বৃহস্পতিবার,২১শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ইং,৬ই আশ্বিন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সময়: দুপুর ২:৫০

স্নাতক পাসেই এসকেএফে চাকরি দায় যুদ্ধাপরাধের ভিক্ষুক মায়ের পাশে ডিআইজি মোকামে চালের দর কিছুটা কমেছে, প্রভাব নেই খুচরা বাজারে সোনার দাম বাড়ার পর এবার কমলো শাবিপ্রবিতে ‘মেকানিক্যাল ইননোভেশন’ শুরু ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ০৫:৪১ জাবি ছাত্রলীগের হল কমিটি হবে কবে?

টিসি দেওয়ার পর স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যা

মুক্তিনিউজ24.কম ডেস্ক: পিরোজপুর সদর উপজেলার তেজদাসকাঠী গ্রামে স্কুল থেকে টিসি দেওয়ার একদিন পর ময়ুরী খানম (১৩) নামে এক ছাত্রী আত্মহত্যা করেছে বলে জানা গেছে। নিহত ময়ুরী সদর উপজেলার টোনা ইউনিয়নের তেজদাসকাঠী গ্রামের রফিকুল ইসলাম সেখের মেয়ে এবং তেজদাসকাঠী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী ছিল। আজ শুক্রবার নিজ বাড়ি থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

জানা যায়, কয়েক দিন ধরে টোনা ইউনিয়নের মূলগ্রাম এলাকার আরিফ খান ময়ুরীকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে উত্ত্যক্ত করে আসছিল। এ বিষয়ে কথা বলতে বৃহস্পতিবার সকালে স্কুলের প্রধান শিক্ষক জয়নুল আবেদীন ময়ুরী অবিভাবকদের ডেকে পাঠান। স্কুলে যাওয়ার পর প্রধান শিক্ষক তাদের জানান যে স্কুলে যাতায়াতের পথে বিভিন্ন ছেলেদের সঙ্গে কথা বলার অভিযোগে ময়ুরীকে টিসি দেওয়া হয়েছে। এর জের ধরে আজ শুক্রবার সকালে ময়ুরী আত্মহত্যা করে বলে তার স্বজনরা অভিযোগ করেছেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে প্রধান শিক্ষক জয়নুল আবেদীন বলেন, ময়ুরী ও অপর আরেক ছাত্রীর সঙ্গে আদুরী ইউনিয়নের আরিফ খান নামের এক বিবাহিত ছেলের প্রেম সম্পকের্র জেরে বিরোধ চলছিল। বিষয়টি স্থানীয়রা স্কুলে এসে তাকে জানালে বিদ্যালয়ের শৃঙ্খলার কথা চিন্তা করে ময়ুরীসহ এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত চার ছাত্রীর অভিভাবকদের ডেকে পাঠানো হয়। প্রাথমিকভাবে তাদের ভয় দেখানোর জন্য দুই জনকে টিসি ও দুইজনকে এক মাসের জন্য বিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে বলে জানানো হয়।

এ বিষয়ে পিরোজপুর সদর থানার ওসি (তদন্ত) হাছাইন পারভেজ জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। সূত্র-কালেরকন্ঠ অনলাইন

এ বিষয়ে পুলিশ বাদী হয়ে একটি অপমৃত্যুর মামলা করেছে। তবে মেয়েটির বাড়ির কেউ থানায় অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান তিনি।

আপনার মতামত লিখুন

ঢাকা,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ