মঙ্গলবার-১৯শে মার্চ, ২০১৯ ইং-৫ই চৈত্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: বিকাল ৩:৩৮
চিরিরবন্দরে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিজয়ী হলেন যারা ফুলছড়ি প্রিজাইডিং অফিসারকে লাঞ্ছিত করার অপরাধে স্বতন্ত্র প্রার্থী আটক নীলফামারীতে তিন দিনব্যাপী বই মেলা শুরু লালমনিরহাটে ১ সন্তানের জননীর আত্মহত্যা হাকিমপুরে প্রতিপক্ষের লাঠির আঘাতে এক বৃদ্ধা আহত লালমনিরহাট আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসটি দালালদের হাতে জিম্মি- পাসপোর্ট প্রার্থীরা হয়রানীর শিকার জিনমিক্স পদ্ধতিতে চিকিৎসা নিয়ে আইইউবিতে সেমিনার

ন্যায় নিষ্ঠার স্বীকৃতি পেলেন উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা তাপস রায়

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেক্সঃ
এবারে সমাজসেবায় পেশাগত দায়িত্বে পালনে বিশেষ অবদান রাখায় শ্রেষ্ট কর্মকর্তা হিসেবে স্বীকৃতি পেলেন উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা তাপস রায়। তিনি হলেন, দিনাজপুর জেলার পার্বতীপুর উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা।
গত ৫ জানুয়ারি ২০১৮ জাতীয় সমাজসেবা দিবসে ঢাকা আগারগাঁও সমাজসেবা অধিদপ্তর হলরুমে তার নাম ঘোষনা করা হয়। ৪৯১ উপজেলার সমাজসেবা কার্যালয়ের কর্মকর্তাদের দায়িত্ব, কর্মকান্ডসহ সার্বিক বিষয়ে পর্যবেক্ষণ করে এ পুরষ্কার প্রদান করা হয়। সংবর্ধনা, পুরষ্কার, ক্রেষ্ট ও সনদপত্র প্রদান করেন। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সমাজ কল্যাণ মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন। এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সমাজসেবা অধিদপ্তরের মহা-পরিচালক ও অতিরিক্ত সচিব রুপন কান্তি শীল।
তাপস রায় ১৯৯৮ সালে এসএসসি পাস করে। ২০০০ সালে এইচএসসি পাশ করে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যাল ভর্তি হন। ২০০৬ সালে অর্নাস পাশ করে। ২০১২ সালে সমাজসেবা অধিদপ্তরের আওতায় উপজেলা সমাজসেবা অফিসার হিসেবে চাকুরীতে যোগদান করে। প্রথমে তিনি নওগা জেলার ধামুরহাট উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত ছিলেন। পরে ২০১৭ সালের ৭ ফেব্রুয়ারী পার্বতীপুর উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা হিসেবে যোগদান করেন। তার বাড়ী নীলফামারী জেলার সদর উপজেলার গোরপাড়া গ্রাম নিজপাড়ায়। তার বাবা একজন সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক। পার্বতীপুর উপজেলার পলাশবাড়ী ইউনিয়নের আটরাই গ্রামের রেজাউল করিম বলেন, উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা তাপস রায় হলেন একজন ন্যায় ও নিষ্ঠাবান মানুষ। তিনি কোন মানুষের কাছ কোন প্রকার ঘুষ বা অবৈধ লেনদেন করেন না। কোন কাজে অফিসে গেলেই দ্রুত কাজ করে দেয়ার চেষ্টা করেন। স্বীকৃতিপ্রাপ্ত আলোর পথে প্রতিবন্ধি বিদ্যালয়ের সিনিয়র সহকারী শিক্ষক মনজুরুল ইসলাম বলেন, আমি একজন অন্ধ ব্যক্তি। তার কাছে কোন কাজে গেলে তিনি যে ভাবে আমাদের কাজ করে দেন আমি অভিভুত হযে যাই। তিনি যেন প্রতিবন্ধিবান্ধব ব্যক্তি। উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান সাহিদা খাতুন বলেন, তাপস রায় একজন ন্যায় পরায়ন দেশ প্রেমিক কর্মকর্তা। তার অফিসে কোন মানুষ হয়রানির শিকার হয় না।
শ্রেষ্ট কর্মকর্তা হওয়ার বিষয়ে তাপস রায় বলেন- আমার মা-বাবার দোয়া ও দিনাজপুর জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক ষ্টিফেন মূর্ম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তরফদার মাহমুদুর রহমান, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম, উপজেলা প্রশাসন ও সমাজসেবা কার্যালয়ের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সার্বিক সহযোগিতায় কাজ করার ও সঠিক সেবা প্রদান করায় আজ আমি শ্রেষ্ট কর্মকর্তা হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছি।

আপনার মতামত লিখুন

রংপুর,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ