রবিবার,১৬ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং,২রা পৌষ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ১২:০৭
নেতা নয়, সেবক হতে চাই: শেখ তন্ময় ভোটকক্ষে সাংবাদিকরা যা করতে পারবেন, যা পারবেন না ফখর উদ্দিন মোহাম্মদ স্বপনের শেরে-বাংলা পদক লাভ ঈশ্বরদীতে সড়ক দুর্ঘটনায় কিশোরের মৃত্যু মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য কলমাকান্দা ইউএনও’র অনন্য নজির জাতীয় স্মৃতিসৌধ প্রস্তুত, থাকবে চার স্তরের নিরাপত্তা বলয় ক্রিকেটে জয়ের ধারা অব্যাহত রাখার আশাবাদ প্রধানমন্ত্রীর

ঢাবিতে ভর্তি পরীক্ষা, হঠাৎ খাবারের দাম বাড়ালেন ক্যান্টিন মালিক!

1 year ago , বিভাগ : শিক্ষা,

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক:  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ভর্তি পরীক্ষার শেষ দিনে হুট করেই খাবারের দাম বাড়িয়ে দিয়েছেন সূর্য সেন হলের ক্যান্টিনের মালিক। আজ শুক্রবার ভর্তি পরীক্ষা দিতে আসা শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে খাবারের প্রতিটি আইটেমের ওপর ১০ টাকা করে বেশি নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

আজ শুক্রবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় ক্যান্টিনের মালিক স্বপনকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করে হল প্রশাসন।

শুক্রবার দুপুরে এই প্রতিবেদক সূর্য সেন হলের ক্যান্টিনে খাবার খেতে যান। সে সময় দেখা যায়, ঢাবির এক শিক্ষার্থীর কাছ থেকে খাবারের দাম বেশি রাখছেন ক্যান্টিন মালিক।

কেন খাবারের দাম বেশি রাখা হচ্ছে জানতে চাইলে ক্যান্টিন মালিক স্বপন এনটিভি অনলাইনকে বলেন, ‘আজ কাস্টমার বেশি আসবে। তা ছাড়া আজ পরীক্ষা দিতে আসা শিক্ষার্থীদের থেকে ১০ টাকা বেশি নিচ্ছি।’

সরেজমিনে দেখা যায়, প্রতিদিন ক্যান্টিনে খাবারের মূল্য তালিকা থাকলেও আজ শুক্রবার কোনো তালিকা ছিল না। কাউকে অচেনা মনে হলেই তার কাছ থেকে খাবারের দামে ১০ টাকা করে বেশি রাখা হচ্ছে।

ক্যান্টিন মালিকের দাবি, হল প্রশাসনের অনুমতি নিয়েই তিনি খাবারের দাম বেশি রাখছেন। তবে হল প্রশাসন তাঁর দাবি অস্বীকার করেছে।

শিক্ষার্থীদের অভিযোগের পর হলের আবাসিক শিক্ষক অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ বাহাউদ্দিন সেখানে গিয়ে সত্যতা পেয়ে ক্যান্টিন মালিককে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ভর্তি পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে প্রতি পরীক্ষার দিন খাবারের প্রতি আইটেমে পাঁচ থেকে ১০ টাকা বেশি রাখা হয় সূর্য সেন হলের ক্যান্টিনে। এরই ধারাবাহিকতায় আজ শুক্রবার ‘ঘ’ ইউনিটের পরীক্ষার দিনেও খাবারের দাম বেশি রাখে তারা।

এদিকে জরিমানার পর ক্যান্টিন মালিক স্বপন বিষয়টি হল ছাত্রলীগের সভাপতি গোলাম সরোয়ারকে জানান। পরে ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী সেখানে গিয়ে ঝামেলা তৈরির চেষ্টা করেন বলেও অভিযোগ আছে। এ বিষয়ে জানতে গোলাম সরোয়ারের মুঠোফোন নম্বরে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তাঁর নম্বরটি বন্ধ পাওয়া যায়।

সূর্য সেন হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল বলেন, ‘আমাকে একজন ফোনে বিষয়টি জানানোর পর আমি হলের কয়েকজন আবাসিক শিক্ষককে সেখানে পাঠাই।’ এ ব্যাপারে আগামীকাল শনিবার সভার পর বিস্তারিত বলা যাবে বলে তিনি জানান।সূএ: এনটিভিনিউজ

আপনার মতামত লিখুন

শিক্ষা বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ