মঙ্গলবার,১৭ই জানুয়ারি, ২০১৭ ইং,৪ঠা মাঘ, ১৪২৩ বঙ্গাব্দ, সময়: দুপুর ১২:৪৮
ধোলাইখালে ট্রাকের ধাক্কায় চাচা-ভাতিজা নিহত সিরিয়ায় নিজ নৌ এবং বিমান ঘাঁটিগুলোর উন্নয়ন করবে রাশিয়া সাত খুনের মামলার রায় ন্যায় বিচারের প্রমাণ : ওবায়দুল কাদের সাথীর লাকি সেভেন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নিয়মিত খেলাধুলার চর্চা বাড়াতে হবে: শিক্ষামন্ত্রী ঠাকুরগাঁওয়ে নতুন বিদ্যুৎ সংযোগের উদ্বোধন সাতক্ষীরার পুলিশ সুপার আলতাফ হোসেন শান্তিপদক পেয়েছেন

পূজোর সাজ

file-1মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: দেখতে দেখতে চলেই এলো শারদীয়া দুর্গাপূজো। এসে গেল জমজমাট আনন্দ আর ভক্তিরসে ভেজার দশদিন। যদিও দশ দিনব্যাপি এই পূজোর ব্যাপ্তি, কিন্তু ষষ্ঠ থেকে দশম অর্থাৎ ষষ্ঠী থেকে দশমী পর্যন্ত এই পূজোর মূল আকর্ষণ। আর পূজোর এই আকর্ষণে মন্ডপে মন্ডপে পূজো-অর্চ্চনা আর দেবী দর্শন করে কাটাবেন সবাই। নারী-পুরুষ, কিশোর-কিশোরী, যুবক-যুবতী, পৌঢ়- বাদ যাবেন না কেউ। নারীদের সাজ পোশাকের ক্ষেত্রে, বিশেষ করে ষষ্ঠী থেকে দশমীর দিন পর্যন্ত এই বিশেষ সাজের একটু নজর রাখতেই হয়। পুজোর শপিং ইতিমধ্যেই সেরে ফেলেছেন অনেকে। তবে এই গরমের দিনে পোশাকের সঙ্গে মানানসই মেকআপ না হলে, যে পুরো সাজটাই মাটি হবে। সুতারাং এই গরমে কোন ধরনের পোশাক পরছেন তার ওপর নির্ভর করেই মেকআপ করতে হবে।
ষষ্ঠীর সাজ: ষষ্ঠীর দিন থেকে শুরু হয় মন্ডপে মন্ডপে যেয়ে মা-দুর্গার সাজ দেখা ও পূজা-অর্চ্চনা করা। সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত যারা বাইরে থাকতে চান তারা পছন্দের তাঁত, কটন, জামদানী কিংবা মানানসই শাড়ি পড়তে পারেন। শাড়ি এক প্যাঁচেও পড়তে পারেন, চাইলে কুচিও করতে পারেন। তবে এদিনের সাজটা তত গাঢ় হয় না। চোখে হালকা শ্যাডোসহ চিকন লাইনার আর পছন্দসই রঙের লিপস্টিক পড়তে পারেন। টিনএজাররাও লাইট এবং ন্যাচারাল সাজ যেমন ফতুয়া, ট্রেন্ডি টপস্, জিন্স সঙ্গে দুই ফিতাঅলাচপ্পল মানানসই।
সপ্তমীর সাজ : পূজোয় দশমীর দিন ঘনিয়ে আসতে আসতে সাজটাও একটু গাঢ় হওয়া শুরু হয়। এদিন তেমন আয়োজন ও ব্যস্ততা না থাকলেও মন্ডপ ঠিকই সরগরম থাকে। তাই এদিন যারা বেরুবেন তাদের সাজে লিপস্টিক, শ্যাডো, মাসকারা, লাইনার সবই একটু ভারি হবে
অষ্টমীর সাজ : অষ্টমীর সকালটা শুরু হয় অঞ্জলি অর্পণের মধ্য দিয়ে। পাড়ার মন্ডপে কিংবা মন্দিরে গিয়ে এদিন দেবীকে পুষ্পার্ঘ্য দেয়া হয়। এক্ষেত্রে বাচ্চাদের আগ্রহটাই বেশি দেখা যায়। বাচ্চাদের জন্য একটু রঙিন ধাচের জামা হলেই এদিনের সাজে তাদের অন্য লুক দেয়া যায়। এদিন বাঙালি বিবাহিত নারীরা কপালে মোটা করে সিঁদুর পরেন। অষ্টমীর রাতে প্রায় সবাই-ই ভারি সাজে সাজতে পছন্দ করেন। সকালে সান স্ক্রিনই যথেষ্ট। রাতে হালকা ফাউন্ডেশন লাগান। তবে সকাল বা বিকেল একটা নামী কোম্পনীর বিবি ক্রিম, বা সিসি ক্রিম থাকলে এই বেস মেক-আপের ঝামেলাটা অনেকটাই কমিয়ে দেয়। সানস্ক্রিন, ফাউন্ডেশন, বা কনসিলার– সব কাজ এক সঙ্গেই হয়ে যাবে। একটু শিমারি লুক ট্রাই করা যেতে পারে। বেস মেক-আপের পর হালকা করে একটু ট্রান্সলুসেন্ট শিমারি কমপ্যাক্ট বুলিয়ে নিন। খুব চড়াও দেখাবে না। আবার মুখও ঝলমল করবে। শাড়ী-গয়না-মেকআপ, সবক্ষেত্রেই থাকা চাই গর্জিয়াস লুক।
নবমীর সাজ : নবমীর সান্ধ্য পূজাতে সবাই সন্ধ্যার পরই মন্দিরে যান আর তাই অনেকটা পার্টি সাজে সাজেন সবাই। ভারি গয়না, রং-বৈচিত্র্যপূর্ণ পোশাক, ভারী মেকআপ, চুলের সাজ, তাজা ফুল এদিনের সাজের অনুষঙ্গ।
দশমীর সাজ : শারদীয় পূজোর প্রধানতম আকর্ষণ দশমী। দশমীর সাজ মানে লাল পেড়ে সাদা শাড়ি, হলুদ পেড়ে লাল শাড়ি কিংবা একদম লাল রঙা শাড়ি। প্রায় সব বয়সী নারীদের ক্ষেত্রেই এটি প্রযোজ্য। অনেকে আবার প্রতিমার মতোও সাজতে পছন্দ করেন। চোখে কাজলের টানা লাইনার, লাল লিপস্টিক, স্নিগ্ধ মেকআপ আর সিঁদুর। এদিন ঠাকুরকে সিঁদুর পরিয়ে দেওয়ার পাশাপাশি নিজেরাও মেতে উঠেন সিঁদুর খেলায়।
পুজোর আগে ভালো করে নেল আর্ট করিয়ে নিতে পারেন। চোখের মেক-আপের জন্য আলাদা করে আইশ্যাডোর শেড, কাজল, কোহল পেন্সিল, আই লাইনারের কথাও মাথায় রাখুন। আর শুধু বাড়ি থেকে সেজে বেরলেই হবে না৷ অনেকক্ষণ বাইরে থাকতে হবে। তাই হাতের কাছে ওয়েট টিস্যু যেন অবশ্যই থাকতে হবে। ফ্রেশ লুক বজায় রাখতে সাহায্য করবে। তার সঙ্গে একটা লিপস্টিক, একটা কমপ্যাক্ট, এবং একটা কাজলও সঙ্গে রাখুন।
আপনার মতামত লিখুন

লাইফস্টাইল বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ


%d bloggers like this: