মঙ্গলবার,২৪শে এপ্রিল, ২০১৮ ইং,১১ই বৈশাখ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: দুপুর ২:৩০
সরকারি অর্থ ব্যয়ে স্বচ্ছতা নিশ্চিত করতে হবে : রাষ্ট্রপতি পূর্ণাঙ্গ মানুষ তৈরিতে বইয়ের গুরুত্ব অপরিসীম : শিক্ষামন্ত্রী শৈলকুপায় ৫ শিক্ষক লাঞ্ছিত : শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ ‘গ্লোবাল উইমেনস লিডারশিপ অ্যাওয়ার্ড’ পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী রানা প্লাজা ট্র্যাজেডি : গার্মেন্ট ব্যবসায় কী পরিবর্তন হয়েছে মোস্তাফিজের বিপক্ষে রাতে মাঠে নামবেন সাকিব চতুর্দশ শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ১৯৮৬৩ পরীক্ষার্থী

চিরিরবন্দরে রোপা আমনের বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা

2 years ago , বিভাগ : কৃষি,

pic-manik-jute

মোহাম্মাদ মানিক হোসেন, চিরিরবন্দর(দিনাজপুর) প্রতিনিধি:
খাদ্য শষ্যের ভান্ডার হিসাবে খ্যাত দিনাজপুরের ১৩ উপজেলার মধ্যে চিরিরবন্দর অন্যতম। উপজেলার ১২টি ইউনিয়নের দিগন্তজুড়ে ফসলের মাঠে মাঠে সবুজের সমারোহ।

কৃষি বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, এ বছর চিরিরবন্দর উপজেলায় রোপা আমন চাষের ল্য মাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ২৩ হাজার ৬১ হেক্টর জমি। বিগত সময় প্রাকৃতিক দূর্যোগ ও ধানের ন্যায্যমূল্য না পাওয়ায় কৃষকদের যে তি হয়েছে তা পুষিয়ে নিতে এবার অনাবৃষ্টির মধ্যেও কৃষক কোমর বেঁধে নেমেছে। শেষ পর্যন্ত কৃষক গভীর ও অগভীর নলকূপ দিয়ে পানি তুলে হাড় ভাঙ্গা পরিশ্রম করে সব জমিতে রোপা আমন লাগিয়ে ল্য মাত্রা ছাড়িয়ে গেছে বলে জানান কৃষক ও কৃষি বিভাগ।

চিরিরবন্দর উপজেলার ১২টি ইউনিয়ন ঘুরে দেখা গেছে, কৃষাণ-কিষাণীরা রোপা আমন পরিচর্যায় ব্যস্ত। উপজেলার আমন তে গুলোতে জীবন্ত ও ডেথ পার্চিং করা হয়েছে। ফলে রোগ-বালাই নেই বলে চলে। নশরতপুর গ্রামের কৃষক আজগার আলী, বলাই বাজার গ্রামের িিতশ চন্দ্র, সুকদেবপুরের আমজাদ হোসেনসহ অনেক কৃষকের সাথে কথা হলে তারা জানান, মৌসুমের শুরুতে অনাবৃষ্ঠির কারণে চারা লাগাতে আমাদের অনেক কষ্ট করতে হয়েছে। এখন বৃষ্টি হওয়ার পর আমনের চেহারা ফিরে পেয়েছে।

তারা আরো জানান, কৃষি অফিসের সহযোগিতায় আমরা আমন েেত পার্চিং করেছি। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো: মাহামুদুল হাসান জানান, এবার মৌসুমের শুরুতে অনাবৃষ্টির মধ্যেও নানা কৌশলে রোপা আমনের চারা লাগিয়েছে উপজেলার কৃষক। গত বছরের তুলনায় এ বছর ল্য মাত্রা ছাড়িয়েছে এবং আশানুরুপ ফলনের আশা করছি।

আপনার মতামত লিখুন

কৃষি বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ