যাদের হিসাব পুলিশের কাছে নেই।
জার্মানিতে শনিবার নিহতদের স্মরণে পতাকা অর্ধনমিত রাখা হয়েছে। ওই শপিং এলাকায় মানুষজন নিহতদের স্মরণে ফুল দিয়েছে এবং মোমবাতি জ্বালিয়েছে। সূত্র: এবিনিউজ
আপনার মতামত লিখুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ