বৃহস্পতিবার-২১শে মার্চ, ২০১৯ ইং-৭ই চৈত্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: সকাল ১১:৫০
পার্বতীপুরের বড়পুকুরিয়ায় কয়লা উত্তোলন বন্ধ ওবায়দুল কাদেরের বাইপাস সার্জারি সফল ২৬শে মার্চ সারা দেশে একযোগে জাতীয় সংগীত তৃতীয় শ্রেণি পর্যন্ত পরীক্ষা থাকছে না ঢাকায় নিয়োগ দেবে আম্বার গ্রুপ চাকরির সুযোগ দেবে নোভারটিস বাংলাদেশ নিয়োগ দেবে ইন্টারকন্টিনেন্টাল, ঢাকা

গোল মরিচ পরিপাক ক্রিয়ায় দারুন উপকারী

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: ওজন কমানোর ক্ষেত্রে স্বাস্থ্যকর উপায় হিসেবে কেবল কাজের ধরন বা ব্যায়াম প্রয়োজন তা নয়, এর সঙ্গে আপনার খাবার তালিকায় থাকা উপকরণের বিষয়টিও অনেক গুরুত্বপূর্ণ। যে প্রক্রিয়াই অনুসরণ করা হোক না কেন, শরীরের স্বাস্থ্যকর পরিপাক ক্রিয়ার কথা ভাবতে হবে।

আমাদের রান্নাঘরে এমন মশলা রয়েছে যা কেবল খাবার রান্নার জন্য দরকার তা নয়, এগুলো ওজন হ্রাসের জন্য অন্যভাবেও ব্যবহার করা যায়। পরিপাক ক্রিয়া এমন একটি বিষয় যা সঠিকভাবে সম্পন্ন না হলে ওজন হ্রাসের কোনো পরিকল্পনাই সফল হবে না। তাই, প্রথমেই পরিপাক ক্রিয়া সঠিকভাবে সম্পন্নের জন্য খাদ্য তালিকায় কয়েকটি উপকরণ যোগ করতে পারেন। গোল মরিচ এসব উপকরণের ভেতর অন্যতম।

স্বাস্থ্য উপকারিতা এবং ওজন হ্রাসের জন্য সম্পূরক একটি আশ্চর্য উপাদান কালো মরিচ। পরীক্ষায় দেখা গেছে, গোল মরিচ পরিপাক ক্রিয়ায় সহায়ক এবং ক্ষুধা বৃদ্ধি করে। এতে রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং প্রদাহরোধী উপাদান। এটি শরীর থেকে বিষাক্ত পদার্থ বের করতে ঐতিহ্যগতভাবে ব্যবহৃত হয়। ফুসফুস এবং শ্বাসনালী সংক্রান্ত সংক্রমণ উপশম করে। এ ছাড়া পক্ষাঘাতের আক্রমণ ও চাপ উপশমেও ব্যবহৃত হয় এটি।

গোল মরিচের উপকারিতা প্রচুর। এর থার্মোজেনিক প্রভাবের কারণে এটি বিপাক খাবার হিসেবে পরিচিত। এতে শরীরের ক্যালোরি কমে এবং একে অপরের মধ্যে থার্মোজেনিক প্রভাবের অনুপাতিক হার রক্ষা করে।

গোল মরিচ আস্ত কিংবা গুড়ো- দুইভাবেই খাওয়া যায়। তবে চূর্ণ করার পরপরই এটি ব্যবহার করতে হবে কারণ এটি গুড়ো করার পর এর কার্যকারিতা দ্রুত হ্রাস পেতে থাকে। এটি গ্রিল করার আগে মাংসে ব্যবহার করতে পারেন, যোগ করতে পারেন তেল কিংবা ভিনেগারে।

ওজন কমাতে দিনে অন্তত একবার গোল মরিচ খেতে পারেন। এটি আরো কার্যকর করতে গোল মরিচের চায়ের সঙ্গে মেশাতে পারেন মধু ও দারুচিনি।

আপনার মতামত লিখুন

লাইফস্টাইল বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ