মঙ্গলবার,২১শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং,৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সময়: দুপুর ২:২৯
বাগেরহাটে ইজিবাইক চালকের লাশ উদ্ধার আম্পায়ারকে গালি দিয়ে সাকিবের শাস্তি ‘স্টুডেন্ট অব দ্য ইয়ার টু’তে টাইগার শ্রফ জলপাইয়ের গুণাগুণ সৈয়দপুরে তারেক রহমানের জন্মদিন পালিত জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২য় রিলিজ স্লিপের ভর্তির আবেদন ২২ নভেম্বর শুরু সব দায় পরিচালকের : এফ আই মানিক

মালয়েশিয়ায় স্কুলে আগুন : সম্পৃক্ততার অভিযোগে গ্রেপ্তার ৭

 মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরে কোরআন শিক্ষার একটি স্কুলে আগুনে পুড়ে ২১ শিক্ষার্থীসহ ২৩ জন নিহত হওয়ার ঘটনায় সম্পৃক্ততার অভিযোগে সাত কিশোর ও যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

স্থানীয় সময় শনিবার কুয়ালালামপুর পুলিশের প্রধান অমর সিং এ তথ্য জানিয়েছেন।

অমর সিং জানান, আগুন লাগার আগে ১১ থেকে ১৮ বছর বয়সী ওই সাতজন স্কুলের কাছে জড়ো হয়েছিল বলে পাশের একটি ভবনের ক্লোজড সার্কিট টেলিভিশনের (সিসিটিভি) ফুটেজে দেখা গেছে।

গত বৃহস্পতিবার ভোররাতে তিনতলাবিশিষ্ট তাহফিজ বোর্ডিং স্কুল দারুল কোরআন ইত্তিফাকিয়াহতে আগুন ধরে। আগুনে ভবনটির সর্বোচ্চ তলা থেকে ছাত্রাবাসে যাওয়ার একমাত্র পথটি বন্ধ হয়ে যায়। এতে আটকা পড়ে প্রাপ্তবয়স্ক দুজন ও ৬ থেকে ১৭ বছর বয়সী ২১ শিক্ষার্থী নিহত হয়।

শনিবার টেলিভিশনে সম্প্রচারিত একটি সংবাদ সম্মেলনে অমর সিং বলেন, ‘অগ্নিকাণ্ডের কয়েক দিন আগে ভুল বোঝাবুঝির জেরে  সন্দেহভাজন ও তাহফিজ শিক্ষার্থীরা পরস্পরকে ব্যঙ্গ করেছিল বলে অনুসন্ধানে জানতে পেরেছি।’

কুয়ালালামপুর পুলিশের প্রধান জানান, গ্রেপ্তার হওয়া সাতজনের মধ্যে ছয়জনের মাদক নেওয়ার রেকর্ড আছে। এ ছাড়া দুজন এর আগে যানবাহন চুরি ও দাঙ্গার কারণে পুলিশ আটক করে।

পুলিশের এই কর্মকর্তা জানান, ধারণা করা হচ্ছে, স্কুল ভবনের সর্বোচ্চ তলায় রান্নার কাজে ব্যবহৃত দুটি গ্যাস ট্যাঙ্ক আনা হয়েছিল। এর মাধ্যমে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়, যা দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে।

আপনার মতামত লিখুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ