শুক্রবার-১৯শে এপ্রিল, ২০১৯ ইং-৬ই বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ১২:২৫
কাল শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা ঢাকায় পৌঁছেছেন ফেরদৌস রমজানে পণ্যের দাম বাড়বে না: বাণিজ্যমন্ত্রী পার্বতীপুরে স্কুল ফিডিং কার্যক্রম পরির্শনে মন্ত্রী পরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব নারীর প্রতি সহিংসতা রোধে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অভিযোগ বক্স রাখার সুপারিশ তাইওয়ানে শক্তিশালী ভূমিকম্প নুসরাত হত্যাকারীদের শাস্তি দাবিতে গাইবান্ধায় মৌন প্রতিবাদ

বেড়াতে গিয়ে আর ফেরা হলো না সালামের

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: এসএসসি পরীক্ষা শেষে বন্ধুদের সঙ্গে ভ্রমণে এসে আর বাড়ি ফেরা হলো না শিক্ষার্থী আব্দুস সালামের। ‌আজ শুক্রবার (২২ মার্চ) সকালে বন্ধুদের সঙ্গে মাধবকুণ্ড জলপ্রপাতের আড্ডার আনন্দময় মুহূর্তের ছবিগুলো এখন শুধুই স্মৃতি।

দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে কুলাউড়া উপজেলার কটারকোনা ব্রিজের দক্ষিণ পার্শ্বে মনু নদীতে ডুবে মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে সালামের।

আব্দুস সালাম নরসিংদী জেলার শিবপুর থানার জয়নগর ইউনিয়নের আছকিতলা গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে। সে শিবপুরের চৈতন্যা বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এবার ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছে।কালেরকন্ঠ

পারিবারিক ও সহপাঠী সূত্রে জানা যায়, গতকাল বৃহস্পতিবার (২১ মার্চ) রাতে নরসিংদী থেকে মৌলভীবাজারের বিভিন্ন পর্যটন এলাকায় ঘুরতে আসে সালামসহ ১৩ বন্ধু (নওশাদ, হিমেল, রিফাত, কাওছার, সোহাগ, ফারুক, মোহাম্মদ, রাতুল, মেহেদী, হাসনাত, ফাহিম ও শুভ)। তাদের অভিভাবক হিসেবে তাদের প্রাইভেট শিক্ষক সুলেমান ভূঁইয়াও তাদের সঙ্গে ছিলেন। আজ শুক্রবার সকালে মাধবকুণ্ড ভ্রমণ শেষে জেলার কমলগঞ্জ উপজেলার মাধবপুর লেকে যাওয়ার পথে কুলাউড়ার কটারকোনা ব্রিজের পাশে মনু নদীতে সবাই গোসল করতে নামেন।

সহপাঠীরা গোসল সেরে ওপরে উঠে আসলেও সালাম পানিতে তলিয়ে যায়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা সহপাঠী ও স্থানীয়দের সহযোগিতায় সালামকে উদ্ধার করে কুলাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। এ সময় সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

সহপাঠীদের প্রাইভেট শিক্ষক সুলেমান ভূঁইয়া কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘ছাত্রদের আবদারের কারণে তাদের সঙ্গে আমার আসা। মাধবকুণ্ড ভ্রমণ শেষে মাধবপুর লেকে যাওয়ার পথে আমরা সবাই মনু নদীতে গোসল করতে নামি। সালাম সাঁতার জানে না। গোসল করতে নেমে সে হাবুডুবু খেয়ে পানির নিচে তলিয়ে যায়।’

কুলাউড়া থানার ওসি (তদন্ত) সঞ্জয় চক্রবর্তী বিকেলে কালের কণ্ঠকে বলেন, মৃত স্কুলছাত্রের পরিবারের সদস্যরা থানায় আসার পর উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের অনুমতি সাপেক্ষে আইন অনুযায়ী মৃতদেহ তাঁদের কাছে হস্তান্তর করা হবে। এ ব্যাপারে থানায় অপমৃত্যু মামলা হবে।

আপনার মতামত লিখুন

ঢাকা,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ