বুধবার,২৬শে জুলাই, ২০১৭ ইং,১১ই শ্রাবণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সময়: দুপুর ২:৫১

এমপিওভুক্ত হচ্ছেন ১৩১৮ শিক্ষক-কর্মচারী যে ৫টি বিষয় সহকর্মীদের কাছে প্রকাশ করবেন না ই-মেইল লেখার ক্ষেত্রে যে বিষয়গুলি খেয়াল রাখা দরকার ফিজ আরো ভালো হয়ে ফিরে আসবে : ওয়ালশ ভয়ংকর সুন্দর নিয়ে যা বললেন জয়া আহসান ফকিরহাটে অবিরাম বৃষ্টিতে অনেক বাড়ি, সড়ক ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এখন পানিতে নিমজ্জিত রয়েছে সিপিডিতে রিসার্চ অ্যাসোসিয়েট পদে নিয়োগ

ঠাকুরগাঁওয়ে শেষ মুহূর্তে চলছে রংতুলি কাজ

thakkurgaon-protima-pic-1

আরমান হোসেন, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি ॥ হিন্দু ধর্মের সব চেয়ে বড় উৎসব শারদীয় দূর্গাপূজা। পূজার আর মাত্র কয়েক দিন বাকি থাকলেও ঠাকুরগাঁও জেলায় র্দূগা পূজার ব্যাপক প্রস্তুতি চলছে। শেষ মূর্হুতে প্রতিটি পাড়া-মহল্লায় চলছে প্রতিমায় রং তুলির কাজ। দিন-রাত সমান তালে প্রতিমায় রংয়ের কাজ করা নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রতিমা শিল্পিরা।

চলতি বছরে ঠাকুরগাঁও জেলার ৫টি উপজেলায় সনাতন ধর্মাবলম্বীরা উৎসবমূখর পরিবেশে পূজা উদযাপন করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। এখন শুধু কিছু মন্ডবে বাকি রয়েছে প্রতিমায় রং তুলির কাজ। আগামী ২/৩ দিনের মধ্যে রং তুলির কাজ শেষ হবে বলে প্রতিমা শিল্পীরা জানান।

বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়, বিভিন্ন মন্ডপে প্রতিমা তৈরির কাজ প্রায় শেষ। দুই এক দিনের মধ্যেই প্রতিমা শিল্পীরা রং তুলির কাজ শেষ করবেন। জেলা শহরসহ ৫ টি উপজেলায় ৪৪৭টি পূজা মন্ডপে দূর্গা পূজা অনুষ্টিত হবে। গত বছরেও এসব মন্ডপগুলো ঝুকিপূর্ণ ছিল। তবে কোন ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। এবছরও শান্তিপূর্ণভাবে পূজা পালন হবে বলে পূজা উদযাপন পরিষদের নেতৃবৃন্দ জানান।

প্রতিমা শিল্পিরা জানান, এসব পূজা মন্ডপে প্রতিমা সরবারহ করতে প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন তারা। তাই খাওয়া-দাওয়া শেষে আরাম করার সময়টুকুও তাদের নেই। তারা জানান, বাঁশ ও খড় দিয়ে প্রতিমা অবকাঠামো তৈরির পর মাটি দিয়ে প্রলেপ দিচ্ছেন শিল্পীরা। বছরের এই সময়টা ব্যস্ততায় কাটলেও অন্য সময় তাদের হাতে কাজ থাকেনা।

এ ব্যাপারে ঠাকুরগাঁও জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ স¤পাদক তপন কুমার ঘোষ জানান, এবছর জেলার ৫টি উপজেলায় ৪৪৭টি মন্ডপে পূজা অনুষ্ঠিত হবে। শান্তিপূর্ণভাবে ধর্মীয় উৎসব পূজা পালন করার জন্য তিনি প্রতিটি ধর্মের মানুষের প্রতি আহবান জানান।

এ ব্যাপারে ঠাকুরগাঁও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার দেওয়ান লালন বলেন, জেলা ও উপজেলার পূজা মন্ডপগুলোতে পুলিশ মোতায়েন থাকবে। পূজা মন্ডপগুলোতে যারা বিশৃংঙ্খলা সৃষ্টি করার চেষ্টা করবে তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। তিনি আরো বলেন, যে সমস্ত পূজামন্ডপগুলো ঝুকিপূর্ণ সেগুলোতে বাড়তি নিরাপত্তা বলয় তৈরী করা হবে। এছাড়াও সাদা পোশাকে পুরিশ মোতায়েন থাকবে সকল পূজা মন্ডবে।

আপনার মতামত লিখুন

রংপুর,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ