বৃহস্পতিবার,১৯শে জানুয়ারি, ২০১৭ ইং,৬ই মাঘ, ১৪২৩ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ১০:৫৫
জনবল নিয়োগ দেবে বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটি পরীমনির মন জুড়ে শুধুই ‘স্বপ্নজাল’ আগামী নির্বাচনে আ.লীগকে পুণরায় মতায় আনতে হবে -রমেশ চন্দ্র সেন ফেনীতে বর্ণাঢ্য আয়োজনে এসএ টিভির ৪র্থ প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত গাংনীতে কৃষকলীগের কমিটি গঠন সাতক্ষীরায় নানা আয়োজনে এসএ টিভি’র চতুর্থ প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত হয়েছে শ্যামনগরে সরকারী প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির নবনির্বাচিত কমিটির শপথ গ্রহণ

ক্রিকেটে পরিবর্তন আসছে

icc-cricket_32859মুক্তিনিউজ24.কম ডেস্ক: বহুল আলোচিত ২ স্তরের টেস্ট ক্রিকেটের প্রস্তাব বাতিলের পর এবার ক্রিকেটে অন্য ধরনের কিছু পরিবর্তন আসছে। এর মধ্যে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশীপে প্লে-অফ ম্যাচের কথাও ভাবছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)। একই সঙ্গে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি লীড় চালুর কথা ভাবছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা। অক্টোবরে অনুষ্ঠিতব্য পরবর্তী বোর্ড সভায় এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে পারে আইসিসি। দ্বি স্তরের টেস্ট চালুর দ্বার প্রান্তে গিয়ে শেষ পর্যন্ত ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের(বিসিসিআই) চাপে সরে আসে আইসিসি।
দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেটেওে প্রধান নির্বাহী ও আইসিসির সাবেক সিইও হারুন লরগাত বলেন, সকল বোর্ড আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের উন্নতির জন্য চেষ্টা করে যাচ্ছে। এর সেরা সমাধান টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ। অক্টোবরের দ্বিতীয় সপ্তাহে কেপ টাউনে চিফ এক্সিকিউটিভ কমিটি (সিইসি) ও বোর্ড আনুষ্ঠানিকভাবে বৈঠক করবে।
আইসিসি’র পরবর্তী সভায় এ আলোচনা অব্যাহত থাকবে জানিয়ে লরগাত বলেন, এটা পরিষ্কার যে, কিছু সদস্য দেশ ২ স্তরের ক্রিকেট কাঠামোতে সমর্থন দেয়নি। কেন এটা দর্শকদের আগ্রহ বাড়ানোর জন্য সেরা উপায় হতো সেটিই আমরা বোঝানোর চেষ্টা করেছিলাম। কিন্তু কিছু সদস্য তার পক্ষে যায়নি। তাই বিদ্যমান র‌্যাংকিংয়ে একটি টেস্ট চ্যাম্পিয়ন বিকাশে আমাদের ভিন্ন উপায় বের করতে হবে।

টেস্ট ক্রিকেটে কিছু পরিবর্তন বিবেচনা করা হবে। যেমন-
১। বর্তমান এফটিপি (ফিউচার ট্যুরস প্রোগ্রাম) সিডিউল বহাল রাখা হবে কিন্তু, প্রতি দু’বছরে শীর্ষ দু’টি দল একটি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ প্লে-অফ খেলবে; যা নিরপেক্ষ ভেন্যুতে আয়োজনের সম্ভাবনাই বেশি।
২। ২০১৯ সালে যত দ্রুত সম্ভব ক্রিকেট ক্যালেন্ডারে প্লে-অফ যুক্ত করা হবে।
৩। টেস্ট সিরিজ আয়োজনের জন্য দলগুলো অন্য দেশের সাথে আলোচনা করার স্বাধীনতা ফিরে পাবে।

ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টিরতেও কিছু পরিবর্তনের সম্ভাবনা আছে। যেমন-
১। ২০২৩ বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের প্রাক্কালে ওডিআই লিগ কাঠামো বাস্তবায়ন করা হবে।
২। ৩ বছরের অধিক সময় ধরে লীগ চলবে যেখানে ১৩টি দেশ এ সময়ের মধ্যে একে অন্যের বিপক্ষে অন্তত একটি সিরিজ খেলবে।
৩। শেষ বছরে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের প্লে-অফে খেলা টিমগুলো সরাসরি মূল পর্বের যোগ্যতা অর্জন করতে পারবে না।
৪। একইভাবে টি-২০ লিগ কাঠামো চালু করা হবে।
৫। সীমিত ওভারের সিরিজের দৈর্ঘ্য ৩টি ওয়ানডে ও ৩টি টি-টোয়েন্টিতে নির্ধারণের প্রস্তাব করা হবে।

আপনার মতামত লিখুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ


%d bloggers like this: