বুধবার,২৬শে জুলাই, ২০১৭ ইং,১১ই শ্রাবণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ১০:৪৩

খেলতে খেলতে এবার হবে ‘রূপচর্চা’! তমা মির্জার ‘গ্রাস’ মুক্তি পাচ্ছে ২৮ জুলাই বলিউডে স্বজনপোষণ বিতর্ক নিয়ে বিরক্ত বিদ্যা আল-ফুযাইরাতে শিষ্যদের নিয়ে ফুরফুরে ম্যারাডোনা পৃথিবীর বুকে উজ্জ্বল আলোর নাচন! জাকারবার্গ দায়িত্বজ্ঞানহীনের মত আচরণ করছেন: মাস্ক এলিয়েন খুঁজতে অণুবীক্ষণ যন্ত্র

ফরিদপুরে গৃহবধুকে জবাই করে হত্যা, আটক-১

download (2)ফরিদপুর প্রতিনিধিঃফরিদপুর জেলার সালথা উপজেলার গট্রি ইউনিয়নে রেশমা বেগম (২৭) নামের এক গৃৃহবধুকে গলা কেটে হত্যা করার পর হাত-পায়ের রগ কেটে দেবার খবর পাওয়া গেছে।
মঙ্গলবার সকালে স্থানীয়রা রেশমা বেগমের গলাকাটা লাশটি ধানক্ষেতে পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেয়। পরে সালথা থানা পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়। নিহত রেশমা গট্রি ইউনিয়নের কানইর গ্রামের জালাল শেখের স্ত্রী। তার পিতার নাম সোবহান মোল্যা। এ ঘটনায় পুলিশ নিহত রেশমা বেগমের ভাসুরকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে।
স্থানীয় ও থানা সূত্রে জানাগেছে, দুই বছর আগে রেশমা বেগমের সাথে প্রতিবেশী মাছিম শেখের ছেলে জালাল শেখের সাথে বিয়ে হয়। বিয়ের পর জালাল চাকুরীর সুবাদে ঢাকায় চলে যায়। মাঝে মধ্যে জালাল বাড়ীতে আসতো। জালাল শেখের ঢাকায় থাকার সুবাদে ভাসুরের ছেলে সাব্বিরের সাথে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ে রেশমা। এ নিয়ে জালাল শেখের পরিবারে মনোমালিন্য চলছিল।
নিহতের দাদী ফজরুন নেছা জানান, রেশমার সাথে তার ভাসুরের ছেলে সাব্বিরের সাথে বিরোধ ছিল। তবে কি নিয়ে বিরোধ তা তিনি জানাতে পারেননি।
সোমবার রাতের যে কোন সময় রেশমা বাড়ী থেকে বের হয়ে আর ফিরে আসেনি। মঙ্গলবার সকালে বাড়ীর পার্শ্ববর্তী ধানক্ষেতে রেশমার ক্ষত-বিক্ষত লাশটি স্থানীয়রা দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়।
সালথা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ডি এম বেলায়েত হোসেন জানান, ঘটনাস্থল থেকে লাশটি উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। লাশের গলা এবং হাত-পায়ের রগ কাটা ছিল। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাব্বির নামের একজনকে আটক করা হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন

বরিশাল,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ