বৃহস্পতিবার,২১শে জুন, ২০১৮ ইং,৭ই আষাঢ়, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ১১:৩২
জাতীয় ফলদ বৃক্ষ রোপণ পক্ষ ও ফল প্রদর্শনী শুরু হচ্ছে কাল সরকার সিনেমা হল ডিজিটালাইজ করার প্রকল্প গ্রহণ করেছে পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়ের নাম পরিবর্তন একনেক সভায় ১৫টি প্রকল্পের অনুমোদন কলকাতার গণমাধ্যমে নেই শাকিব সৈয়দপুরে আইকন কোচিং সেন্টারের পরিচালক মিলনের ইন্তেকাল নাটোরে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীসহ দুজনের মৃত্যুদন্ড

ভেঙে পড়লো ঠাকুরগাঁওয়ের ফুসফুস ভেঙে পড়লো ঠাকুরগাঁওয়ের ফুসফুস

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেক্স:বয়সের ভারে ঠাকুরগাঁওয়ের ফুসফুস ও গরিবের এসি বলে পরিচিত আদালত চত্বরে অবস্থিত শত বছরের বট গাছটির একাংশ ভেঙে পড়েছে। তবে এতে কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। গতকাল রবিবার সকালে আদালত চলাকালীন গাছটি ভেঙে পড়ে। এসময় গাছটির ছায়ায় শতাধিক মানুষ বিশ্রাম করছিলেন। তারা সবাই দূর দূরান্ত থেকে মামলার কাজে এসেছিলেন। সৌভাগ্যক্রমে সবাই প্রাণে বেঁচে গেছেন।
এদিকে বটগাছটি ভেঙে পড়ায় শহরের একাধিক মানুষের মুখটি মলিন হয়ে যায়। কারণ প্রচন্ড রোদে শহরের মানুষ একটু শীতল হতে এই গাছের নিচে এসেই বসতো।ভেঙে পড়লো ঠাকুরগাঁওয়ের ফুসফুস
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, সকালে প্রতিদিনের মতো মামলা সংক্রান্ত কাজে আদালত চত্বরে জোড়ো হতে থাকে শত শত মানুষ। এ সময় বটগাছের নিচে বসে ছিল শতাধিক মানুষ । হঠাৎ করে গাছটি ভেঙে পড়ার শব্দ শুনতে পারে কিছু মানুষ। এ সময় মানুষ নিরাপদ স্থানে সরে দাঁড়ায়। আস্তে আস্তে অবশেষে গাছটির একাংশ ভেঙে পড়ে।
এদিকে গাছটি ভেঙে পড়ার খবর শুনে গাছটি দেখতে শহরের অনেক মানুষ ভিড় জমায় আদালত চত্বরে। আদালতে হাজিরা দিতে আসা সামসুল হোসেন জানান, হরিপুর থেকে প্রায় ১০ বছর যাবত মামলার হাজিরা দিতে আসছি। ক্লান্ত হলে এই বটগাছের নিচেই বিশ্রাম করি। খুব কষ্ট লাগছে গাছটি ভেঙে পড়ায়।শহরের প্রবীন ব্যক্তি মনতোষ কুমার দে জানান, ঠাকুরগাঁওয়ে পহেলা বৈশাখের ঐতিহ্য ছিল এই বটমূল। এর পর মনে হয়না বটমূলে বৈশাখ উদযাপন করা যাবে।ঠাকুরগাঁওয়ের আইনজীবী আব্দুল হালিম জানান, গরিবের আশ্রলস্থল ছিল এই বটগাছটি। আর ঠান্ডা বাতাস খেতে পারবে না অসহায় মানুষগুলো।এবিনিউজ

আপনার মতামত লিখুন

রংপুর,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ