শনিবার-২৩শে মার্চ, ২০১৯ ইং-৯ই চৈত্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: বিকাল ৪:৩৭
লালমনিরহাটে একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে চাঁদা দাবী, শিক্ষক-কর্মচারী আতংকে লালমনিরহাটে একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে চাঁদা দাবী, শিক্ষক-কর্মচারী আতংকে গাইবান্ধায় বিএনপি মরহুম নেতাদের জন্য শোকসভা ও দোয়া মাহাফিল অনুষ্ঠান খানসামায় বিজ্ঞান মেলার শুভ উদ্বোধন মুক্তিযোদ্ধা সনদ বাতিল ৬০ সরকারি কর্মকর্তার কলকাতায় কালবৈশাখী ঝড়, বজ্রপাতে দুজন নিহত ১০ উপজেলায় সম্পূর্ণ ইভিএমে ভোট, থাকবে সেনা

পাকিস্তানে নির্বাচনী সমাবেশে আত্মঘাতী হামলায় নিহত ১৪

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক:  পাকিস্তানের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর পেশওয়ারে এক নির্বাচনী সমাবেশে এক আত্মঘাতী হামলায় কমপক্ষে ১৪ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন কমপক্ষে ৬৫ জন। মঙ্গলবার আওয়ামি ন্যাশনাল পার্টির (এএনপি) এক প্রচারণা অনুষ্ঠানে এই হামলা চালানো হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ। খবর আল জাজিরার।
পুলিশকে উদ্ধৃত করে খবরে বলা হয়, হামলায় নিহতদের মধ্যে হারুন বিলুর নামের একজন স্থানীয় রাজনীতিবিদও রয়েছেন। তিনি আগামী ২৫ জুলাই অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনে একজন প্রাদেশিক পরিষদ প্রার্থী ছিলেন। তার বাবা ও বিশিষ্ট এএনপি রাজনীতিবিদ বশির বিলুরও ২০১২ সালে এক আত্মঘাতী হামলায় নিহত হন।
পুলিশ জানিয়েছে, বিলুর  তার সমর্থকদের উদ্দেশ্যে ভাষণ দেওয়া শুরু করার আগ মুহূর্তেই এই আত্মঘাতী বোমা হামলা চালানো হয়েছে।
পুলিশ কর্মকর্তা শাফাকত মালিক বলেন, প্রাথমিক তদন্ত শেষে আমাদের কাছে মনে হয়েছে এটা হারুন বিলুরকে টার্গেট করে চালানো একটি আত্মঘাতী হামলা ছিল। তাৎক্ষনিকভাবে কোন গোষ্ঠী হামলার দায় স্বীকার করেনি।
খাইবার-পাখতুনখুয়া প্রদেশে বিলুরের পরিবারের ব্যাপক প্রভাব বিদ্যমান। আল জাজিরার প্রতিবেদক কামাল হায়দার জানান, বিলুর যখন তার গাড়ি থেকে নামেন, আত্মঘাতী বোমারু তখন তার অদূরেই ছিল।
উল্লেখ্য, ২০১৩ সালের নির্বাচনে তালিবানদের প্রধান টার্গেট ছিল এএনপি।
কয়েকদিন আগেই সামরিক কর্মকর্তারা হুঁশিয়ারি দিয়ে জানিয়েছিলেন যে, নির্বাচনের আগে পাকিস্তানের শীর্ষ নেতারা জঙ্গি হামলার শিকার হতে পারেন। সূত্র: দৈনিক ইত্তফাক
আপনার মতামত লিখুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ