বৃহস্পতিবার,২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ইং,৯ই ফাল্গুন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ৩:৪০
বৌ সাজানো প্রতিযোগিতা শুরু করলেন কেকা ফেরদৌসী ১৮ নম্বরে শাকিব কলকাতার সেরাদের তালিকায় পলাশবাড়ী স্বেচ্ছায় রক্তদান সংগঠনের প্রথম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত শৈলকুপায় খাবার হোটেলসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে ভ্রাম্যমাণ আদালতের জরিমানা হাতীবান্ধায় স্টুডেন্ট কাউন্সিল অনুষ্ঠিত ৩১ মার্চ চতুর্থ ধাপের উপজেলা নির্বাচন হবে : ইসি সচিব ডোমার ভিত্তি বীজ আলু উৎপাদন খামারে বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা।

পুলিশ সপ্তাহ: মেডিকেল কলেজ চায় বাহিনী

4 weeks ago , বিভাগ : শিক্ষা,

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: পুলিশ সপ্তাহ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে একগুচ্ছ দাবি জানাতে চান বাহিনীর কর্মকর্তারা। ৪ ফেব্রুয়ারি ‘পুলিশ সপ্তাহের’ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে এসব দাবি তুলে ধরা হতে পারে বলে জানা গেছে। রাজারবাগ হাসপাতাল প্রাঙ্গণে নিজস্ব মেডিকেল কলেজ ছাড়াও দাবিদাওয়ার মধ্যে রয়েছে- পৃথক পুলিশ বিভাগ, আবাসন, যানবাহন সুবিধা, ঝুঁকি ভাতা ও পুলিশ মহাপরিদর্শকের (আইজিপি) পদকে ফোর স্টার জেনারেলে রূপান্তর করা।

এছাড়া পুলিশ বিভাগে প্রথম শ্রেণীর কর্মকর্তার পদের সংখ্যা বৃদ্ধি ও ব্যক্তিগত গাড়ি ক্রয়ে সহজ শর্তে ৫০ লাখ টাকা ঋণ সুবিধাও চাচ্ছেন কর্মকর্তারা। বাহিনীর বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলাপে এসব তথ্য জানা গেছে। কর্মকতারা বলছেন, বর্তমান সরকারের আমলে পুলিশের সংখ্যা বড়ানোসহ সুযোগ-সুবিধাও বৃদ্ধি করা হয়েছে। তবে দেশের আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় নিয়োজিত পুলিশ বাহিনীর দুই লাখ সদস্যের জন্য রাজধানীর রাজারবাগ পুলিশ লাইনে ২৫০ শয্যার হাসপাতাল থাকলেও নেই মেডিকেল কলেজ।

পুলিশ বাহিনীর সদস্যদের চিকিৎসাসেবা বৃদ্ধির জন্য একটি মেডিকেল কলেজের দাবি জোরালো হয়েছে। পুলিশের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তারা বলছেন, একটি আলাদা পুলিশ বিভাগের দাবি আমাদের অনেক দিনের। পুলিশ বিভাগ আলাদা হলে নিজেদের কাজগুলো নিজেরাই দ্রুত করতে পারব। আমলাতান্ত্রিক জটিলতায় পড়তে হবে না।

কথা হয় পুলিশ সদর দফতরের এআইজি সোহেল রানার সঙ্গে। তিনি বলেন, পুলিশ সপ্তাহের প্রস্তুতির কাজ চলছে। বর্ণাঢ্য নানা আয়োজন থাকবে এ অনুষ্ঠান ঘিরে। বছরজুড়ে পুলিশের যেসব কর্মকর্তা ভালো কাজ করেছেন, তাদের পুরস্কৃত করা হবে। পাশাপাশি পুলিশি সেবার মান বাড়াতে নানা দাবিও তুলে ধরা হবে।

পুলিশ বাহিনীর জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তারা বলছেন, আবাসন পুলিশ সদস্যদের জন্য বড় সমস্যা। অল্পসংখ্যক সিনিয়র পুলিশ কর্মকর্তা আবাসন সুবিধা পেলেও এত বড় বাহিনীর অধিকাংশ সদস্যের কোনো আবাসন সুবিধা নেই। এটি না থাকায় কর্মক্ষেত্রে নানা ধরনের সমস্যায় পড়তে হচ্ছে সদস্যদের। এছাড়াও প্রতিটি থানা ও বিভিন্ন ইউনিটে যানবাহনের অপ্রতুলতা রয়েছে। অপরাধ করে অপরাধীরা যখন দামি গাড়ি হাঁকিয়ে দ্রুত পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে, তখন তাদের ধরতে পুলিশ তাদের পিছু নেয় লক্কড়ঝক্কড় গাড়ি নিয়ে। এতে অনেক সময় অপরাধীরা হাতের নাগালের বাইরে চলে যায়, তাদের ধরা সম্ভব হয় না।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, পুলিশ সপ্তাহ সফলভাবে সম্পন্ন করতে পুলিশ সদর দফতর সার্বিক প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে। পুলিশের কর্তাব্যক্তিরা পৃথক বৈঠক করছেন। সোমবার আইজিপি পুলিশ সদর দফতরে জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাদের নিয়ে বৈঠক করেছেন। সেখানে অতিরিক্ত আইজিপি, ডিআইজিসহ মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনাররা ছিলেন।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের একাধিক কর্মকর্তা বলেন, এবারের পুলিশ সপ্তাহে মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, আবাসন, আইজিপির পদকে ফোর স্টার জেনারেল করার জোরালো দাবি রয়েছে। পুলিশ সপ্তাহ সামনে রেখে পুলিশ কর্মকর্তাদের মধ্যে এসব দাবি নিয়ে আলোচনা হচ্ছে।

এছাড়া পুলিশ বাহিনীর সেবার মান বৃদ্ধি করতে প্রথম শ্রেণী কর্মকর্তাদের পদসংখ্যা বৃদ্ধি করা, আবাসন সংকট দূর করা ও থানাগুলোয় যানবাহন ও লোকবল বাড়ানোর দাবির বিষয়ে আলোচনা হচ্ছে বলেও জানান ওইসব কর্মকর্তা। পুলিশ সদর দফতর সূত্র জানায়, জাতীয় সংসদ নির্বাচনের কারণে নির্ধারিত সময়ে প্রায় এক মাস পরে শুরু হচ্ছে পুলিশ সপ্তাহ। রাজারবাগ পুলিশ লাইনস মাঠে পুলিশ সদস্যদের বর্ণাঢ্য প্যারেডের মধ্য দিয়ে পুলিশ সপ্তাহ উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আর ৮ ফেব্রুয়ারি শেষ হবে এই আয়োজন।সূত্র: দৈনিকশিক্ষা

আপনার মতামত লিখুন

শিক্ষা বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ