বুধবার,১৮ই জুলাই, ২০১৮ ইং,৩রা শ্রাবণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: দুপুর ১২:৩০
পার্বতীপুরে ৩ দিন ব্যাপি ফলদ বৃক্ষ মেলার উদ্বোধন মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের কোটার বিরুদ্ধেই সাম্প্রতিক আন্দোলন : প্রধানমন্ত্রী দেশ গড়তে জাপানের অভিজ্ঞতা কাজে লাগাতে হবে : শিক্ষামন্ত্রী অবশেষে বয়সসীমার বাধ্যবাধকতা আসছে কারিগরি ও মাদ্রাসায় শিক্ষক নিয়োগে সুস্থতার জন্য চাই নিয়ন্ত্রিত জীবন ৮ শিক্ষা কর্মকর্তাকে কলেজে সংযুক্তি ‘ভাতায় খাদ্য কিনতে পারবেন কিন্তু কাজ আপনাকে করতে হবে’

দারাজ এখন চীনের আলিবাবা গ্রুপের সদস্য

2 months ago , বিভাগ : অর্থনীতি,

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক:  বাংলাদেশ, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, মিয়ানমার ও নেপালে ই-কমার্স কম্পানি দারাজকে কিনে নিয়েছে বিখ্যাত চায়নিজ ই-কমার্স কম্পানি আলিবাবা। এখন আলিবাবা গ্রুপের সদস্য দারাজ। সম্প্রতি এসংক্রান্ত চুক্তি স্বাক্ষরের ফলে আলিবাবার অভিজ্ঞ নেতৃত্বে প্রযুক্তি, অনলাইন কমার্স, মোবাইল পেমেন্ট এবং লজিস্টিকসে লাভবান হবে দারাজ, যা নিশ্চিত করবে দক্ষিণ এশীয় এই পাঁচটি দেশের সফল উন্নতি ও অগ্রগতি। এই পাঁচটি দেশের মোট জনসংখ্যা ৪৬ কোটিরও বেশি, যার মধ্যে ৬০ শতাংশ মানুষের বয়স ৩৫-এর নিচে।

গত সপ্তাহে দেশের সবচেয়ে বড় মোবাইল ব্যাংকিং সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান বিকাশের ২০ শতাংশ শেয়ার কিনেছে চীনের এই জায়ান্ট কম্পানি। সেখানে বিকাশের সঙ্গে কৌশলগত অংশীদার হিসেবে কাজ করবে আলিবাবা। আলিবাবার কাছে বিক্রি হলেও দারাজের ব্র্যান্ড নামে কোনো পরিবর্তন আসবে না বলে জানিয়েছেন দারাজ বাংলাদেশের শীর্ষ পর্যায়ের এক কর্মকর্তা।

দারাজের কো-সিইও বিয়ার্কে মিক্কেলসেন বলছেন, ‘যেকোনো জায়গায় ব্যবসাকে সহজ করতে পারার উদাহরণ দারাজ। এখন পর্যন্ত এর বিপুল সম্ভাবনার ছোট্ট একটি অংশকে ছুঁতে পেরেছি আমরা। চুক্তি হয়েছে, দারাজ এখন আলিবাবা পরিবারের।’

দারাজের আরেক কো-সিইও ড. জনাথন ডোয়ার জানিয়েছেন, আলিবাবার সঙ্গে হাতে হাত মিলিয়ে এ অঞ্চলের উদ্যোক্তাদের ক্ষমতায়ন করা হবে।

২০১২ সালে কার্যক্রম শুরু করে দারাজ এবং সময়ের সঙ্গে সঙ্গে এটি সর্বাধিক জনপ্রিয় অনলাইন শপিং গন্তব্য হিসেবে প্রতিষ্ঠা লাভ করে। বর্তমানে কম্পানিটি সফলভাবে অনলাইন মার্কেটপ্লেস পরিচালনা করছে বাংলাদেশ, পাকিস্তান, মিয়ানমার, শ্রীলঙ্কা ও নেপালে।

রকেট ইন্টারনেট ও কাতারের ওরিডু গ্রুপের মিলিত ভেঞ্চার হিসেবে ২০১৫ সালে শুরু হয় এশিয়া প্যাসিফিক ইন্টারনেট গ্রুপ বা এপিএসিআইজি। এশিয়ার উদীয়মান যত ইন্টারনেটভিত্তিক ব্যবসার সুযোগ রয়েছে সেগুলোকে কাজে লাগানোকেই লক্ষ্য করে তারা যাত্রা শুরু করেছিল। এপিএসিআইজি এ পর্যন্ত বেশ কিছু কম্পানি দাঁড় করায়, যার মধ্যে এই লামুডি, দারাজ, লাজাডা, জালোরা ও অন্যান্য ভেঞ্চারের নাম উল্লেখযোগ্য।

সূত্র: কালের কন্ঠ

আপনার মতামত লিখুন

অর্থনীতি বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ