বৃহস্পতিবার,২০শে জুলাই, ২০১৭ ইং,৫ই শ্রাবণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ৮:৩২

২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে শিশু শ্রম মুক্ত করা হবে ————-শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী ৩৫তম বিসিএসে ক্যাডার পদে উত্তীর্ণ ১৫ প্রার্থীকে তলব জিমেইলে ভুলে পাঠানো বার্তা বাতিল করতে চান? সাইবার হয়রানি বেশি হয় ইনস্টাগ্রামে ‘নিউজ ফিড’ যুক্ত করছে গুগল কলাপাড়ায় ইয়াবাসহ দুই ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।। আসাদ-বিরোধী গেরিলাদের প্রতি সমর্থন বন্ধ করছেন ট্রাম্প

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে বৃক্ষরোপণ

15-10-16_38987
বান্দরবন সংবাদদাতা: ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের দাউদকান্দি থেকে কুমিল্লা বিশ্বরোড পর্যন্ত ৫০ কিলোমিটার অংশে ফোরলেন মহাসড়কের সৌন্দর্যবর্ধণের লক্ষ্যে  চলছে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি। বঙ্গবন্ধুর প্রিয়ফুল কুরচীসহ ১২ প্রজাতির ফুলগাছ রোপণ করা হচ্ছে ডিভাইডারের ফাঁকা অংশে। এছাড়া ফোরলেন এরিয়াতে গাছ ব্যতীত খালি অংশ থাকবে সবুজ ঘাস। ঘাসের সমারোহ এবং বকুল, সোনালু, রাধাচূড়া, কেছিয়া, কৃষ্ণচূড়া, কাঞ্চন, করবী, জারুল, পলাশ ফুলের গ্রানে বৈচিত্রময় নান্দনিক সৌন্দর্য্যে মুগ্ধ হবেন মহাসড়কে চলাচলকারী যাত্রীরা।
এ সড়কটিকে ৫টি প্যাকেজে বিভক্ত করে চলছে এ বৃক্ষরোপণ কার্যক্রম। কোথাও কোথাও ফুলের চারা লাগানোর পর দেয়া হয়েছে সংরক্ষণের জন্য বেষ্টনীও। সেপ্টেম্বর মাসেই প্রকল্পের কাজ সম্পন্ন  করার কথা থাকলেও দাউদকান্দি অংশে  এখনো চলছে এ বৃক্ষরোপণ কার্যক্রম।
 জানা গেছে, গত ২ জুলাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের অর্থনৈতিক লাইফ লাইন খ্যাত ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ফোরলেন উদ্বোধন করেছেন। এ মহাসড়কের সৌন্দর্য্য বর্ধনের লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর দিকনির্দেশনায় ফোরলেন প্রকল্পের মাঝে সড়ক ডিভাইডারের মাঝখানে বৃক্ষরোপণের জন্য পৃথক প্রকল্পের উদ্যোগ নেয়া হয়। দরপত্র গ্রহণ শেষে কনক্রিট এন্ড স্টিল টেকনোলজিস্ট লি. ও সাগর বিল্ডার্স নামক দু’টি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানকে ৯০ দিনের সময় দিয়ে গত ৩০ জুন এ প্রকল্পের কার্যাদেশ দেয়া হয়। এ প্রকল্পে ব্যয় ধরা হয় ১ কোটি ৬৯ লাখ ৬৫ হাজার ৮৭৮ টাকা। এ প্রকল্পের আওতায় ১৪৩.৪ কিলোমিটার এলাকায় ফুলের গাছ রোপণ করা হবে। এ কাজের তদারকি করছেন ফোরলেন প্রকল্পের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সড়ক ও জনপদ বিভাগের কর্মকর্তাগণ। আগামী দুই বছর পর্যন্ত রোপণকৃত এসব গাছের রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব পালন করবে ওই ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান।
সাগর বিল্ডার্স এর প্রজেক্ট ম্যানেজার ইঞ্জিনিয়ার সেলিম জানান, মহাসড়কের কুমিল্লার দাউদকান্দি থেকে চট্টগ্রাম সিটি গেইট পর্যন্ত ১৯০ কিলোমিটার ফোরলেনকে ডব্লিউপি-১ হতে ডব্লিউপি-৫  নামে ৫টি প্যাকেজে কাজ চলছে। এ প্রকল্পের মধ্যে দাউদকান্দি থেকে ময়নামতি পর্যন্ত এ অংশের কাজ আমাদের প্রতিষ্টান থেকে করা হচ্ছে। তবে সড়কের চান্দিনা, মাধাইয়া ও কুটুম্বপুর এলাকায় গবাদি পশুর বিচরণে আমাদের কিছু গাছর চারা নষ্ট হয়েছে। সূত্র-এবিনিউজ
কার্যাদেশ অনুযায়ী সেপ্টেম্বরের মধ্যেই এ প্রকল্পের কাজ সম্পন্ন হবার থাকলেও আগামী ৩০ অক্টোবর পর্যন্ত বর্ধিত করা হয়েছে বলে ওই ঠিকাদারী প্রতিষ্টান জানান। এছাড়া আগামী দুই বছর সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মহাসড়কে রোপণকৃত এসব গাছের রক্ষণাবেক্ষণ করবে। রোপণ করা গাছের চারার মধ্যে কোন গাছ মরে গেলে বা নষ্ট হয়ে গেলে তারা ওই গাছটি প্রতিস্থাপন করবে।
আপনার মতামত লিখুন

চট্রগ্রাম বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ