শনিবার,২৪শে জুন, ২০১৭ ইং,১০ই আষাঢ়, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সময়: দুপুর ২:৫১

চলচ্চিত্রকে ধ্বংসের চক্রান্ত হচ্ছে : শাকিব খান ভূতের আবদার! শিশুর কান কাটলেন বাবা নচিকেতার ‘পেসমেকার’ অবলম্বনে নাটক ক্রিকেটে এসে গেলো লাল কার্ড! নতুন স্মার্টফোন রিভিউ রাতে রোনালদোদের সেমি-ফাইনাল নিশ্চিত করার ম্যাচ প্রস্তাবিত টেস্ট সিরিজে বাংলাদেশ

পাহাড় ধস নিয়ে খালেদা জিয়া নোংরা রাজনীতি করছেন : হানিফ

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: পাহাড় ধসের ঘটনা নিয়ে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া নোংরা রাজনীতি শুরু করেছেন বলে মন্তব্য সরকারদলীয় এমপি মাহবুব উল আলম হানিফের। আজ রবিবার জাতীয় সংসদে পয়েন্ট অব অর্ডারে বক্তব্য দিতে গিয়ে তিনি এই মন্তব্য করেন।

হানিফ বলেন, রমজানে ইফতারের আগে মানুষ আল্লাহর কাছে কল্যাণ ও শান্তির জন্য দোয়া কামনা করেন। আর খালেদা জিয়া ইফতার সামনে রেখে সরকারের বিরুদ্ধে বিষোদ্গার করছেন। মিথ্যাচার করছেন, কুৎসিত কথাবার্তা বলে নোংরা রাজনীতি শুরু করেছেন।
খালেদা জিয়াকে এই আচরণ বন্ধের আহ্বান জানানোর পাশাপাশি এর বিরুদ্ধে দেশবাসীকে স্বোচ্চার হতে বলেছেন আওয়ামী লীগ নেতা হানিফ।
টানা বৃষ্টিতে গত সপ্তাহে চট্টগ্রাম বিভাগের ৫ জেলায় বিভিন্ন স্থানে পাহাড় ধস ও ঢলে দেড় শতাধিক মানুষের মৃত্যু হয়।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ওই সময় সুইডেনে ৩ দিনের সরকারি সফরে থাকায় গত বৃহস্পতিবার এক ইফতার অনুষ্ঠানে খালেদা জিয়া একে ‘আনন্দ ভ্রমণ’ আখ্যায়িত করেন।
এ জবাবে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হানিফ বলেন, তিনবারের প্রধানমন্ত্রী দাবিদার খালেদা জিয়া কীভাবে একটি সরকারি সফরকে প্লেজার ট্রিপ বলেন? এ ধরনের মন্তব্য মূর্খতার শামিল বলে জনগণ মনে করেন।
তিনি বলেন, পাহাড় ধসের পরপরই সরকার ও আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে উদ্ধার ও পুনর্বাসনের সব ধরনের পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। আমরা দুর্গত মানুষের পাশে গিয়ে দাঁড়িয়েছে। সরকার ও আওয়ামী লীগের পদক্ষেপে সেখানকার জনগণের মধ্যে আস্থা ফিরে এসেছে।
১৯৯১ সালের ২৯ এপ্রিলের প্রলয়ঙ্করী ঘূর্ণিঝড়ের প্রসঙ্গ টেনে হানিফ বলেন, ভয়াবহ সেই ঘূর্ণিঝড়ের চারদিন পর দুর্গত এলাকায় গিয়েছিলেন তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া। তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেতা শেখ হাসিনার বক্তব্যের জবাবে খালেদা জিয়া সে সময় সংসদে বলেছিলেন, ঘূর্ণিঝড়ে যত মানুষ মারা যাওয়ার কথা ছিল- তত মানুষ নাকি মারা যায়নি। ওই ঘূর্ণিঝড়ে প্রায় ২ লাখ মানুষ প্রাণ হারানোর পরও খালেদা জিয়া ওই বক্তব্য দিয়ে প্রমাণ করেছিলেন যে দেশের জনগনের প্রতি তার কোনো দায়িত্ব নেই। জনগণের প্রতি তার কোনো মায়া-মমতা নেই। সেই খালেদা জিয়া আজ আমাদের ওপর দোষারোপ করতে আসেন।
প্রধানমন্ত্রীর সুইডেন সফর প্রসঙ্গে হানিফ বলেন, বাংলাদেশর স্বাধীনতার পর ইউরোপীয় দেশগুলোর মধ্যে প্রথম দিকেই সুইডেন স্বীকৃতি দিয়েছিল। সেই দেশের প্রধানমন্ত্রীর আমন্ত্রণে আমাদের প্রধানমন্ত্রী সেখানে গিয়েছিলেন। প্লেজার ট্রিপ কী- তা খালেদা জিয়া জানেন না? আসলে তার জানার কথাও নয়। তিনি তো পাকিস্তানি সেনাবহিনীর সঙ্গে ছিলেন। উনি সেই সময় (একাত্তরে) ঢাকা ক্যান্টনমেন্টে পাকিস্তানের সেনাদের সাথে প্লেজার ট্রিপে ছিলেন। বাংলাদেশের স্বাধীনতা সম্পর্কে তার জানার কথাও নয়।
হানিফ বলেন, ‘উনি (খালেদা) মানুষ খুনের কথা বলেন। ২০১৫ সালে এ দেশের মানুষেকে পেট্রল দিয়ে পুড়িয়ে মারা হয়েছিল- তা মানুষ ভুলে যায়নি। রক্তপিপাসু ডাইনি খালেদা জিয়া ক্ষমতার জন্য মানুষকে পুড়িয়ে হত্যা করতে কুণ্ঠাবোধ করেননি।
আপনার মতামত লিখুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ