রবিবার,২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং,৮ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ৪:৩৬
ভিয়েতনামের প্রেসিডেন্টের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক বরিশালের গৌরনদীতে অস্ত্র ও ইয়াবাসহ এক যুবক কে আটক করেছে র‌্যাব ৮ বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি থেকে কয়লা লোপাট কারীদের দ্রুত বিচারের দাবিতে ক্ষতিগ্রস্থ ২০ গ্রাম বাসীর সমাবেশ ঝিনাইগাতীতে ইউএনও রুবেল মাহমুদের প্রশংসনীয় উদ্দ্যোগ পটুয়াখালীতে শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রী ধর্ষন চেস্টা মামলা।। পার্বতীপুরে আদিবাসী শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা উপকরন বিতরন ৪৫০জন অসহায় রোগিকে ফ্রি চিকিৎসা সেবা প্রদান

ডিসেম্বরে রেমিট্যান্স এসেছে ১১০ কোটি ডলার

9 months ago , বিভাগ : অর্থনীতি,

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক:  বিদায়ী বছরের শেষ মাস ডিসেম্বরে দেশে এসেছে ১১০ কোটি ৭১ লাখ ডলারের রেমিট্যান্স, যা আগের মাস নভেম্বরে আসা রেমিট্যান্সের তুলনায় ৪.০৭ শতাংশ কম। তবে অর্থবছরের হিসাবে রেমিট্যান্স বেড়েছে প্রায় ১২ শতাংশের মতো।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সর্বশেষ তথ্যে দেখা যায়, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে অবস্থানকারী প্রবাসীরা চলতি ২০১৭-১৮ অর্থবছরের প্রথম ছয় মাসে (জুলাই-ডিসেম্বর) ব্যাংকিং চ্যানেলে ৬৯৩ কোটি ৫৭ লাখ ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছে, যা গত বছরের এই ছয় মাসে আসা রেমিট্যান্সের থেকে ১১.০৮ শতাংশ বেশি।

তবে বেশ কিছুকাল ধরে রেমিট্যান্স প্রবাহে মন্দাভাব লেগে ছিল। গত সেপ্টেম্বর মাসেও মাত্র ৮৫ কোটি ৩৭ লাখ ডলার রেমিট্যান্স এসেছিল। একক মাসের হিসাবে এটা ছিল সাড়ে পাঁচ বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন। এর আগে ২০১২ সালের ফেব্রুয়ারিতে ৯২ কোটি ৮৮ লাখ ডলার রেমিট্যান্স এসেছিল। গত ২০১৬-১৭ অর্থবছরে আগের বছরের চেয়ে প্রায় ১৪.৪৮ শতাংশ কম রেমিট্যান্স আসে, যা ছিল পরিমাণের দিক দিয়ে গত ছয় অর্থবছরের মধ্যে সর্বনিম্ন।

২০১৭-১৮ অর্থবছরের প্রথম মাস জুলাইয়ে ১১৫ কোটি ৫৫ লাখ ডলার রেমিট্যান্স আসে। দ্বিতীয় মাস আগস্টে আসে ১৪১ কোটি ৮৬ লাখ ডলার। অক্টোবর মাসে এসেছে ১১৬ কোটি ২৭ লাখ ডলার।

নভেম্বর মাসে আসে ১২১ কোটি ৪৭ লাখ ডলার।
২০১৪-১৫ অর্থবছরে রেকর্ড পরিমাণ এক হাজার ৫৩১ কোটি ৬৯ লাখ (১৫.৩১ বিলিয়ন) ডলারের রেমিট্যান্স বাংলাদেশে আসে। এরপর প্রতিবছরই রেমিট্যান্স কমেছে। ২০১৫-১৬ অর্থবছরে আড়াই শতাংশ কমে রেমিট্যান্স আসে এক হাজার ৪৯৩ কোটি ডলার।

রেমিট্যান্সের উৎস দেশগুলোতে অর্থনৈতিক মন্দা এবং মোবাইল ব্যাংকিংসহ অন্যান্য মাধ্যমে হুন্ডিপ্রবণতা বাড়ায় বৈধ পথে প্রবাসীদের অর্থ কম আসছিল বলে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা জানিয়েছিলেন।

সূএ: কালের কন্ঠ

আপনার মতামত লিখুন

অর্থনীতি বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ