শনিবার,২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ইং,৮ই আশ্বিন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সময়: সকাল ১১:৩৬

শাবিপ্রবিতে গবেষণা খাতে ২৫ লাখ টাকা দিল পূবালী ব্যাংক পাকিস্তানি অভিনেত্রীর প্রেমে পড়েছেন রণবীর ‘গোলমাল অ্যাগেইনে’র ট্রেইলার প্রকাশ স্ত্রীর চিকিৎসার জন্য অনন্ত জলিলের দ্বারস্থ এফআই মানিক পাকিস্তানের এনবিপি ব্যাংকের দুর্নীতিতে কয়েকজন বাংলাদেশি জড়িত? চট্টগ্রামে কমার্স ব্যাংকের নতুন শাখার উদ্বোধন চুক্তি লঙ্ঘন করায় পাকিস্তানকে কড়া হুঁশিয়ারি দিল ভারত

নিজস্ব মহাকাশ স্টেশন গড়ার পরিকল্পনা নিয়ে এগিয়ে চলেছে চীন

jjjjjjমুক্তিনিউজ২৪.কম ডেক্স: চীন নিজের মহাকাশ স্টেশন গড়ে তোলার পরিকল্পনা করেছে। আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশন বা আইএসএস’এর আদলে এটি গড়ে তোলা হবে। এ ছাড়া, নতুন মহাকাশ স্টেশন উৎক্ষেপণ ও মহাকাশ প্রযুক্তি নিয়ে গবেষণার জন্য নতুন একটি কেন্দ্রও গড়ে তোলা হচ্ছে। এরই মধ্যে নতুন রকেট উৎক্ষেপণে সফল হয়েছে চীন। এর ভিত্তিতে মহাকাশ স্টেশন নির্মাণের কাজ ২০১৮ সাল থেকে শুরু করা হবে।

মহাকাশ বিজ্ঞানের ক্ষেত্রে চীন হয়ত নেতৃত্বদানকারী ভূমিকা পালন করবে এবং এতে জাপানও অংশ নেবে। ধারণা করা হচ্ছে, আইএসএস কর্মসূচিকেও ছাড়িয়ে যেতে চীনের মহাকাশ কর্মসূচি ।

চীনের মহাকাশ স্টেশনের নাম রাখা হয়েছে তিয়াংগং। এটি পৃথিবী থেকে ৪০০ কিলোমিটার উপরে স্থাপন করা হবে। এতে সব সময়ই তিনজন মহাকাশচারী থাকবেন। প্রতি ছয় মাস পর পর তিয়াংগং’এর মহাকাশচারীদের পরিবর্তন করা হবে। বিজ্ঞান গবেষণার পাশাপাশি অন্যান্য কাজ করবেন তারা। অবশ্য এতে একত্রে ছয় মহাকাশচারীর বসবাসের ব্যবস্থা রাখা হবে। ইউরোপও তাদের মহাকাশচারীদের চীনা মহাকাশ স্টেশনে পাঠানোর আগ্রহ দেখাচ্ছে।

এ ছাড়া, চীন পৃথিবীর নিকটস্থ কক্ষপথে উচ্চ প্রযুক্তির দুরবিনও বসাবে। কর্মতৎপরতার দিক থেকে নাসার হাবল মহাকাশ দুরবিনের মতই হবে এটি। ডার্ক ম্যাটার বা কৃষ্ণ পদার্থসহ অন্যান্য মহাজাগতিক রহস্য উন্মোচনে ভূমিকা রাখবে এটি। এদিকে ২০২৪ সালের পর নিজ মহাকাশ স্টেশন চালু করার বিষয়ে চিন্তা ভাবনা করছে রাশিয়া।

আপনার মতামত লিখুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ