মঙ্গলবার,২২শে জানুয়ারি, ২০১৯ ইং,৯ই মাঘ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: সকাল ১০:২৮
লালপুরে পৌর কাউন্সিলর জামিরুলের দাফন সম্পন্ন, শোকাহত এলাকা ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচন কোনো নির্বাচন হয়নি – লালমনিরহাটে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল জেলা হাসপাতালের ৪০ শতাংশ চিকিৎসকই অনুপস্থিত : দুদক ৫০ হাজার পুলিশ নিয়োগের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর বিআরটিএ’র স্থগিতকৃত নিয়োগ পরীক্ষার নতুন সময়সূচি মার্কেটিং এক্সিকিউটিভ নিয়োগ দেবে এসিআই কল্লোল গ্রুপে চাকরির সুযোগ

‘ভুলে ভরা’ জবির বাণিজ্য অনুষদের প্রশ্নপত্র

3 months ago , বিভাগ : শিক্ষা,
মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক:  জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের ‘ইউনিট-৩’ (বাণিজ্য শাখা)-এর ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্নপত্রে অসংখ্য বানান ভুল এবং বাক্যগঠনে অসঙ্গতি দেখা গেছে। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েছেন সংশ্লিষ্টরা।
শনিবার সকাল ১০টায় জবির বাণিজ্য শাখার ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এসব ভুল নজরে আসার পর শিক্ষার্থী, অভিভাবক, শিক্ষকরা বলছেন, প্রশ্নপত্রে এমন ভুল কোনোভাবেই কাম্য নয়। প্রশ্নপত্রে এত ভুল থাকলে এই পরীক্ষা নিয়ে শিক্ষার্থীদের কী লাভ হবে?
জবি বাংলা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. একেএম মাহবুবুল হক ফেসবুকে লেখেন, এটি দেশের একটি খ্যাতনামা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাণিজ্য অনুষদে ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র যাতে মুদ্রণ ও ভাষাগত বিভ্রাট আছে কমপক্ষে ৩০টি !!! তদুপরি ছাত্র-ছাত্রীদের ভাষাজ্ঞান যাচাই করার জন্য শ্রম-বিভাজন, একচেটিয়া প্রতিযোগিতামূলক বাজার ইত্যাদি ব্যবসায়-শিক্ষা সম্পর্কিত প্রশ্ন এবং বাংলা-ইংরেজির জগাখিচুড়ি দিয়ে এক নিদারূণ রসিকতা করা হয়েছে এই প্রশ্নপত্রে। অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছে, পরীক্ষার্থীদের ভাষাজ্ঞান যাচাই করার আগে প্রশ্নকর্তার বা দায়িত্বপ্রাপ্তদের ভাষাজ্ঞান নিয়ে সন্দেহ ওঠা অস্বাভাবিক নয়।
বিজনেস স্টাডিজ অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. শওকত জাহাঙ্গীর বলেন, আসলে যে ভুল ধরেছে তারই ভুল। আমরা এ প্রশ্নপত্রটা ২০ বার আমি যাচাই করেছি সেখানে ভুল খুঁজে পাইনি। এখন বানানে ‘ণ’ ও ‘ন’ বিভিন্নজন বিভিন্নভাবে লিখে। এখানে ভুল বলার কোন কারণ নেই। আর এত ভুল খুঁজতে গিয়ে বাংলা বিভাগের শিক্ষক এনে প্রশ্ন ফাঁস করতে পারিনা।সূত্র: দৈনিক ইত্তেফাক
আপনার মতামত লিখুন

শিক্ষা বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ