শনিবার,১৮ই আগস্ট, ২০১৮ ইং,৩রা ভাদ্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: দুপুর ২:৩৯
ট্রেনের শিডিউল বিপর্যয়, ভোগান্তিতে ঘরমুখো মানুষ এলএনজির যুগে দেশ, জাতীয় গ্রিডে সরবরাহ শুরু হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু, মিনার দিকে হাজিরা মুক্তি পেল ‘চাঁদ কথা’ চলচ্চিত্রের টাইটেল গান ঈদযাত্রার প্রথমদিনেই দেরিতে ছেড়েছে ট্রেন কোরবানির পশু জবাইয়ের জন্য ১১ সিটিতে ২৯৩৬ স্থান নির্ধারণ বাংলাদেশ নারী ফুটবল দলকে প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন

কার্জন হলে ছাত্রী উত্ত্যক্তের জেরে ছাত্রলীগের মধ্যে মারামারি

9 months ago , বিভাগ : শিক্ষা,

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক:  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ছাত্রীকে উত্ত্যক্তের ঘটনাকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটেছে।

গতকাল বুধবার রাতে ঢাবির কার্জন হলে এ ঘটনা ঘটে।

ছাত্রলীগ সূত্রে জানা যায়, বুধবার রাতে কার্জন হলে ঢাবির তিন ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করে ঢাকা কলেজের কয়েকজন শিক্ষার্থী। এ সময় ঢাবির ফজলুল হক হল ছাত্রলীগের সভাপতি সিসিম ঘটনাস্থলে যান। তখন বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী ও  জহুরুল হক হল ছাত্রলীগের সহসম্পাদক সায়েমসহ আরো কয়েকজন মিলে ঢাকা কলেজের ওই শিক্ষার্থীদের মারধর করেন। পরে ঢাকা কলেজের ওই শিক্ষার্থীদের পরিচিতজন ঢাবির এ এফ রহমান হল ছাত্রলীগের নেতা লয়েড, সিয়ামসহ ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী বাংলা একাডেমির সামনে জড়ো হন। সেখানে তাঁরা ছাত্রলীগ নেতা সায়েমকে একা পেয়ে মারধর করেন।

মারধরের শিকার ছাত্রলীগ নেতা সায়েম এনটিভি অনলাইনকে বলেন, ‘কার্জন হলে ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীরা কয়েকজন মেয়েকে উত্ত্যক্ত করে, আমি তার প্রতিবাদ করি। পরে আমি বাংলা একাডেমির দিকে বাইক চালিয়ে আসছিলাম। তারা আমাকে একা পেয়ে মারধর করে।’

এ বিষয়ে ঢাবির ফজলুল হক মুসলিম হল ছাত্রলীগের সভাপতি সিসিম বলেন, ‘আমি কার্জন হলে ছিলাম। এ সময় সুফিয়া কামাল হলের এক বান্ধবী আমাকে ফোন করে তিন ছাত্রীকে উত্ত্যক্তের বিষয়টি জানায়। আমি সেখানে গিয়ে তাঁদের (ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থী) বের করে দিই। পরে শুনলাম তারা জহুরুল হক হলের এক ছাত্রলীগ কর্মীকে মেরেছে।’

জানা গেছে, লয়েড লিংগুস্টিক বিভাগের ছাত্রলীগের কমিটিতে দায়িত্বপ্রাপ্ত এবং সিয়াম এফ রহমান হল ছাত্রলীগের কর্মী।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে এফ রহমান হল ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল হাসান তুষার এনটিভি অনলাইনকে বলেন, ঢাকা কলেজের কয়েকজন শিক্ষার্থী ছাত্রীদের উত্ত্যক্ত  করায় তাদের মারধর করে জহুরুল হক হলের সায়েমসহ আরো কয়েকজন। পরে ছাত্রলীগ নেতা লয়েড, সিয়াম সেখানে যান। তবে তাঁরা কাউকে মারধর করেননি।
সায়েম জহুরুল হক হল ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আসিফ তালুকদারের সমর্থক বলে জানা গেছে। এ ব্যাপারে আসিফ তালুকদার বলেন, ঢাকা কলেজ ও এফ রহমান হলের কয়েকজন শিক্ষার্থী কয়েকজন মেয়েকে উত্ত্যক্ত করছিল। সায়েম তার প্রতিবাদ করলে তাঁরা তাঁকে মারধর করে।

এ বিষয়ে জানতে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রব্বানীর মুঠোফোন নম্বরে একাধিকবার কল দেওয়া হলেও তা রিসিভ হয়নি।

সূএ: এনটিভিনিউজ

আপনার মতামত লিখুন

শিক্ষা বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ