বৃহস্পতিবার,১৮ই অক্টোবর, ২০১৮ ইং,৩রা কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: সকাল ১০:৩১
২১ অক্টোবর মাস্টার্স ভর্তির আবেদন শুরু বরিশালে শীতের আগমনে ব্যস্ততা বেড়েছে লেপ-তোষক কারিগরদের নীলফামারীতে কিশোর কিশোরী সম্মেলনের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে জুনিয়র ট্রেইনি অফিসার নিয়োগ দেবে ব্র্যাক বাঁশের দুয়োড় শিল্পে দুর্দিন শেখ রাসেলের ৫৪তম জন্মদিন কাল মঙ্গল ভবন মণ্ডপে ১২৩ বছরের ঐতিহ্য

গণমাধ্যমের কাছে কাঙ্ক্ষিত সহযোগিতা পাইনি : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক:  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বাংলাদেশে প্রত্যাবর্তনের ৩৭ বছর পেরোলেও বেশির ভাগ গণমাধ্যমের কাছ থেকে কাঙ্ক্ষিত সহযোগিতা পাইনি। উল্টো বিভিন্ন কর্মকাণ্ড নিয়ে সমালোচনা বেশি হয়েছে। এ ব্যাপারে মাথাও ঘামাইনি। সৎ পথে থাকলে ফলাফল পাওয়া যায়।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে বিএফইউজে (বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন)- এর সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

এসময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের বিরুদ্ধে সমালোচনা চলে আসছে। খুব কম গণমাধ্যমই আছে যারা সরকারের পজেটিভ বিষয়গুলো নিয়ে সংবাদ করে। নেগেটিভই বেশি। আমরা কারো কাছে দয়া-দাক্ষিণ্য চাই না। এইটুকু দাবি করতেই পারি, আমরা যদি ভালো কাজ করি সেটা যেন ভালো করে প্রচার  করা হয়। আমার স্বার্থে না, দলের স্বার্থে না, দেশের স্বার্থে এটি করবেন।’

তিনি আরো বলেন, পদ্মা সেতু নিয়ে কত পত্রিকা আমাদের বিরুদ্ধে দুর্নীতির কথা লিখেছিল। আমি চ্যালেঞ্জ দিয়েছিলাম দুর্নীতি প্রমাণ করার জন্য। কিন্তু পরে তো কোনো দুর্নীতি প্রমাণ করতে পারেনি। এসব মিথ্যা কথা বলা কি সংবাদপত্রের স্বাধীনতা? যারা এটা বলেছিল তাদের কী করা উচিত আপনারাই বলুন। এখন আমরা নিজেদের টাকায় পদ্মা সেতু বানাচ্ছি।

অনলাইন গণমাধ্যম নীতিমালা প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, অনলাইন গণমাধ্যম নীতিমালা হওয়া উচিত। সাইবার ক্রাইম নীতিমালা করছি ক্রাইম রোধ করার জন্য। আমি সাংবাদিকদের বলতে চাই, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই।

তিনি বলেন, আমরা সাধ্যমতো সাংবাদিকদের সাহায্য করে থাকি। আমরা ১২ হাজারের বেশি সাংবাদিককে  প্রশিক্ষণ দিয়েছি। আমরা ৯টা ভাষা দিয়ে অ্যাপ তৈরি করেছি। বিভিন্ন ভাষা শেখা সাংবাদিকদের দায়িত্ব।

তিনি আরও বলেন, সংবাদকর্মীরা যারা আমাদের পাশে রয়েছেন তাদের ধন্যবাদ জানাই।  দাবি-দাওয়া ছাড়াই আমি কাজ করে দিয়েছি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, জনগণের জন্য রাজনীতি করি, জনগণের ভোটের অধিকার আমরাই ফিরিয়ে এনেছি। এ দেশ আজ এগিয়ে যাচ্ছে। গণতন্ত্র আছে বলে দেশ দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে। দুর্নীতির নিয়ে অনেকেই লেখালেখি করেছিল। কিন্তু কেউ আমাদের বিরুদ্ধে দুর্নীতি প্রমাণ করতে পারেনি। আমরা আমাদের নিজেদের টাকায় পদ্মা সেতু বানাচ্ছি। এ একটি ঘটনাই আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে বাংলাদেশের মোড় ঘুরিয়ে দিয়েছে। আমরা কারো কাছে হাত পেতে চলব না। আমরা নিজেদের পায়ে দাঁড়াতে পেরেছি।

বঙ্গবন্ধু ১ স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা আকাশ বিজয় করেছি। স্যাটেলাইট সম্পর্কে অনেকে বলেছে, রকেট উড়লো, আমরা কী পেলাম। কিন্তু এর মাধ্যমে যে কী ধরনের উন্নয়ন হবে সেটা বোঝার সাধারণ জ্ঞান যদি তাদের না থেকে তা হলে তাদের দিয়ে এই দেশ কীভাবে চলবে আমার বোধগম্য নয়।

আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় না থাকলে দেশে কী ধরনের পরিস্থিতি হয়, সে স্মৃতি মনে করতে বলেন শেখ হাসিনা। স্বাধীনতার চেতনায় বাংলাদেশ গড়ে উঠবে বলে প্রত্যয় ব্যক্ত করেন তিনি।

২০৪১ সালে বাংলাদেশকে কেমন দেখতে চান, সে পরিকল্পনার কথাও বলেন প্রধানমন্ত্রী। প্রতিটি গ্রাম, প্রতিটি ইউনিয়নের মানুষ নাগরিক সুবিধা ভোগ করবে এমন পরিকল্পনা করছেন বলে জানান। সূত্র: এবিনিউজ

আপনার মতামত লিখুন

জাতীয়,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ