মঙ্গলবার,১৪ই আগস্ট, ২০১৮ ইং,৩০শে শ্রাবণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: বিকাল ৫:১৩
জবিতে ছুটি শুরু ১৫ আগস্ট রাবিতে ঈদুল আজহার ছুটি শুরু ১৬ আগস্ট ভার্চুয়াল মেকআপের সুযোগ দেবে এআর প্ল্যাটফর্ম বাংলা ওয়েবসাইটের জন্য আর নয় ইংরেজি ডোমেইন! তানজিব-সালমার এই ছবির নেপথ্যে কী? শেষ পর্যায়ে জায়েদ-মৌয়ের ‘প্রতিশোধের আগুন’ ২০ নভেম্বর বিয়ে করছেন রণবীর-দীপিকা

বাংলাদেশের নারী ক্রিকেটাররা যাচ্ছেন দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে!

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: আগামী ২৮ এপ্রিল বাংলাদেশের নারী ক্রিকেটাররা যাচ্ছেন দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে। সেখানে তারা পাঁচটি ওয়ানডে এবং তিনটি টি-টোয়েন্টি খেলবে। মূল মঞ্চে মাঠে নামার আগে বাংলাদেশ খেলবে একটি প্রস্তুতি ম্যাচও। দীর্ঘ সফরের জন্য মেয়েদের ১২ দিনের ক্যাম্প হয়েছে সিলেটে।

কিন্তু মেয়েদের এ সিরিজে লক্ষ্য শুধু অভিজ্ঞতা অর্জন! আত্মবিশ্বাসী থাকলেও জয়-পরাজয় নিয়ে ভাবছে না রুমানারা। নারী ক্রিকেট দলের ওয়ানডে অধিনায়ক রুমানা আহমেদ আজ মিরপুরে বলেছেন,‘আমরা জেতার জন্যই খেলি। কিন্তু দীর্ঘ এক বছর পর আমরা আন্তর্জাতিক সফরে যাচ্ছি। হার-জিত খেলার অংশ। কিন্তু আমি মনে করি এটা আমাদের অভিজ্ঞতা অর্জনে কাজে লাগবে। অভিজ্ঞতা অর্জন করা আমাদের মূল লক্ষ্য।’

প্রতিপক্ষ হিসেবে দক্ষিণ আফ্রিকা অনেকটাই পরিচিত। এর আগে ২০১২, ২০১৩ এবং ২০১৭ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজ খেলেছে টাইগ্রেসরা। ২০১৩ এবং ২০১৭ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার মেয়েরা বাংলাদেশে এসেছিল। ২০১২ সালে বাংলাদেশ গিয়েছিল সফরে। দুই দল নিয়মিত বিরতিতে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলছে।

কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট শেষ কয়েক বছরে এগিয়েছে অনেক দূর। কিন্তু বাংলাদেশের মেয়েরা পারেনি প্রত্যাশা পূরণ করতে। রুমানার কন্ঠেও একই সুর,‘ওদের সাথে আমাদের বেশি জয় নেই। ওরা বিশ্বের চার নম্বর দল। আমরা নয় নম্বর। তারমানে এই না যে আমরা ভেঙে পড়ছি বা পারি না। দীর্ঘ এক বছর পর খেলছি। ভালো করব এবং অভিজ্ঞতা অর্জন করব। আমাদের আত্মবিশ্বাস আছে।’

সিলেটের ক্যাম্প নিয়েও সন্তুষ্ট অধিনায়ক,‘সিলেটে আমাদের একটা ক্যাম্প হয়েছে। আমি মনে করি আমাদের ক্যাম্পটা ভালোই হয়েছে।’ এদিকে প্রথমবারের মতো নারীদের ক্রিকেটে দুই ফরম্যাটে দুই অধিনায়ক করা হয়েছে। ওয়ানডের দায়িত্ব ‍রুমানার কাঁধে। টি-টোয়েন্টির দায়িত্ব সালমা খাতুনের কাঁধে। দুই অধিনায়কে আপত্তি দেখছেন না রুমানা,‘এবার হয়ত দুজন দিয়েছে। ছেলেদের দলেও এমন আছে, বিভিন্ন দেশেই আছে এটা। এটা যেহেতু প্রচলন আছে এবং এক অধিনায়কের উপর যেহেতু বেশি চাপ পড়ে যায়। সেজন্য এ সিস্টেমটা খারাপ না।’

প্রথমবারের মতো হেড কোচের পাশাপাশি সহকারী কোচ পেয়েছে জ্যোতি, প্রীতি, ফাহিমারা। এ মাসেই ভারতের প্রাক্তন সহকারী কোচ দেবিকা পালশিখর বাংলাদেশের দায়িত্ব নিয়েছেন। সহকারী কোচ নিয়ে ওয়ানডে অধিনায়ক বলেছেন,‘আসলে নতুন কোচ পেয়ে আমরা আনন্দিত। এই প্রথম আমাদের সহকারী কোচ দেওয়া হয়েছে। উনার কাছ থেকে টেকনিক্যাল কিছু জিনিস পাচ্ছি। যেটা ব্যাটিং, বোলিংয়ে দরকার ছিল। হেড কোচের পাশাপাশি উনিও পরামর্শ দিচ্ছেন।’

বাংলাদেশ নারী দল:

রুমানা আহমেদ (ওয়ানডে অধিনায়ক), সালমা খাতুন (টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক), নিগার সুলতানা জ্যোতি, ফারজানা হক পিংকি, খাদিজা-তুল কুবরা, ফাহিমা খাতুন, জান্নাতুল ফেরদৌস সুমনা, শারমিন সুলতানা, নাহিদা আকতার, পান্না ঘোষ, সুরাইয়া আজমিন, সানজিদা ইসলাম, শারমিন সুলতানা (২), সোবহানা মোস্তারি, মুরশিদা খাতুন ও জাহানারা আলম।

দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজের সূচি :

৪ মে, প্রথম ওয়ানডে, পচেফস্ট্রুম

৬ মে, দ্বিতীয় ওয়ানডে, পচেফস্ট্রুম

৯ মে, তৃতীয় ওয়ানডে, কিম্বার্লি

১১ মে, চতুর্থ ওয়ানডে, কিম্বার্লি

১৪ মে, পঞ্চম ওয়ানডে, ব্লুমফন্টেইন

১৭ মে, প্রথম টি-টোয়েন্টি, কিম্বার্লি

১৯ মে, দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি, ব্লুমফন্টেইন

২০ মে, তৃতীয় টি-টোয়েন্টি, ব্লুমফন্টেইন।

আপনার মতামত লিখুন

খেলাধুলা,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ