মঙ্গলবার,২৪শে অক্টোবর, ২০১৭ ইং,৯ই কার্তিক, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সময়: বিকাল ৫:১৯

কোহলি-আনুশকার বিয়ে ডিসেম্বরে! বিয়ে করবেন তানজিন তিশা, মনের মতো মানুষ পেলে ৩৪ হাজার ৫৬৭ কোটি ব্যয়ে একনেকে ৫ প্রকল্প অনুমোদন পার্বতীপুরে ১২০ কৃষক খামারী ও মৎস্যচাষি সরকারী খাদ্য সহায়তা পেল খানসামায় দৃষ্টি দিবস পালিত “খুলনায় ইসলামী আন্দোলনের জনসভা আজ” পার্বতীপুরে নিখোঁজের তিন দিন পর পুকুর থেকে কিশোরের লাশ উদ্ধার

অটোমেটেড প্যাশেন্টস কেয়ার যেখানে রুগী আচমকা র্হাটআটাক থেকেও রক্ষা পেতে পারেন !

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক :   বিশ্ববিদ্যালয়ের সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ছাত্র পার্বতীপুরের কৃতি সন্তান জয় সহ একই বিভাগের আরো দুই ছাত্রের সহযোগীতায় “ইন্টেলিজ্যান্ট ইর্মাজেন্সি প্যাশেন্ট সার্পোট সিস্টেম” মেশিন তৈরি করে কৃতিত্বের স্বাক্ষর রেখেছেন। সম্প্রতি অনুষ্ঠিত ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের আয়োজিত আপস বানানোর প্রতিযোগিতায় হেলথ ক্যাটাগরিতে ২৪ ঘন্টার একটানা এ প্রতিযোগিতায় রাতে না ঘুমিয়ে তিন জনেই তাদের আইডিয়াটিকে ডেভেলপ করেন, হার্ডওয়্যার এর প্রস্তুতি, সংযোজন ও মোবাইল আপস তৈরি করেন এবং বাস্তব হাসপাতালের ডায়াগ্রাম দেখিয়ে প্রমান করিয়ে দেন যে তাদের আইডিয়াটি বাস্তব জীবনের সাথে কতটাই ওতোপ্রোতভাবে জরিত ও গুরুত্ব বহন করে। এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে তাদের টিম চাম্পিয়ন হয়। ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ৫ম সেমিস্টার এর ছাত্র দিনাজপুর জেলার পার্বতীপুর উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের বড় বৃত্তি পাড়া গ্রামের মো: আখতার হোসেনের পুত্র এ, জেড, এম, জালাল উদ্দীন জয় ও একই বিশ্ববিদ্যালয়ের সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শেষ বর্ষের ছাত্র মোঃ মনিরুজ্জামান সজল এবং একই বিভাগের ৫ সেমিস্টারের ছাত্র মো: আসরাফুজ্জামান মিলে দির্ঘদিন প্রচেষ্টা চালিয়ে তাদের উদ্ভাবিত “ইন্টেলিজ্যান্ট ইর্মাজেন্সি প্যাশেন্ট সার্পোট সিস্টেম” তৈরির মাধ্যমে বর্তমান যুগের যথেষ্ট আলোচিত হয়েছেন।

তাদের উদ্ভাবিত এই মেশিনটি হঠাৎ কোন রোগির হার্ট এটাক প্রেভেন্ট করতে সক্ষম। সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতাল গুলোর জন্য এটি একটি অভিনব সংযোজন হতে পারে। সেখানে ডাক্তার ২৪ ঘন্টা রোগীর সাথে উপস্থিত থাকতে না পারলেও বাসায় বসে রোগীর সেবা নিতে পারবেন। রোগীটির অস্বাভাবিক শ্বাস প্রশ্বাস হচ্ছে কিনা, বেশি ঘামছে কিনা, হঠাৎ দেহের তাপমাত্রা বেড়ে গেলো কি না, রোগীটির গলার টিউন ঠিক আছে কিনা, তার রক্তে দ্রবীভূত অক্সিজেনের পরিমান কত, তার হৃদ-স্পন্দনের মাত্রা প্রভৃতি সংরক্ষন করে ক্লউড স্টোরেজে পাঠানো হবে এবং অস্বাভাবিক কিছু ধরা পরলেই ডাক্তার আর নার্সের ব্যাবহারকৃত আপসে খবর চলে যাবে। তখন সাথে সাথেই নার্স রোগীর কাছে চলে আসতে পারবে এবং ডাক্তার তৎক্ষনাত রোগীর চিকিৎসা হিসেবে আপসের মাধ্যমে ওষুধ সিলেক্ট সহ যথেষ্ট নির্দেশনা দিতে সক্ষম হবে। আর এই নির্দেশনায় রোগীর কক্ষে অবস্থিত ইন্টেলিজ্যান্ট রোবোটিক ট্রলি ও স্মার্ট মেডিসিন র‌্যাক তথ্য পেয়ে যাবে এবং স্মার্ট মেডিসিন র‌্যাক থেকে সিলেক্টেট ওষুধগুলো আপনা থেকে বেড়িয়ে পড়বে ইন্টেলিজ্যান্ট রোবোটিক ট্রলিতে। এছাড়াও শিডিউল অনুযায়ী রোগীর তিন বেলা কখন কখন কোন রোগীর কোন ওষুধ দরকার, সেটি আপনা থেকে করতে সক্ষম তাদের এই প্রজেক্টের মাধ্যমে।
ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির মেইন ক্যাম্পাসে আয়োজিত গত ১৯ও ২০ মে এর এই প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হওয়া এ জেড এম জালাল উদ্দীন জয়, মো. মনিরুজ্জামান সজল এবং মো: আসরাফুজ্জামান চ্যাম্পিয়ন পুরষ্কার হাতে তুলে নেওয়ার সময় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের হেড প্রফেসর ড. মো. তৌহিদ ভূইয়ান, ডেটাসফট সিস্টেমস এর মেইন ডিরেক্টর মাহাবুব জামান, মাইক্রোসফট বাংলাদেশের ম্যানেজিং ডিরেক্টর সোনিয়া কবির বশির, ড্যাফোডিলের বিদেশি প্রফেসর তাকাওশি সুজুকি (জাপান) প্রমুখ ব্যাক্তি বর্গ। ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিংবিভাগের এই তিন ছাত্রের উদ্ভাবিত “ইন্টেলিজ্যান্ট ইর্মাজেন্সি প্যাশেন্ট সার্পোট সিস্টেম” বাস্তবে ইমপ্লিমেন্ট করে ব্যাবহার উপযোগী করতে অনেক ফান্ডের প্রয়োজন। যথেষ্ট ফান্ডের সহায়তায় প্রজেক্টি দেশীয় কোটি টাকার সম্পদে রূপ নিতে পারে।

আপনার মতামত লিখুন

রংপুর,শিক্ষা,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ