শুক্রবার,১৮ই জানুয়ারি, ২০১৯ ইং,৫ই মাঘ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: দুপুর ১২:১১
হজ যাত্রীদের বিমান ভাড়া কমলো ১০ হাজার ১৯১ টাকা শনিবারের জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন স্থগিত সুশাসন প্রতিষ্ঠায় দুর্নীতিমুক্ত প্রশাসন গড়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর বরিশালে মাদকাসক্ত ছেলেকে পুলিশে সোর্পদ করলেন মা সৈয়দপুরে ছাদ থেকে পড়ে কলেজ ছাত্রীর মৃত্যু ‘গ্রাজ্যুয়েটরা কেরানি হওয়ার স্বপ্ন দেখলে চলবে না’ ডোমারে গোমনাতী মহাবিদ্যালয়ে নবীণ বরণ অনুষ্ঠিত।

তৃণমূল সাংসদ এখন বিজেপিতে

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: ভারতে লোকসভা নির্বাচনের আবহে পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি শুরু করল দল ভাঙনের খেলা এবং তুলে নিল মমতা ব্যানার্জির দলের সাংসদকে সমিত্র খাঁ কে।

আজ দিল্লিতে তৃনমূলের সাংসদ সউমিত্র বাবু বিজেপির দপ্তরে গিয়ে নরেন্দ্র মোদির দলে যোগদান করেন। আর তার কিছু সময়ের মধ্যেই পশ্চিমবঙ্গের বিজেপির সভাপতি দিলিপ ঘোষ বলেন “আজ বউনী করলাম… এবার দেখুন আরো কতজন তৃণমূল থেকে বিজেপিতে যোগদান করে”।

দীর্ঘদিন ধরেই পশ্চিমবঙ্গে গুজব ছিল যে বেশ কিছু তৃণমূলের নির্বাচিত প্রতিনিধি বিজেপিতে যোগদান করবেন। যদিও অনেক ছোট মাঝারি নেতারা তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে গেছেন, এই প্রথম কোনো সাংসদ দল ত্যাগ করে বিজেপিতে গেলেন।

দলবদলের পর পরই সউমিত্র বাবু দিল্লিতে বিজেপির দপ্তরে বসে তোপ দাগলেন মমতার বিরুদ্ধে এবং বললেন পশ্চিমবঙ্গের উন্নতির জন্য বিজেপিকে প্রয়োজন।

অবশ্য, তার আগেই, তৃণমূল থেকে সউমিত্র বাবুকে বহিষ্কার করা হয়। শুধু তাই নয়, আরেক তৃণমূল সাংসদ অনুপম হাজরাকে ও বহিষ্কারের কথা ঘোষণা দেন তৃণমূল নেতা পার্থ চ্যাটার্জী।

“শোনা যাচ্ছিল, অনুপমও বিজেপিতে যাবে। তাই আগে ভাগেই ওকে বহিষ্কার করা হল,” বলেন এক তৃণমূল নেতা।

যদিও জনপ্রিয়তার নিরিখে সউমিত্র বা অনুপম কেউই বড় মাপের নেতা নন। পশ্চিমবঙ্গের বিজেপি মহলে বুধবার ছিল উচ্ছ্বাস।

অনেক বিজেপি নেতাই বলতে শুরু করেন যে, লোকসভা ভোটের আগে আরো অনেক তৃণমূল নেতা এবার বিজেপিতে আসবেন।

তৃণমূলের তরফ থেকে এই সম্ভাবনা উড়িয়ে দিয়ে বলা হয়, যারা বিজেপিতে যাওয়ার চেষ্টা করছেন, তারা জানেন যে দলে তাদের ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত।

“পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূলের প্রার্থীরা মমতা ব্যানার্জির জন্য ভোটে জেতেন। কেউ অন্য দলে গেলে তার কোনো প্রভাব পড়বে না” বলেন কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম।

দু’পক্ষের নেতাদের কার দাবি সত্যি, তা সময়ই বলবে। তবে লোকসভা ভোটের আগে বিজেপির এই দলভাগনের চেষ্টাই পশ্চিমবঙ্গের রাজনীতি এখন সরগরম।সূত্র: কালের কন্ঠ

আপনার মতামত লিখুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ