বুধবার,২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং,১১ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: সন্ধ্যা ৭:৩০
অনার্স ভর্তির মেধা তালিকা প্রকাশ কাল রায়ের দিন চায় দুদক সাকিব ছাড়াই মাঠে নামছে বাংলাদেশ দেশের সকল নাগরিকের সুবিচার পাওয়ার অধিকার আছে —-জেলা ও দায়রা জজ দিনাজপুর নম্বর ঠিক রেখে অপারেটর বদলানো যাবে ১ অক্টোবর থেকে সালমানের হাত ধরে সেই আফগান শিশুটি এখন নায়িকা! ভারতকে ২৫৩ রানের চ্যালেঞ্জ আফগানিস্তানের

গাড়ি, স্মার্টফোন, পনির আমদানি নিষিদ্ধ করতে চায় পাকিস্তান

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক:  ঋণের দায়ে জর্জরিত পাকিস্তান। আইএমএফের কাছ থেকে বিভিন্ন কাজে বিপুল অংকের ঋণ নিয়েছে দেশটি। এবার সেই ঋণ শোধ করার ক্ষমতা নেই। তাই এবার পাকিস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী ঋণ শোধ করার উপায় খুঁজছেন হন্য হয়ে।

ক্ষমতায় আসার পর থেকেই বারবার নতুন প্রধানমন্ত্রী ঋণ পরিশোধের চাপে রয়েছেন। আর এ ঋণ শোধের চাপের পাশাপাশি যুক্ত হয়েছে বাণিজ্যঘাটতির সমস্যা।

জানা গেছে, পাকিস্তানের ২০১৭-১৮ অর্থবছরের বাণিজ্য ঘাটতির পরিমাণ ৩৭.৭ বিলিয়ন ডলার।

এ দুটি সমস্যা মোকাবেলায় পাকিস্তানকে এবার আমদানি কমাতে হবে। বিশেষ করে বিলাসদ্রব্য সীমিত করতেই হবে। এক্ষেত্রে উপায় হিসেবে আলোচনা চলছে বেশ কিছু দ্রব্যের আমদানি। আলোচনায় উঠে এসেছে পনির। এছাড়া বিলাসী ফল, গাড়ি ও স্মার্টফোনও নিষিদ্ধ করতে পারেন ইমরান।

পাকিস্তানের ইকোনমিক অ্যাডভাইজরি কাউন্সিল এক আলোচনায় সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে, বিভিন্ন বিলাসবহুল জিনিসের আমদানি বন্ধ করা হবে পাকিস্তানে। এসব জিনিসের তালিকায় রয়েছে বিদেশি গাড়ি ও স্মার্টফোন।

তবে আচমকা পনির আমদানি নিষিদ্ধ হওয়ার কথায় ব্যাপক প্রতিক্রিয়া তৈরি হয়েছে পাকিস্তানিদের মধ্যে। তারা বলছেন, পাকিস্তানের মোট পনির আমদানি হয় ১৩ মিলিয়ন ডলারের, যা নাকি ঘাটতির তুলনায় মাত্র ০.০৩৪৪ শতাংশ। তাই পনির নিষিদ্ধ করে পাকিস্তান কতটুকু লাভের মুখ দেখবে, কার্যত সেই প্রশ্নই তুলে ধরেছেন তিনি। তবে মূল্যবান বিদেশি গাড়ি ও অন্যান্য বিলাসদ্রব্য আমদানি নিষিদ্ধ করার পেছনে অনেকেই যুক্তি দেখছেন।সূত্র: কালের কন্ঠ

আপনার মতামত লিখুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ