সোমবার,১৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ইং,৬ই ফাল্গুন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: সকাল ৭:৩৬
নাটোরে অস্ত্রসহ দুই যুবক আটক উৎসবমূখর পরিবেশে শৈলকুপা প্রেসকাবের নির্বাচন সম্পন্ন লিটন সভাপতি ও শিহাব সম্পাদক নির্বাচিত সহযোগিতা করলে সীমান্তে মাদক চোরাচালান, নারী-শিশুপাচার ও সীমান্ত হত্যাবন্ধ হবে॥ -লে: কর্ণেল এসএম রেজাউর রহমান(পিএসসি) জলবায়ুর বিরূপ প্রভাব মোকাবেলায় ‘সদিচ্ছা’ প্রদর্শনের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর হিলিতে সাংবাদিকদের সাথে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী হারুনের মতবিনিময় অর্থ প্রাপ্তি সাপেক্ষে দুই হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তি যুবককে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা যশোরে

‘পর্বতের’ সামনে চিলিচ!

2 years ago , বিভাগ : খেলাধুলা,

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: পুরুষ উইম্বলডনে সবচেয়ে বেশিবার চ্যাম্পিয়ন কে? উত্তরে এত দিন নাম নিতে হতো তিনজনের। উন্মুক্ত যুগের পিট সাম্প্রাস ও রজার ফেদেরারের সঙ্গে উচ্চারণ করতে হতো টেনিসের উন্মুক্ত-পূর্ব যুগের উইলিয়াম রেনশর নামটিও। তিনজনেরই উইম্বলডন শিরোপা ৭টি। কিন্তু আজ থেকে এই প্রশ্নের উত্তর হতে পারে একটিই—রজার ফেদেরার। এমনই এক ইতিহাসের সামনে দাঁড়িয়ে সুইস এই টেনিস তারকা।

পুরুষ এককের ফাইনালে আজ ফেদেরার জিতলেই রেকর্ড অষ্টম শিরোপা হয়ে যাবে তাঁর। সেই সঙ্গে আঁকিবুঁকি কাটা হবে টেনিস রেকর্ড বইয়ের পাতায় পাতায়। আরও বড় যে দুটি রেকর্ড হবে—

বয়োজ্যেষ্ঠ চ্যাম্পিয়ন: ১৯৭৫ সালে ৩১ বছর বয়সে উইম্বলডন জিতে এখন পর্যন্ত টুর্নামেন্টের বয়োজ্যেষ্ঠ চ্যাম্পিয়ন আর্থার অ্যাশ। তাঁকে ছাড়িয়ে ৩৫ বছর ১১ মাস ৮ দিন বয়সে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার নতুন রেকর্ড গড়বেন ফেদেরার।

সবচেয়ে বেশি গ্র্যান্ড স্লাম শিরোপা: পিট সাম্প্রাসকে (১৪) ছাড়িয়ে যাওয়ার পর থেকেই রেকর্ডটি রজার ফেদেরারের দখলে। বর্তমানে ১৮টি গ্র্যান্ড স্লাম জয়ের রেকর্ডটিকে ফেদেরার উন্নীত করবেন ১৯-এ।

এতসব রেকর্ডের সামনে দাঁড়িয়ে থাকা ফেদেরার কোর্টের প্রতিপক্ষের কাছে প্রতিদ্বন্দ্বীর চেয়েও বেশি কিছু। আজ ফাইনালের প্রতিপক্ষ মারিন চিলিচ কাছে তো ফেদেরার মানেই টেনিসের ‘মহাপর্বত’। ফেদেরারকে হারানো কতটা কঠিন, সেটা বোঝাতে গিয়েই ক্রোয়েশিয়ার চিলিচ মহাপর্বতের প্রসঙ্গ টানলেন, ‘এটা এক মহাপর্বতে ওঠার মতোই ব্যাপার। দুর্দান্ত একটা মৌসুম কাটাচ্ছে সে। খেলছে সম্ভবত ক্যারিয়ার-সেরা টেনিসটাই।’

ঠিকই বলেছেন চিলিচ। টুর্নামেন্টের শুরু থেকেই দুর্দান্ত খেলছেন ফেদেরার। একটি সেটও হারেননি। শুধু উইম্বলডনেই নয়, মৌসুমের শুরু থেকেই ফেদেরার চেনা ছন্দে। হাঁটুর চোট কাটিয়ে জানুয়ারিতে ফিরেই জিতেছেন অস্ট্রেলিয়ান ওপেন। এরপর জিতেছেন দুটি মাস্টার্স। মধ্যতিরিশেও তাঁর এমন ধারাবাহিকতা কেউ কি ভাবতে পেরেছিলেন? খোদ ফেদেরারই যে নিজেকে নিয়ে বিস্মিত, ‘অস্ট্রেলিয়ান ওপেন, ইন্ডিয়ান ওয়েলস ও মায়ামি মাস্টার্স জিতে আমিই বিস্মিত। আশা করেছিলাম ঘাসের কোর্টের মৌসুম শুরুর আগেই ভালো অবস্থায় ফিরতে পাবর।’ কিন্তু সেটি যে এত ভালো হবে কে জানত? ‘প্রথম তিন-চার মাস যেভাবে কাটল সেটি সত্যিই স্বপ্নের মতো। উইম্বলডনের আগে এই বিশেষ সময়টার জন্যই আমার খাটাখাটুনি। আমি খুশি যে পরিশ্রমের ফল এখন পাচ্ছি। কিন্তু শুরুটা এতই ভালো হয়েছে যে অবাস্তব মনে হয়।’

এই স্বপ্নযাত্রার বাঁকে আজ গ্র্যান্ড স্লামের ১৯তম ট্রফিটাও চাই ফেদেরারের। বাজিকরদের ফেবারিট তিনিই। উইম্বলডনের দর্শকদের কাছেও। আর মুখোমুখি লড়াইয়েও চিলিচের চেয়ে এগিয়ে ফেদেরার। আগের সাত সাক্ষাতের ছয়টিতেই জিতেছেন ফেদেরার। আজ ‘সপ্তম’ জয়টি তুলে নিয়ে সাত ছাড়িয়ে পা রাখবেন উইম্বলডনের আটে। ফেদেরারের এই চাওয়াটা যেন বিশ্ব টেনিসেরই চাওয়া! এএফপি।

আপনার মতামত লিখুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ