শনিবার,২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ইং,১১ই ফাল্গুন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ৯:০২
প্রেমিকার ওরনা দিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে প্রেমিকের আত্মহত্যা বরিশালে কিশোর দিনমজুরের আত্মহত্যা মৃত্যুর কাছে হেরে গেল নির্যাতনের শিকার সেই শিশু সৌরভ এমএ পাস ওসি দিচ্ছেন এসএসসি পরীক্ষা ‘প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার নির্মাণ করা হবে’ সিসি ক্যামেরায় ধরা পড়ল চকবাজারে আগুনের সূত্রপাত (ভিডিওসহ) চিরিবন্দরে গাছের সাথে শক্রতা

গ্যাস ও ডিজেলচালিত যানবাহন বন্ধ করবে চীন

 মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: পরিবেশ রক্ষার জন্য গ্যাস ও ডিজেলচালিত সব ধরনের যানবাহন উৎপাদন ও বিক্রি বন্ধের পরিকল্পনা করছে চীন। বৈদ্যুতিক উপায়ে যেসব যানবাহন চলবে সেগুলোকে ভর্তুকি দেওয়ার ঘোষণাও দিয়েছে বিশ্বের বৃহত্তম এই দেশটি।

চীন সরকার বলছে, কবে থেকে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে তা ঠিক হয়নি। এরই মধ্যে গ্যাস, ডিজেলনির্ভর যানবাহন বন্ধের কার্যক্রম শুরু হয়ে গেছে। কর্তৃপক্ষ আশা করছে আগামী ২০২০ সালে চীনের সড়কে ৫০ লাখ বৈদ্যুতিক যানবাহন চলবে।

দেশটির গাড়ি নির্মাণ প্রতিষ্ঠানগুলোকে সতর্ক করে দিয়েছেন শিল্প মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী শিন গোবিন। তিনি বলেন, গাড়ি নির্মাণ প্রতিষ্ঠানগুলোর উচিত সরকারের নির্দেশনা মেনে চলা।

চীনের অর্থ মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে দেশটির সরকারি সংবাদমাধ্যম সিনহুয়া বলছে, ডিজেল, গ্যাস ছাড়া অন্য উপায়ে (বৈদ্যুতিক বা হাইব্রিড যানবাহন) যেসব যানবাহন চলবে, সেসব উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানগুলোকে ভর্তুকি দেওয়া হবে।

চীনে এমন অনেক প্রতিষ্ঠান রয়েছে, যাদের যানবাহন বৈদ্যুতিক উপায়ে চলে। এরই মধ্যে  বহুজাতিক  কোম্পানি ফোর্ড, জিএম ও ভোলকওয়েজেন চীনে বৈদ্যুতিক যানবাহন উৎপাদনের কাজ অনেকটাই এগিয়ে নিয়েছে।

চীনের যানবাহন উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান ভলভোও ঘোষণা দিয়েছে, আগামী বছরের জুলাই থেকে তারা যেসব মোটর উৎপাদন করবে, তার সবগুলোই চলবে বৈদ্যুতিক উপায়ে।

তবে সরকারের এমন সিদ্ধান্তে চীনের যানবাহনের বাজারে আধিপত্যকারী বিএআইসি ও বিওয়াইডির মতো প্রতিষ্ঠানগুলো তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ