বৃহস্পতিবার,১৪ই ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং,৩০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ১২:৪৬
অবকাঠামো ও জ্বালানি খাতে ফরাসি বিনিয়োগের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর পার্বতীপুরে শিক্ষক সমিতির ত্রিবার্ষিক কাউন্সিল সম্পন্ন সৈয়দপুরে স্কুল মাঠে পাথড় ও পিচ গলানো হচ্ছে পার্বতীপুরে মধ্যপাড়া পাথর খনির ৪৫ শ্রমিক পুরস্কৃত এবার হাইকোর্টে ক্ষমা চাইলেন লক্ষ্মীপুরের সেই এডিসি মগবাজারে গ্যাসের আগুনে দগ্ধ ৩ সেলুনকর্মী তাঁরা এলেন ‘ম্যাজিস্ট্রেট’ হয়ে, গেলেন আসামি হয়ে

দিনাজপুরে ২ দিনের টানা বর্ষনে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত ॥ আমদানী-রপ্তানী কার্যক্রম ব্যাহত ॥ প্রধান দুটি নদীর পানি বিপদসীমা ছুইছুই করছে


দিনাজপুর  প্রতিনিধি ॥ দিনাজপুরে ২ দিনের টানা বর্ষনে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। জনজীবন বিপর্যস্ত হওয়ায় দিনমজুরদের কষ্ট বেড়েছে। হিলিস্থলবন্দরের কার্যক্রম চরমভাবে ব্যাহত। গত ২৪ ঘন্টায় বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে ২১২ মিলি মিটার। প্রধান দুটি নদীর পানি বিপদসীমা ছুইছুই করছে।
শুক্রবার ও শনিবার ২ দিন টানা বর্ষনে দিনাজপুরের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। নিচু এলাকার রাস্তাঘাট, বাড়ী-ঘর পানিতে ডুবে গেছে। শুক্রবার রাত থেকে শনিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত টানা ভারী বর্ষনের বেগ ছিল প্রবল। থেমে থেমে বৃষ্টি হওয়ায় জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। দিন মজুরদের কাটাতে হয়েছে কর্মহীন সময়। অধিকাংশ দোকানপাট বন্ধ ছিল। রাস্তাঘাটে লোক চলাচল ছিল কম। বৃষ্টির কারণে যানবাহনের সংখ্যাও আশঙ্কাজনকহারে হ্রাস পায়।
জেলা আবহাওয়া অফিসের পর্যবেক্ষক অরজিৎ কুমার রায় জানান, শুক্রবার বিকেল ৩টা থেকে শনিবার বিকেল ৩টা পর্যন্ত বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে ২১২ মিলি মিটার। আগামী ২৪ ঘন্টায় আরো বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে বলে তিনি জানান।
এদিকে দেশের অন্যতম স্থলবন্দর হিলিতে অবিরাম বর্ষনে আমদানী-রপ্তানী কার্যক্রম মারাত্মকভাবে ব্যাহত হচ্ছে। টানা বর্ষনে উপজেলা পরিষদ, চারমাথা, সোনারপট্টি, উপজেলা হাসপাতাল, কলেজ এবং পানামা পোর্ট লিংক অফিসের সামনের সড়কের উপর দিয়ে ২ থেকে ৩ ফুট পানি প্রবাহিত হচ্ছে। এছাড়া হিলি বাজারের কয়েকশ বাসাবাড়ীতে পানি প্রবেশ করায় প্রায় ৩০ হাজার মানুষ পানিবন্দী হয়েছেন। পানিবন্দী এসব মানুষেরা ঘর ও অফিসের আসবাবপত্র অন্যত্র সরিয়ে নিলেও অনেককে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।
দিনাজপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের সেকশন কর্মকর্তা সিদ্দিকুর জামান জানান, পূর্ণভবা নদীর পানি ৩৩ দশমিক ১০ সেন্টিমিটার ও আত্রাই নদীর পানি ৩৯ দশমিক ৫ সেন্টিমিটার উচ্চতায় প্রবাহিত হচ্ছে। নদী দুটির বিপদসীমা যথাক্রমে ৩৩ দশমিক ৫০ সেন্টিমিটার ও ৩৯ দশমিক ৬০ সেন্টিমিটার।

আপনার মতামত লিখুন

রংপুর,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ