বৃহস্পতিবার,২১শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ইং,৬ই আশ্বিন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সময়: দুপুর ১:০৬

মোকামে চালের দর কিছুটা কমেছে, প্রভাব নেই খুচরা বাজারে সোনার দাম বাড়ার পর এবার কমলো শাবিপ্রবিতে ‘মেকানিক্যাল ইননোভেশন’ শুরু ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ০৫:৪১ জাবি ছাত্রলীগের হল কমিটি হবে কবে? জবিতে ‘বি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা শুক্রবার চার দিনের দিবারাত্রির টেস্ট! আরো ৫০ হাজার মেট্রিক টন চাল আমদানি করবে বাংলাদেশ

ত্রাণ বিতরণে গাফিলতি পেলে ব্যবস্থা: মায়া

file (4) মুক্তিনিউজ ২৪.কম ডেস্ক : বানভাসী মানুষের ত্রাণ নিয়ে ছিনিমিনি খেললে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না বলে কড়া হুঁশিয়ারি দিয়েছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া। তিনি বলেছেন, ‘ত্রাণের কোনো অভাব নেই। পর্যাপ্ত ত্রাণ মজুদ আছে। ত্রাণ বিতরণে যদি কারো গাফিলতি পাওয়া যায় তাহলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

আজ সোমবার মানিকগঞ্জের শিবালয় উপজেলার তেওতা ইউনিয়নের জাফরগঞ্জে বন্যাকবলিত মানুষের মাঝে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ শেষে তিনি এ কথা বলেন। এসময় ত্রাণমন্ত্রী আরও বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বন্যার সার্বিক পরিস্থিতি সবসময় পর্যবেক্ষণ করছেন। বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থরা যেন ত্রাণসহ সার্বিক সহযোগিতা পান প্রধানমন্ত্রী সে ব্যাপারে নির্দেশ নিয়েছেন।’

ত্রাণমন্ত্রী বলেন, ‘দুর্যোগকালীন সময় সরকারি কর্মকর্তা ও জনপ্রতিনিধিরা বন্যাদুর্গতদের পাশে না দাঁড়ালে তাদের জবাবদিহি করতে হবে। বন্যার পানি নেমে গেলেও সরকার বন্যা দুর্গতদের পুনর্বাসন কার্যক্রম অব্যাহত রাখবে।’ এ সময় সকল ভেদাভেদ ভুলে বন্যার্তদের পাশে দাঁড়াতে সমাজের বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি।

আজ মন্ত্রী মানিকগঞ্জের বন্যা দুর্গতদের জন্য ২০ লাখ টাকা ও ২০০ টন চাল বরাদ্দ দেন। এ নিয়ে এই জেলায় মোট ৩২ লাখ টাকা ও ৩৭৫ টন চাল বরাদ্দ করা হলো। এর আগে ১২ লাখ টাকা ও ১৭৫ টন চাল বরাদ্দ দেয়া হয়েছিল। বন্যায় মানিকগঞ্জের সাতটি উপরজেলার মধ্যে শিবালয়, হরিরামপুর, দৌলতপুর ও ঘিওরসহ ছয়টিই বন্যা কবলিত। এসব উপজেলার ২৩ হাজার ৭০০ পরিবার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এর মধ্যে ৫৫৫ পরিবার নদীভাঙনের শিকার হয়েছেন। এছাড়া ১৯৯টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও ৩৫টি ইউনিয়ন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন

জাতীয় বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ