শুক্রবার,২৩শে জুন, ২০১৭ ইং,৯ই আষাঢ়, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সময়: সকাল ৬:০১

নাটোরের গুরুদাসপুর পৌরসভার সাড়ে ১৮ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা বাগাতিপাড়ার দরিদ্র মেধাবী সজনীকে ল্যাপটপ দিলেন ইউএনও পাঁচবিবিতে নগত অর্থ বিতরণ সৈয়দপুরে সুবিধা বঞ্চিতদের পাশে খুচরা পয়সা সংগঠন ইটভাটার কালোধোঁয়ায় ফসলের তিপূরণের দাবিতে কৃষকদের মানববন্ধন লালমনিরহাটে হিফজুল কোরআন প্রতিযোগিতায় ১ম স্থান অধিকার বায়তুল মুকাররমে পবিত্র ঈদুল ফিতরের নামাজের সময়সূচি

ক্রিকেট–বিশ্বে পাকিস্তান–বন্দনা

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: ওভালে ম্যাচ শেষ হওয়ার পরই একদফা উৎসব হয়ে গেছে। পরে চ্যাম্পিয়নস ট্রফি হাতে পেয়ে আরও একবার। পাকিস্তানের উদ্‌যাপন সেখানেই থামেনি। ড্রেসিংরুমে, সেখান থেকে হোটেলে ফিরেও রাতভর উল্লাস করেছেন সরফরাজ আহমেদরা। উৎসব চলবে আগামী কয়েক দিন। চলতেই হবে। রূপকথা লিখে চ্যাম্পিয়নস ট্রফি জেতা বলে কথা, সেটাও আবার চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতকে গুঁড়িয়ে দিয়ে!

সেই ভারত, যাদের বিপক্ষে গ্রুপ পর্বের ম্যাচটিতে অসহায় আত্মসমর্পণ করেছিল পাকিস্তান। সেই ভারত, যাদের বিপক্ষে আইসিসির টুর্নামেন্টগুলোয় এই ফাইনালের আগে সর্বশেষ সাত ম্যাচে সাতটিতেই হেরেছিল পাকিস্তান! পরশু ওভালে কী দারুণভাবেই না হিসাব উল্টে দিলেন ফখর-আমিররা।

ইংল্যান্ডে টিম হোটেল বা পাকিস্তানি সংখ্যাগরিষ্ঠ এলাকাগুলোয় তো উৎসব হচ্ছেই। তবে সেটা পাকিস্তানে যা হচ্ছে তার তুলনায় কিছুই না। করাচি-লাহোরে গভীর রাত পর্যন্ত রাস্তায় নেচে-গেয়ে, স্লোগান দিয়ে আর ফাঁকা গুলি ছুড়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন সমর্থকেরা। কালও তাদের দিনটা শুরু হয়েছে পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যমগুলোয় সরফরাজদের জয়জয়কার দিয়ে।

দেশটির অন্যতম প্রধান ইংরেজি দৈনিক দ্য ডন বড় অক্ষরে শিরোনাম করেছে, ‘স্বপ্নের ফাইনালে ভারতকে গুঁড়িয়ে দিল পাকিস্তান।’ দৈনিক জং লিখেছে, ‘পাকিস্তান চ্যাম্পিয়ন, গুঁড়িয়ে দিল ভারতকে।’ দ্য নিউজ-এ এক সম্পাদকীয় কলামে লেখা হয়েছে, ‘ভারতের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে পাকিস্তান যখন শোচনীয়ভাবে হেরেছিল, তখনই পাকিস্তান দলের শোকবার্তা লিখে দিয়েছিলেন অনেকে। কিন্তু পাকিস্তান দলকে নিয়ে একটা ব্যাপারে আপনি নিশ্চিন্ত থাকতে পারেন, ওরা টিকে আছেই শুধু আপনাকে বিস্ময় উপহার দিতে।’

শুধু পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যমই নয়, ভারতের সংবাদমাধ্যমগুলোও চলছে পাকিস্তান-বন্দনা। হিন্দুস্তান টাইমস লিখেছে, ‘ওভালে ধ্বংসযজ্ঞ, ভারতকে অপদস্থ করে জিতল পাকিস্তান।’ টাইমস অব ইন্ডিয়ার শিরোনাম, ‘অননুমেয় দলটি আবার জেগে উঠল।’

এসবের মধ্যেই চলছে রসিকতাও। টুইটারে যেমন রসিক এক ভারত সমর্থক ফাইনালের সেঞ্চুরিয়ান ফখর জামানকে নিয়ে লিখেছেন, ‘এটা তো ভারতের সঙ্গে পাকিস্তানের প্রতারণা। ফখর জামান তো সিলেবাসে ছিল না।’ ভারতের বিখ্যাত শিল্পপতি হর্ষ গোয়েঙ্কা দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজকে উদ্দেশ করে টুইটারে লিখেছেন, ‘নিরুপায় ও অসহায় অবস্থায় ১১ জন ভারতীয় লন্ডনে পড়ে আছে। মাননীয় মন্ত্রী সুষমা স্বরাজ, দয়া করে ওদের উদ্ধার করে আনুন।’ এএফপি।

অবশ্য রসিকতা করে এটা লিখলেও তাঁকে আবার কট্টর ভারতীয় সমর্থকদের দুয়োও শুনতে হচ্ছে টুইটারে!

আপনার মতামত লিখুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ